| ঢাকা, শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

এবার টি -টোয়েন্টিতে দেখা যেতে পারে নতুন ওপেনিং জুটি

২০২২ জুলাই ০২ ১১:৩০:৪২
এবার টি -টোয়েন্টিতে দেখা যেতে পারে নতুন ওপেনিং জুটি

শনিবার ডমিনিকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এবার ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বাংলাদেশের নতুন ওপেন জুটি দেখা যেতে পারে। সফল হলে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জুটি বাঁধবেন এনামুল হক বিজয় ও মুনিম শাহরিয়ার।

লিগ শুরুর আগে এমনটাই ইঙ্গিত করলেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তিনি অধিনায়ক হিসেবে নবাগত মুনিম এবং দীর্ঘ অনুপস্থিতির পর দলে ফিরে আসা বিজয়কে কিছুটা সময় দেওয়ার পক্ষে। যাতে দুজনেই নিজেদের প্রস্তুত করতে পারে।

এ প্রসঙ্গে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘মুনিম এখনও দলে নতুন। বিজয় অনেকদিন পর মাত্র আসলো। ওদেরকে ভালো সময় দিতে হবে। ওরা যেন নিশ্চিন্তে খেলতে পারে এই নিশ্চয়তা দেওয়া টিম ম্যানেজমেন্ট ও আমার দায়িত্ব। সঠিকভাবে যেন সুযোগ পায়। এটা নিশ্চিত করা জরুরি। আমার তরফ থেকে আমি এটা চেষ্টা করব। ঠিকভাবে সুযোগ পেয়ে যেন নিজেদের গেমটা খেলতে পারে। আশা করি ওরা সুযোগ পাবে ও ভালো করবে’

গত বছর বাংলাদেশের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে নিয়মিত ওপেনিং করেছেন নাঈম শেখ। যদিও ফর্মের কারণে দলে বাইরে তিনি। সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর বাদ পড়েছিলেন লিটন দাসও। তবে তিনি ফিরেছেন দুর্দান্তভাবে। তিনি থাকলে অবশ্য বিশ্বকাপের আগে নতুন এক জুটি পরখ করে নেয়ার সুযোগটা হারাতে চাইবে না বাংলাদেশ।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রেখেছেন মুনিম। দুই ইনিংসে যদিও ২১ রানের বেশি করতে পারেননি। তবুও তার ওপর আস্থা রাখছে টিম ম্যানেজমেন্ট। এদিকে ঘরোয়া ক্রিকেটে রানের বন্যা বইয়ে দিয়ে দলে ফিরেছেন বিজয়। সর্বশেষ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) আসরে তার ব্যাট থেকে এসেছে ১ হাজার ১৩৮ রান। এমন পারফরম্যান্সের পর তাকে উপেক্ষা করাটাও কঠিন কাজ হতো নির্বাচকদের জন্য।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর মিশনটা অবশ্য ভিন্ন। এই সিরিজ দিয়েই বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করছে বাংলাদেশ। তাই নিজের বিশ্বকাপ দল গোছানোর শুরুটা হচ্ছে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জ থেকেই। টাইগার অধিনায়কের চাওয়া যারা সুযোগ পাচ্ছেন তারা যেন সেটা লুফে নেন।

তিনি বলেছেন, ‘হোম কন্ডিশনে আমরা অনেক বেশি ধারাবাহিক। অ্যাওয়ে ম্যাচে উন্নতির ঘাটতি এখনও আছে। এখানে আরও ভালো হতে হবে, এটা আমি স্বীকার করি। বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় আছে যারা এখনও তরুণ, অনভিজ্ঞ। ওদেরকে সময় দিতে হবে। বিশ্বকাপের আগে আমরা আরও ১০-১২টি ম্যাচ খেলব। ওরা যেন যথেষ্ট সুযোগ পায়। ওরা সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে ওদের জন্যও ভালো, দলের জন্যও ভালো।’

পাঠকের মতামত:

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে