ঢাকা, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৫ আশ্বিন ১৪২৭

দেশের গোলরক্ষকদের দেখে অবাক জুলিও সিজার

২০২০ জানুয়ারি ২৩ ২২:৫৪:১২
দেশের গোলরক্ষকদের দেখে অবাক জুলিও সিজার

বলতে গেলে একদিনের সফরে বাংলাদেশে এসেছেন ব্রাজিলের জার্সিতে তিন বিশ্বকাপ খেলা তারকা গোলরক্ষক জুলিও সিজার। বুধবার রাতে ঢাকায় পৌছে আজ বৃহস্পতিবার সারাদিন ফুটবলের সঙ্গে ছিলেন সাম্বা তারকা। দেশের কয়েকজন গোলরক্ষক, কোচ ও নারী ফুটবলারদের সঙ্গেও সময় কাটিয়েছেন। পরামর্শ

দিয়েছেন স্থানীয় গোলরক্ষকদের। তাদের সঙ্গে বাফুফে টার্ফে অনুশীলনও করে অবাকই হয়েছেন ব্রাজিলিয়ান এই গোলরক্ষক। বিজ্ঞাপন স্থানীয় গোলরক্ষকদের কি পরামর্শ দিলেন প্রশ্নের জবাবে বাফুফে ভবনে সাংবাদিকদের তিনি বললেন-‘আমি সত্যিকার অর্থেই অবাক হয়েছি। টেকনিক্যালি তারা অনেক দক্ষ। যখন আমি তাদের দেখেছি অবাক হয়েছি। ইতিবাচকভাবেই অবাক হয়েছি।

দুপুরে বাফুফে টার্ফে স্থানীয় গোলরক্ষক কোচ ও বিভিন্ন ক্লাবের গোলরক্ষকদের সঙ্গে অনুশীলন সেশন করেছেন সিজার। এসময় দেশের স্থানীয় গোলরক্ষক কোচ বিপ্লব ভট্টচার্য (শেখ জামাল), পনিরুজ্জামান পনির (চট্টগ্রাম আবাহনী), নুরুজ্জামান নয়নরা (বসুন্ধরা কিংস) উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ‍পুলিশ এফসির হিমেলসহ ‍দু’জন গোলরক্ষক, চট্টগ্রাম আবাহনীর নেহাল, নাইম ও আজাদরা। বিজ্ঞাপন তাদের টেকনিক্যাল ও টেকটিক্যাল জায়গা নিয়ে পরামর্শ দিয়েছেন জুলিও সিজার। সিজারের কথায়, ‘বিশেষ করে গোলকিপারদের সঙ্গে দেখা হয়ে ভাল লাগছে।

কিছু টিপস দিয়েছি। এটা দেখে ভাল লাগছে যে অনেক মেয়েরাও গোলকিপার হতে চায় এ দেশে। বেশিরভাগ ফুটবলারই স্ট্রাইকার বা ফরোয়ার্ড হতে চায়। সে হিসেবে গোলকিপার হতে চায় এটা ভাল লেগেছে আমার।’ এসময় সিজারকে দুটি প্রশ্ন করেছেন বসুন্ধরা কিংসের গোলরক্ষক কোচ নুরুজ্জামান নয়ন। নয়নের ভাষায়, ‘আমি জিজ্ঞেস করেছি- তুমি যখন একটা বাজে গোল খাও কিভাবে উতরায়ে ম্যাচের মধ্যে ফিরো। সে বললো- ইট ইজ অল এবাউট মেন্টালিটি। কত তাড়াতাড়ি তুমি ব্যাক করতে পারো। আবার পারসোনালিটি। ভাল খেললে সবাই ভাল বলবে।

আবার খারাপ খেললে খারাপ বলবে। দুটিই তোমাকে পজিটিভ হিসেবে নিতে হবে।’ ক্রসিং বলে কিভাবে গোলরক্ষক মুভ করবে নয়নের সেই প্রশ্নে সিজার বলেছেন, ‘বল বুঝতে হবে। বল বুঝে দ্যান আসতে হবে। আক্রমণ করতে হবে। বল না বুঝে দৌড় দিলে বিপদ হতে পারে বেশি।’ এছাড়াও স্থানীয় গোলরক্ষকদের দুইটা টেকনিক নিয়ে কাজ করেছেন সিজার এমনটা জানালেন নয়ন, ‘আমাদের গোলরক্ষকদের দুটি সমস্যা তিনি ধরিয়ে দিয়েছেন। একটা গোলরক্ষক বল ধরার সময় একটু বেশি নিচু হয়ে দাঁড়িয়ে ছিল। নিচু হয়ে থাকলে উপরের পাওয়ারফুল শট ফিস্ট করতে পারা যাবে না।

সিজার পরামর্শ দিয়েছে একটু স্লাইডলি হেলে দাঁড়াতে। তাহলে উপরেও ধরতে পারবে। নিচেও ধরতে পারবে। দ্বিতীয় বলেছেন, সেট পিসের সময় ন্যাচারাল পজিশনে গোলরক্ষকদের দাঁড়াতে হবে। রিলাক্স মুডে। শক্ত হয়ে দাঁড়ানো যাবে না।’ দেশের ফুটবলারদের একটা বিষয়ে খুশি হয়েছেন সিজার বলে জানালেন নয়ন, ‘ও ক্রস দিলো আমাদের গোলকিপারদের। সেগুলো খুব ভালভাবেই ধরেছে হিমেল-নেহালরা। সেটাতে সে খুব খুশি। হাতের নাগালের বাইরের বল কিভাবে ধরবে সেটা বলেছে সে।

যেদিকের বল আসবে সেদিকের পা দিয়ে বল ধরে নিচে নামতে হবে। যেটা হাতের নাগালে থাকবে সেগুলোতে বেসিক নিয়ম পালন করলেই হবে। আর ক্রসিংয়ে নাগালের বাইরে থাকলে বামে গেলে বাম পায়ে টেক অফ করবে। ডানে গেলে ডান পায়ে টেক অফ করবে।’ শুক্রবার বাংলাদেশ সফর শেষ করে ঢাকা ত্যাগ করবেন এই ব্রাজিলিয়ান তারকা।


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর