| ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

যে কারণে একই সময়ে গ্রুপের দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে

২০২২ নভেম্বর ৩০ ১৮:৫৫:৩৪
যে কারণে একই সময়ে গ্রুপের দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে

আলমের খান: গ্রেটেস্ট সো অন আর্থ ফুটবল বিশ্বকাপের একটি ম্যাচও মিস করতে চায়না অনেক সমর্থক। তবে বিশ্বকাপের শেষ রাউন্ডের সূচি তাদের বেশ হতাশ করবে। একই সময় একই গ্রুপের দুটি ম্যাচ রাখা হয়েছে গ্রুপ পর্বের শেষ রাউন্ডে। অর্থাৎ যে কোনো একটি ম্যাচ মিস করতেই হবে ফুটবলপ্রেমীদের। তবে ফিফার এই কাজটি করার কারণটি কিন্তু বেশ যুক্তিসঙ্গত। ঘটনার সূত্রপাত ১৯৭৮ আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ থেকে।

সে বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ম্যারাডোনা বাহিনী। গ্রুপ পর্বের প্রথম দুই ম্যাচের পর আর্জেন্টিনার জেতার জন্য অপর দুই দলের দিকে তাকিয়ে থাকতে হয়েছিল। অপর দুই দলের ম্যাচ শেষে সমীকরণ কিছুটা এমন দাঁড়ায় যে পরবর্তী রাউন্ডে উত্তীর্ণ হতে হলে আর্জেন্টাইনদের পেরুকে ৩-০ গোলে হারাতে হবে। নিজেদের শেষ ম্যাচে ৬-০ ব্যবধানে পেরুকে উড়িয়ে পরবর্তী রাউন্ড নিশ্চিত করে আর্জেন্টিনা। তবে সেই বিশ্বকাপের পর তুমুল গুঞ্জন উঠেছিল যে পেরুকে নানা রকম রাজনৈতিক সুবিধা দিয়ে ম্যাচটি কিনে নিয়েছিল আর্জেন্টাইনরা।

এ নিয়ে প্রচুর সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছিল দুদলের। পরবর্তী বিশ্বকাপ অর্থাৎ ১৯৮২ স্পেন বিশ্বকাপেও একই ঘটনারই পুনরাবৃত্তি ঘটে। ইউরোপিয়ান ফুটবলের সৌন্দর্যের মাঝে তার কুরুচিপূর্ণ দিকটি দেখতে হয় ফুটবল বিশ্বের। একই গ্রুপে ছিল অস্ট্রিয়া,আলজেরিয়া,জার্মানি,চিলি। প্রথম আফ্রিকান দল হিসেবে কোনো ইউরোপিয়ান দলকে হারানোর কীর্তি করেন আলজেরিয়া।

তবে পরের ম্যাচেই অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে হার শিকার করে নিতে হয়। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচের সমীকরণ এমন দাঁড়ায় অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে জার্মানি ১-০ ব্যবধানে জিতলে জার্মানি এবং অস্ট্রিয়া দু দলই পরবর্তী রাউন্ডের জন্য কোয়ালিফাই করে ফেলবে। অপরদিকে আলজেরিয়া চিলিকে হারিয়েছিল এবং তাদের পরবর্তী রাউন্ডে উঠার সম্ভাবনা বেশ প্রবল ছিল। তবে জার্মানি এবং অস্ট্রিয়া নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া করে ফেলে, জার্মানি প্রথম গোলটি দেওয়ার পর দুদলের কেউই পরবর্তীতে আর গোল দেওয়ার কোনো চেষ্টাই করেনি।

এই ঘটনাটি আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের ঘটনার চেয়েও বেশি আলোড়ন সৃষ্টি করে। দুই দলকে ফুটবল বিশ্বের পক্ষ থেকে প্রবল সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়। এরপর থেকেই গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ গুলো ফিফা একই সময় আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়। যাতে পরিসংখ্যান দেখে জয় পরাজয়ের হিসাব মেলাতে না পারে কোনো দল। সেই ১৯৮২ বিশ্বকাপের পর থেকেই প্রতি বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচগুলো একই সময়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

পাঠকের মতামত:

ফুটবল এর সর্বশেষ খবর

ফুটবল - এর সব খবর



রে