| ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

আর্জেন্টিনাকে সতর্ক করে দিলেন চেসলাভ মিকনিয়েভিচ

২০২২ নভেম্বর ৩০ ১৪:৫৩:২১
আর্জেন্টিনাকে সতর্ক করে দিলেন চেসলাভ মিকনিয়েভিচ

বিশ্বকাপে সামনে এগিয়ে যেতে আর্জেন্টিনা-পোল্যান্ডের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে বারবার আসছে লিওনেল মেসি ও রবের্ত লেভানদোভস্কির নাম। আসাই স্বাভাবিক। তবে আর্জেন্টিনার মেসি ও পোল্যান্ডের লেভানদোভস্কির মধ্যে লড়াইয়ের চেয়ে দলকে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন চেসলাভ মিকনিয়েভিচ। পোল্যান্ড কোচ মনে করিয়ে দিলেন, ফুটবল দলীয় খেলা, টেনিসের মতো একক লড়াই নয়।

গত কয়েক বছর ধরে গোলের বন্যা বইয়ে দিয়ে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন লেভানদোভস্কি। সময়ের সেরা ফরোয়ার্ডদের একজন পোল্যান্ড অধিনায়ক। আর আর্জেন্টাইন নেতা মেসি তো অনেকের চোখে সর্বকালের সেরাদের একজন।

ফুটবলের বিশ্বের এই দুই তারকা বুধবার মাঠের লড়াইয়ে নামবেন নিজ নিজ দেশের হয়ে। স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ বাংলাদেশ সময় রাত একটায় শুরু ম্যাচটি।

৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘সি’ গ্রুপে শীর্ষে পোল্যান্ড। সৌদি আরবের সমান ৩ পয়েন্ট নিয়ে আর্জেন্টিনা গোল ব্যবধানে এগিয়ে দুই নম্বরে।

নকআউট পর্বে জায়গা করে নিতে পোল্যান্ডের জন্য ড্র-ই যথেষ্ট। তবে আর্জেন্টিনার জয়ের বিকল্প আছে সামান্যই। ড্র করলেও থাকবে মেসিদের সম্ভাবনা, তবে পক্ষে আসতে হবে বেশ কিছু সমীকরণ।

ম্যাচটি দেখার অপেক্ষায় পুরো বিশ্ব। মিকনিয়েভিচ অবশ্য বললেন, গ্রুপের বর্তমান পরিস্থিতির জন্য নয়, অনেক আগে থেকেই ই ফুটবলপ্রেমীদের চোখ এই লড়াইয়ে।

“এই গ্রুপ হওয়ার পর থেকে পুরো বিশ্ব ম্যাচটি দেখার অপেক্ষায় আছে। এই লড়াই পোল্যান্ড ও আর্জেন্টিনার মধ্যে, লেভানদোভস্কি ও মেসি মধ্যে নয়।”

“এটা টেনিস খেলা না, যেখানে তারা একে অপরের বিপক্ষে খেলবে এবং সবাই অপেক্ষা করবে কার সার্ভিস এইস হলো কিংবা কে সুন্দর লব শট খেলল। রবের্তের তার সতীর্থদের প্রয়োজন এখানে, তেমননি মেসিরও।”

এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে ১১ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে আর্জেন্টিনা ও পোল্যান্ড। যেখানে ৬ ম্যাচে জয় আর্জেন্টিনার, পোলিশরা জিতেছে ৩টি। বাকি দুটি ড্র।

তবে বিশ্বকাপে পরস্পরের বিপক্ষে দুই দলেরই জয় একটি করে। এমনকি লাতিন আমেরিকার চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে সবশেষ দেখায়ও জিতেছে পোলিশরা। ২০১১ সালের ওই লড়াইটি ছিল প্রীতি ম্যাচ। তবে এবারের দেখার গুরুত্ব একটু বেশি, বুঝতে পারছেন মিকনিয়েভিচ।

“এটা প্রীতি ম্যাচ নয়। এটা দুই দলের লড়াই, যাদের উভয়েরই সামনে বিশ্বকাপে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে।”

পরের ধাপে যেতে পোল্যান্ডকে থামাতে হবে আর্জেন্টাইন তারকা মেসিকে। দলটির কোচ মিকনিয়েভিচ অবশ্য বললেন, তারা কেন, কারোরই জানা নেই ফুটবলের এই নক্ষত্রকে দমিয়ে রাখার পথ।

“এটা দারুণ একটি প্রশ্ন, কীভাবে লিওনেল মেসিকে থামানো যায়। আমি মনে করি পুরো বিশ্ব গত ১৮ বছর ধরে এটি সম্পর্কে ভাবছে। আমি মনে করি না, সে যতদিন খেলছে, ততদিন আমরা এটা বের করতে পারব।”

পাঠকের মতামত:

ফুটবল এর সর্বশেষ খবর

ফুটবল - এর সব খবর



রে