ঢাকা, শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭

জয় দিয়ে সেঁতিয়েনকে স্বাগত জানালো বার্সেলোনা

২০২০ জানুয়ারি ২০ ১৮:১৮:১৪
জয় দিয়ে সেঁতিয়েনকে স্বাগত জানালো বার্সেলোনা

নতুন কোচসেঁতিয়েনের অধীনে প্রথম মাঠে নেমেছিলো বার্সেলোনা রবিবার (১৯ জানুয়ারি)। গ্রানাডার বিপক্ষের ম্যাচটি ছিলো তাঁর জন্য অগ্নিপরীক্ষার শামিল। কেননা প্রথম ম্যাচেই ঘরের মাঠ ছিলো তাঁর পরীক্ষার কেন্দ্র। তাঁকে ব্যর্থ করেননি লিওনেল মেসি। জয় দিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন তাদের নতুন গুরুকে।

বিজ্ঞাপন লিগে প্রথম দেখায় গ্রানাডার মাঠে তাদের বিপক্ষে ২-০ গোলে হেরেছিলো কাতালানরা। রোববার ঘরের মাঠে ফিরতি লেগে এসে সেই হারের মধুর প্রতিশোধ নিলো বার্সা।ন্যু ক্যাম্পে গ্রানাডার বিপক্ষে একমাত্র গোলে জিতে জয়ের ধারায় ফিরলো বার্সা। নিজেদের মাটিতে শুরু ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবলে ছিলো বার্সেলোনা।

এগিয়ে যাবার সুযোগ এসেছিলো ৬ষ্ঠ মিনিটেই। প্রতিপক্ষের গোলপোস্টের কাছাকাছি থেকে শট নেন আনুস ফাতি। কিন্তু তাঁর কোনাকুনি শট ঠেকিয়ে দেন সফরকারী দলের গোলরক্ষক। বিজ্ঞাপন ২১ মিনিটে আরও একটি দুর্দান্ত সুযোগ হাতছাড়া করেন আনুস ফাতি। ৪৫ মিনিটে সুযোগ হাতছাড়ার তালিকায় নিজের নাম লেখান লিওনেল মেসিও।

এতে করে গোল ছাড়াই প্রথমার্ধ শেষ করে দুই দল। দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে বার্সা। আক্রমণাত্মক খেলার পরও ৬৬ মিনিটে প্রায় হজম করে ফেলার উপক্রম হয়েছিলো একটি গোলের।ডি-বক্সের বাইরে থেকে ইয়ান এতেকির নিচু শট গোলরক্ষককে ফাঁকি দিলেও পোস্টে বাধা পায়। ম্যাচের ৬৯ তম মিনিটে বড় ধাক্কাটা খায় সফরকারীরা।

মেসিকে ফাউলের কারণে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন গ্রানাডার স্প্যানিশ ডিফেন্ডার সানচেজ। এতে নিমিষেই ১০ জনের দলে পরিণত হয় সফরকারীরা। ১০ জন নিয়ে গ্রানাডা আর আটকে রাখতে পারেনি লিওনেল মেসিদের। অবশেষে ৭৬ মিনিটে আসে সেই মহেন্দ্রক্ষণ। গোছানো এক আক্রমণে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। গ্রিজমানকে বল বাড়িয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন মেসি। গ্রিজমানের পাস পেয়ে ব্যাকহিল করেন আর্তুরো ভিদাল। বল পান মেসি।

সহপজ সুযোগ করেননি হাতছাড়া। প্রথম ছোঁয়ায় ডান পায়ের শটে ঠিকানা খুঁজে নেন এই আর্জেন্টাইন তারকা। এবারের লা লিগায় মেসির মোট গোল হলো সর্বোচ্চ ১৪টি। সব প্রতিযোগিতা মিলে মৌসুমে ১৭টি। এরপর ম্যাচের বাকি সময় জুড়ে আর গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই। ফলে ১-০ গোলের হয় নিয়েই সেঁতিয়েন শিষ্যদের মাঠ ছাড়তে হয়।

সেই সাথে জয়ের ধারায় ফিরলো বার্সেলোনা। গ্রানাডার বিপক্ষে জয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়ালকে আবারো টপকে শীর্ষে উঠে গেলো বার্সেলোনা।২০ ম্যাচে ১৩ জয় ও চার ড্রয়ে বার্সেলোনার পয়েন্ট হলো ৪৩। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে দুইয়ে নেমে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ। তিনে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৩৫। সারাবাংলা/এনএ


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর