| ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

ফিল্ডিং-বোলিং ছাড়াও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ হারার প্রধান কারণ ফাঁস

২০২২ আগস্ট ০৬ ২১:৩৯:০৮
ফিল্ডিং-বোলিং ছাড়াও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ হারার প্রধান কারণ ফাঁস

আলমের খান: গতকাল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টাইগারদের ওয়ানডে ম্যাচ হারার পর, সেটিকে একেক বিশ্লেষক একেক ভাবে ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করছে। ওয়ানডেতে উড়তে থাকা বাংলাদেশ কিভাবে খর্বশক্তির এই জিম্বাবুয়ে দলের বিপক্ষে হেরেছে এটা আসলেই কিছুটা চমকপ্রদ।

তবে ফিল্ডিং কিংবা বোলিং নয় টাইগারদের ব্যাটিং মানসিকতাই ম্যাচ হারার জন্য দায়ী।অধিনায়ক তামিম ইকবালক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন "আমরা ১৫ থেকে ২০ রান কম করেছি। তবে ১৫-২০টি রান নয় ব্যাটসম্যানরা চাইলেই ৩৩০ এর কোটাও পার করতে পারতেন। চাইলেই বলা হচ্ছে কারণ, এ কাজটি করার ন্যূনতম চেষ্টাও করেননি ব্যাটসম্যানরা।

বেশ ধীরেসুস্থে টাইগারদের ভালো শুরু এনে দিয়েছিলেন দুই ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল এবং লিটন কুমার দাস। ওয়ান ডাউনে নামা বিজয়ও প্রায় তিন বছর পর ওয়ানডেতে নিজের প্রত্যাবর্তন রাঙ্গিয়েছেন দারুন এক ফিফটিতে। তবে পরবর্তীতে মুশফিক এবং মাহমুদুল্লাহ শেষের ওভারগুলোতে ঝড় তুলতে ব্যর্থ হয়েছে। ৪৯ বলে ৫২ রান করে অপরাজিত থাকেন মুশফিক।

অপর প্রান্তে ১২ বলে ২০ রান করে অপরাজিতো থাকেন মাহমুদুল্লাহ। দুজনের স্কোরগুলো আপাতদৃষ্টিতে বেশ ভালই মনে হচ্ছে। তবে মুশফিক এবং মাহমুদুল্লাহর নিঃসন্দেহে আরো একটু আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলার উচিত ছিল। হাতে আরো আট উইকেট থাকার পরও এই ধরনের ব্যাটিং উইকেটে ৩০৩ এর বেশি করতে পারেনি বাংলাদেশ।

এছাড়াও অধিনায়ক তামিম ইকবালের ৮৮ বলে ৬২ রানে ইনিংসটিরও যথেষ্ট দায়ী রয়েছে। নিঃসন্দেহে বাংলাদেশের সবচেয়ে ধারাবাহিক ব্যাটসম্যান বর্তমানে তামিম। তবে উইকেট বুঝে নিশ্চয়ই আরেকটু আগ্রাসী ক্রিকেট খেলার প্রয়োজন ছিল তামিমের। ২০২৩ বিশ্বকাপ ভারতে অনুষ্ঠিত হবে। ভারতে প্রায় সব উইকেটই হবে ব্যাটিং বান্ধব।

সেখানে এ ধরনের ব্যাটিং অ্যাপ্রচ নিয়ে খেললে, কিংবা ৩২০-২৫ রান নিয়মিত করতে না পারলে দিনশেষে ব্যর্থতাই স্বীকার করতে হবে টাইগারদের। নিজেদের প্রিয় সংস্করণ ওয়ানডেতেও কিছু দিক নিয়ে এখনো কাজ করতে হবে টাইগারদের এটাই হয়তো চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিল এই ম্যাচটি।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে