| ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

নন্দিত খেলোয়াড় নান্নু আজ হয়ে যাচ্ছেন ট্রলের পাত্র

২০২২ সেপ্টেম্বর ২৬ ১৭:৩৪:১৯
নন্দিত খেলোয়াড় নান্নু আজ হয়ে যাচ্ছেন ট্রলের পাত্র

আরমান হোসেন:- মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। এখনকার প্রজন্ম তাকে নিয়ে ট্রল করে। সোসাল মিডিয়ায় তাকে নিয়ে চলে সমালোচনার ঝর। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেটে তার অবদান কি একেবারেই ভুলে যাবার মতো?চলুল একটু চোখ বুলাই মিনহাজুল আবেদিন নান্নু দেশের হয়ে ওয়ানডে খেলেছেন ২৬ টি। রান করেছেন ৪২৬ গড় ১৯ এর কোঠায়। ২০০৫ সালের আগে বাংলাদেশের প্রায় ব্যাটারের গড় এমনই ছিলো।

১৯৯৯ সালের বিশ্ব কাপে স্কটল্যান্ডের সাথে ম্যাচে ২৬ রানে ৫ উইকেট পরে যাওয়ার পরও জয়ী দলের নাম বাংলাদেশ। আর তার পিছনে বড় অবদান কিন্তু নান্নুর। তার লাড়াকু ৬৮ রানের উপর ভর করেই বাংলাদেশ ম্যাচটা জিতে নেয়। আমরাও পাই বিশ্ব কাপের প্রথম জয়। ১৯৯৯ সালের বিশ্ব কাপের অন্যতম সেরা পারফর্মার ছিলেন নান্নু। ওই বিশ্ব কাপে তাকে দলে রাখার জন্য আন্দোলন হয়েছে দেশ জুরে।

বল হাতেও তিনি ছিলেন যথেষ্ট সাবলীল। ২৬ ম্যাচে ২০ উইকেট তারই প্রমান।টেস্টে দেশের হয়ে কখনই মাঠে না নামলেও প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে ৩৬ ম্যাচে ৫১ গড়ে ১৭০০ অধিক রান তার পক্ষেই কথা বলে। ওই সময়ে ৫১ গড়ে রান করাটা মোটেই অবহেলা করার মতো বিষয় নয়।

তাছাড়া ২০০০ সালের আগের সময়টাতে নান্নুই ছিলেন দেশের সবচেয়ে বড় তারকা। তবে তিনি মুলত সমালোচনায় পরেন নির্বাচক হবার পর থেকে। খেয়াল খুশি মতো দল গঠন আর অদ্ভুত সব মন্তব্যের জন্যেই তাকে নিয়ে ট্রল হয় সমালোচনা হয়।তবে যতই সমালোচনা হোক না কেনো খেলোয়াড় নান্নু কে ছোট করার কোনো কারন নেই। বাংলাদেশের ক্রিকেটে তার অবদান অবশ্যই শিকার করতে হবে।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে