ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৯ ফাল্গুন ১৪২৬

সেই সাকিব এই সাকিব

২০২০ জানুয়ারি ২২ ১৮:৩৬:২০
সেই সাকিব এই সাকিব

২৯ অক্টোবর সন্ধ্যার কথা মনে আছে? বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে এসে যখন নিজ মুখে নিজের নিষেধাজ্ঞার চিঠি সাকিব আল হাসান পড়ছিলেন, তখন তার অবয়বে নেমে এসেছিল নিকষ কালো আঁধার। তাতো হওয়ারই কথা। যেন প্রলয়ী কালবৈশাখী তার ভেতর দুমড়ে-মুচড়ে দিচ্ছে। সেই

বুধবার (২২ জানুয়ারি) সাকিব এসেছিলেন রাজধানীর ডেইলি স্টার ভবনে। ইউনিলিভারের পণ্য লাইফ বয়’র সঙ্গে তার চুক্তির মেয়াদ বেড়েছে। পণ্যটির সঙ্গে ৮ বছর অবিচ্ছেদ্য বন্ধনে কাটানোর পর তা বেড়ে আরো তিন বছর হয়েছে। সেই অনুষ্ঠানেই দেশের ক্রীড়াঙ্গনের সংবাদমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত হয়েছিলেন। কেক কাটা শেষ হলে শুরু হলো প্রশ্নোত্তর পর্ব।

তার প্রতি সংবাদমাধ্যমের প্রথম প্রশ্নটিই ছিল, এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মধ্যে নিজেকে কিভাবে তৈরী করছেন। প্রশ্নটির পর তাকে দেখে মনে হল, এটি তার প্রত্যাশিতই ছিল। যেহেতু এতদিনে এই জাতীয় প্রশ্নের মুখোমুখি তিনি হননি। তাই উত্তরও দিলেন চটপটে। কিন্তু খোলামেলা কিছুই বলেননি। রেখে দিলেন রহস্য।

‘সেটার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আপনাদের আমি ফিরে আসা পর্যন্ত। বললাম আমি অনেক কিছু করে আসছি এবং আসার পর কিছু প্রমাণিত হলো না সেটার ফল ভালো হবে না, গ্রহণযোগ্যও হবে না। অপেক্ষা করেন সব ঠিকঠাক থাকলে উত্তর সময়ই বলে দেবে।’

দ্বিতীয় প্রশ্নটি ছিল, তার ক্রিকেটকে মিস করা নিয়ে। তিনি নেই অথচ একের পর এক ক্রিকেট খেলেই যাচ্ছে টিম বাংলাদেশ। কিন্তু দেশের সেরা ক্রিকেটার হয়েও তিনি নেই। কেমন লাগছে তার?

এমন প্রশ্নের জবাবে অবশ্য খুব বেশি আবেগপ্রবণ তাকে মনে হল না। বরং যা বললেন তাতে ছিল রুঢ় বাস্তবতার প্রতিফলন।

‘একটা জিনিসের সঙ্গে যদি আপনার সম্পৃক্ততা থাকে সেটা আপনার পছন্দের হোক না পছন্দের হোক আপনি সেটাকে মিস করবেন এটা খুবই স্বাভাবিক। আমার ক্ষেত্রেও ভিন্ন কিছু না। ’

এক সংবাদ কর্মী জানতে চাইলেন ক্রিকেটের বাইরের জীবন কেমন কাটছে? না, কাঙ্খিত জবাব প্রশ্নকর্তা পেলেন না।

‘ভিন্ন। এই জিনিসগুলো আমি খুব একটা শেয়ার করতে চাই না। যদি ও রকম কোন পরিস্থিতি আসে তখন যদি মনে হয় শেয়ার করা দরকার। তার আগে এই বিষয় নিয়ে কথা বলতে আমি স্বাচ্ছন্দবোধ করব না। ’

আরেকজন জানতে চাইলেন আপনার সময় কাটে কি করে? জানালেন, ক্রিকেট যেহেতু নেই তাই অন্যান্য কাজেই সময় দিচ্ছেন।

‘না আসলে সব কিছু বাদ দিয়ে যেহেতু একটা কাজের সঙ্গে জড়িত ছিলাম, এখন যেহেতু কাজটা নেই। অন্য সব কাজ করার সুযোগ হচ্ছে।’

প্রায় ৮ মিনিটের প্রশ্নোত্তর পর্ব শেষে হট সিট থেকে উঠে গেলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটের অটোম্যাটিক চয়েস সাকিব আল হাসান। যাওয়ার আগে প্রশ্নোত্তর পর্বের মধ্যেই অস্ফুট বাক্যে রেখে গেলেন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে প্রবল বিক্রমে ২২ গজে ফেরার দৃঢ় প্রত্যয়।


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর