| ঢাকা, শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯

w,w,w,w একাই উইকেটের বন্যা বইয়ে দিলেন মিরাজ

২০২২ জুন ১৮ ১৬:২২:৩৫
w,w,w,w একাই উইকেটের বন্যা বইয়ে দিলেন মিরাজ

বাংলাদেশ-ইউন্ডিজের মধ্যকার প্রথম টেস্ট শুরু হয় ১৬ জুন থেকে। প্রথম টেস্টে টসে হেরে নতুন অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে ব্যাট করতে নেমে একেবারেই হতাশ করেছে বাংলাদেশের ব্যাটাররা।

সেই ইনিংসে ৬ জন ব্যাটার আউট হয়েছিলেন ০ রানে। তবে অল্প রানে অল-আউট হলেও উেইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টের দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশের পক্ষে সবচেয়ে সফল ছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

৫৯ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট শিকার করেছেন এই ডানহাতি অফস্পিনার। অথচ শুরুতে বোলিংয়ে ছন্দেই ছিলেন না মিরাজ। প্রথম ১৬ ওভারে ৪ মেডেন পেলেও ৪১ রান দিয়ে কোনো উইকেট ছিলো না মিরাজের। পরের ৬ ওভার ৫ বলে আরও ২টি মেডেন দিয়ে ১৮ রান দিতেই ৪ উইকেট তুলে নেন এই স্পিনার।

শেষদিকে এসে এমন বোলিংয়ের জন্য মিরাজ কৃতিত্ব দিয়েছেন নিজের দুই সতীর্থ তাইজুল ইসলাম ও মুমিনুল হককে। এর মধ্যে মুমিনুল একাদশে থাকলেও তাইজুল সুযোগ পাননি এই ম্যাচে। একাদশের বাইরে থেকেই তাইজুল সমর্থন দিয়ে গেছেন, এ ছাড়া মুমিনুলও সাহায্য করায় দুইজনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মিরাজ।

দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে এই অব স্পিনার উইন্ডিজ সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান ধারাভাষ্যকার ড্যারেন গঙ্গাকে বলেন, ‘আমি প্রথম ২-৩টা স্পেলে হতাশ ছিলাম কারণ ভালো বোলিং হচ্ছিল না, ঠিক জায়গায় করতে পারছিলাম না। মানসিকভাবে ফোকাসড হওয়াটা জরুরী ছিল। সে ক্ষেত্রে আমার সতীর্থ মুমিনুল ও তাইজুল আমাকে দারুণ সমর্থন দিয়েছে। তাদের দুজনকে ধন্যবাদ দিতে চাই।’

শুরুতে উইকেটের পেছনে ছোটায় ভুল হয়েছে জানিয়ে মিরাজ আরও বলেন, ‘প্রথম দুই-তিন স্পেলে আমি উইকেটের জন্য বল করেছি। এটাই সমস্যা হয়েছিল। এরপর আমি রান আটকানোর দিকে যাই। ওভারপ্রতি আড়াই রানের মতো দিলে সুযোগ আসবে বলে মনে করেছিলাম। এমনই হয়েছে।

আমার কাছে মনে হয় উইকেট কিছুটা ধীরগতির ছিল। এই উইকেটে শুধু একই জায়গায় বল করে যাওয়াটা সঠিক সিদ্ধান্ত। এতে করে ব্যাটসম্যানদের আউট হওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকে। আমি আসলে তখন ডট বল দেওয়াতে মনোযোগ দিয়েছি।। এরপরই সাফল্য এসেছে।’

এদিকে উইন্ডিজদের ২৬৫ রানে থামিয়ে দেওয়ার পর ব্যাটিংয়ে নেমে ৫০ রান তুলতে ২ উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। যার একটি মিরাজের। ২ রান করে আলজারি জোসেপের বলে স্লিপে কাইল মাইয়্যার্সকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। লোয়ার অর্ডার থেকে আচমকা তিনে নামার কারণও জানতে চাওয়া হয় মিরাজের কাছে।

এই ডানহাতি ব্যাটার জানান, দলের সেরা ব্যাটসম্যানদের উইকেট বাঁচানোর জন্য তাকে শেষ বিকালে উপরে নামানো হয়েছিল। মিরাজের ভাষ্যে, ‘আমরা আসলে মূল উইকেটগুলো হারাতে চাচ্ছিলাম না। ৪৫ মিনিটের মতো বাকি ছিল দিনের। যে কারণে আমি উপরে উঠে আসি। আমার জন্য দারুণ সুযোগ ছিল মিডল অর্ডারে রান করার। কিন্তু আমি সেটা করতে পারিনি। আশা করছি এরপর সুযোগ আসলে কাজে লাগাবো।’

অ্যান্টিগা টেস্টের তৃতীয় দিন টাইগার ব্যাটসম্যানদের উপর নির্ভর করছে টেস্টে বাংলাদেশের অবস্থান। মিরাজ জানিয়েছেন, দুইজন ব্যাটসম্যান ৭০ করতে পারলে এবং দুটি শতরানের জুটি আসলেই জয়ের সুযোগ আসবে বাংলাদেশের সামনে।

মিরাজ বলেন, ‘ব্যাটসম্যানদের দিকে তাকিয়ে আছি। যদি দুইটা শত রানের জুটি হয়, দুজন ব্যাটসম্যান ৭০ করে রান পায় তাহলে সুযোগ আমাদেরও আছে। আমাদের লক্ষ্য আগামীকাল পুরো দিন ব্যাট করা। ভালো ব্যাট করলে সুযোগ থাকবে।’

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফুটবল এর সর্বশেষ খবর

ফুটবল - এর সব খবর



রে