| ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

রেকর্ড গড়েও আনন্দে নয় বরং আক্ষেপেই রয়েছেন এই খেলোয়াড়

২০২২ জুলাই ০৩ ১২:১১:৩৫
রেকর্ড গড়েও আনন্দে নয় বরং আক্ষেপেই রয়েছেন এই খেলোয়াড়

বৃষ্টির কারণে পুরো খেলা হয়নি। ১৩ ওভার ব্যাটিং করতেই ম্যাচটি পরিত্যাক্ত হয়ে যায়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের এই প্রথম ম্যাচে অবশ্য বাংলাদেশের ওপেনিং এনামুল হক বিজয় নিজের সেরাটা দিয়েছেন। আর সে ক্ষেত্রে রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

তবে ব্যাট করার আগে টস হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই রেকর্ড গড়েন বিজয়। তবে রেকর্ডে না থাকলেই তিনি খুশি হতেন। কারণ রেকর্ডটি হলো দীর্ঘতম বিরতির পর টি-টোয়েন্টি দলে ফেরা বাংলাদেশের ক্রিকেটার। যা আনন্দের চেয়ে বেশি আক্ষেপের।

শনিবারের আগে সবশেষ ২০১৫ সালের নভেম্বরে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছিলেন ২৯ বছর বয়সী এ ডানহাতি ব্যাটার। প্রায় সাড়ে ছয় বছর পর টি-টোয়েন্টি একাদশে ঢুকেছেন তিনি। মাঝে বাংলাদেশ খেলে ফেলেছে ৭৯টি ম্যাচ। দেশের আর কোনো ক্রিকেটারের দুই ম্যাচের মাঝে নেই এতো বড় বিরতি।

বিজয়ের আগে রেকর্ডটি ছিল আবুল হাসান রাজুর দখলে। ২০১২ সালে অভিষেকের পর চারটি টি-টোয়েন্টি খেলে বাদ পড়েন এ ডানহাতি পেসার। পরে ২০১৮ সালে আফগানিস্তানের বিপক্ষে দেরাদুনে হওয়া সিরিজে সুযোগ পেয়েছিলেন এক ম্যাচে। মাঝের সময়ে বাংলাদেশের খেলা টি-টোয়েন্টির সংখ্যা ছিল ৫০টি।

এছাড়া শফিউল ইসলাম ৩৭, নুরুল হাসান সোহান ৩৪, ইমরুল কায়েস ২৭ ও আলআমিন হোসেন ২৭ ম্যাচের বিরতি দিয়ে ফিরেছিলেন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে।

বাংলাদেশের রেকর্ড গড়লেও বিশ্বরেকর্ড থেকে বেশ দূরেই অবশ্য বিজয়। এ তালিকায় সবার ওপরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ডেভন থমাস। ২০০৯ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে অভিষেক হওয়া এ উইকেটরক্ষক ব্যাটার নিজের তৃতীয় ও চতুর্থ ম্যাচের মধ্যে বাইরে ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১০২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে।

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে