| ঢাকা, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯

রানের পরিস্থিতি দেখে ম্যাচের সমীকরণ করে ফেলেছিলেন তামিম

২০২২ আগস্ট ১০ ২২:১২:১২
রানের পরিস্থিতি দেখে ম্যাচের সমীকরণ করে ফেলেছিলেন তামিম

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-১ ব্যবধানে হেরে অস্বস্তিতে পড়ে বাংলাদেশ দল। লক্ষ্য ছিল ওয়ানডে সিরিজে ঘুরে দাঁড়ানো। তবে ঘুরে দাঁড়ানো তো দূরের কথা, প্রথম ম্যাচে ৩০৩ রানের টার্গেট থাকলেও তামিম ইকবাল ৫ উইকেটে হেরে যান।

দ্বিতীয় ম্যাচে ২৯১ রানে হেরেছে তারা। আর দীর্ঘ ৯ বছর পর জিম্বাবুয়ের কাছে সিরিজ হেরেছে। টানা পরাজয়ে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ দলের জন্যও হোয়াইটওয়াশের লজ্জা অপেক্ষা করছিল। শেষ ম্যাচে মাত্র 256 রান করার পর জয়ের চিন্তা মাথায় আসা উচিত হয়নি। দলের অধিনায়ক তামিম ইকবালও জয়ের কথা ভাবেননি।

ম্যাচ শেষে তামিম বলেছেন, ‘যখন আপনি তিনশ ও ২৯০ রান করেও হারবেন, তখন আড়াইশ রান মনে হবে দুইশ রানের মতো। আমি ধরে নিয়েছিলাম ৩৫ ওভারের মধ্যেই হেরে যাব।’

স্বল্প রানের লক্ষ্য দিয়ে তামিমের পরিকল্পনায় ছিল শুধুই আক্রমণ। এই পালে হাওয়া লাগান অভিষিক্ত এবাদত হোসেন। হাসান মাহমুদ, মেহেদী মিরাজরা শুরুতে উইকেট এনে দেয়ার পর এক ওভারেই এবাদতের দুই উইকেট। ৩৫ রানে ৫ উইকেট পাওয়ার পর বাকি কাজটা হয়ে যায় বলে মনে করছেন তামিম।

‘আমি ভেবেছি, শুধু আক্রমণ এবং আক্রমণই করব। তারপর কী হয় দেখা যাবে। সৌভাগ্যবশত আমরা দ্রুতই ৫টি উইকেট পেয়ে যাই, এরপর বাকি কাজটাও হয়ে যায়।’

অভিষেকেই নিজেকে চিনিয়েছেন এবাদত হোসেন। ওভারে হ্যাট্রিকের সুযোগ তৈরি করলেও পরের বল নো বল হওয়ায় মিস করেন সুযোগ। হ্যাট্রিক না করতে পারলেও বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরার মোমেন্টাম এনে দেন তিনিই। তামিম অবাক হয়েছেন, বেশ কয়েকটি সিরিজে দলের সঙ্গে রেখেও কেন খেলানো হয়নি তাকে!

‘আমরা তাকে অনেকদিন ধরেই দলের সঙ্গে রেখেছি। এই সিরিজে মুল দলে সে জায়গা না পাওয়ায় একটু অবাকই হয়েছি। এটা ছিল তার জন্য খুব ভালো সুযোগ এবং সৌভাগ্যবশত সে প্রত্যাশা পূরণ করেছে।’

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে