ঢাকা, শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৬

সিনেমার জন্য ভালো প্রচারণা খুব জরুরি : মিম

২০২০ জানুয়ারি ১৯ ১৫:০০:১৮
সিনেমার জন্য ভালো প্রচারণা খুব জরুরি : মিম

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম। ২০১৯ সালে প্রশংসিত হয়েছেন ‘সাপলুডু’ সিনেমা দিয়ে। সেই রেশ নিয়েই নতুন বছর শুরু করলেন। এরইমধ্যে শুটিং সম্পন্ন হয়েছে ‘পরাণ’ সিনেমার। পাশাপাশি কাজ করছেন ‘ইত্তেফাক’ ছবিতে। দুটি ছবি নিয়ে স্বপ্নবাজ মিম। প্রত্যাশা করছেন

দুটি ছবিই গ্রহণ করবেন দর্শক। বছর জুড়ে শুটিং, ফটোশুট নিয়েই কেটে যায় সময়। তবে অবসরের দেখা পেলেই পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে ভুলেন না এই লাক্স তারকা। দেশে কিংবা বিদেশে মা-বাবা আর ছোট বোনকে সঙ্গে নিয়ে রিচার্জ করে নেন জীবনটাকে। ক্যারিয়ার ও ব্যক্তি জীবন নিয়ে মিম কথা বলেছেন জাগো নিউজের সঙ্গে। বর্তমান ব্যস্ততা নিয়ে মিম জানান, ‘গত সপ্তাহে রায়হান রাফির পরিচালনায় ‘পরাণ’ ছবির সর্বশেষ শুটিং ছিল। সফলভাবে শুটিং শেষ হলো। এখানে শরীফুল রাজ ও ইয়াশ রোহানের সঙ্গে কাজ করেছি। বেশ চমৎকার দু’জন অভিনেতা। আমরা সবাই পরিশ্রম করেছি, চেষ্টা করেছি ভালো একটি সিনেমার জন্য। বিশেষ করে আমি আমার কথা বলবো। এ ছবিতে মফস্বলের পরিশ্রমী একজন মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছি। এটা আমার জন্য নতুন অভিজ্ঞতা। দর্শক যেন নতুন করে খুঁজে পান আমাকে সেজন্য আমাকে লুক, গেটাপ নিয়ে ভাবতে হয়েছে। নিজেকে তৈরি করতে হয়েছে মফস্বলের আমেজে। চরিত্র ও গল্পের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হয়েছে। শুটিং হয়েছিল ময়মনসিংহে। সেখানকার মানুষজন দারুণ সহযোগিতা করেছেন।’ এরইমধ্যে জানা গেছে ছবিটি আসছে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ছবিটি মুক্তি পাবে। সে লক্ষে এখন প্রচারণার সময় চলছে। বেশ কিছুদিন আগেই এসেছে প্রথম পোস্টার। তবে ছবিটির ট্রেলার বা গান কিছু এখনো রিলিজ পায়নি। প্রচারণার দিক থেকে ‘পরাণ’ পিছিয়ে পড়ছে না? মিমের জবাব, ‘প্রচারণা সিনেমার জন্য অনেক জরুরি। পত্রিকা, চ্যানেলের সাক্ষাৎকারের পাশাপাশি নানাভাবে ছবির প্রচার দরকার। বলিউডের শাহরুখ খানও নিজের ছবি নানাভাবে প্রচার করেন। শুধু নিজের রাজ্যে নয়, ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে গিয়েও ছবির প্রচার করেন শাহরুখ খান। আশা করছি ‘পরাণ’ ছবিরও ভালো প্রচারণা হবে। পরিচালক রায়হান রাফি প্রচারণার দিকে মনযোগী আছেন। এখনো সময় আছে। হয়তো শিগগিরই প্রচারণা দেখা যাবে।’ একই পরিচালকের ‘ইত্তেফাক’ নামের একটি ছবিতেও অভিনয় করছেন মিম। এখানে তার নায়ক হালের ক্রেজ সিয়াম আহমেদ। ছবিটি সর্বশেষ খবর সম্পর্কে মিম জানান, সিলেটের নানা লোকেশনে এর শুটিং হয়েছে। এখানে গ্রামের পাশাপাশি শহরের জীবনযাপনকে তুলে ধরা হবে। প্রেমের ছবি হলেও কিছু রাজনৈতিক বিষয় গল্পের ধারাবাহিকতায় উঠে এসেছে বলে জানান এই নায়িকা। ‘পরাণ’র মতো এই ছবিটি নিয়েও বেশ আশাবাদী মিম। ‘ইত্তেফাক’ দিয়ে প্রথমবারের মতো জুটি বেঁধেছেন সিয়াম ও মিম। সহশিল্পী হিসেবে সিয়ামের প্রশংসা ঝরলো মিমের কণ্ঠে। ‘অনেক ভালো লাগছে সিয়ামের সঙ্গে কাজ করে। সহকর্মী হিসেবে ও অসাধারণ। আশাবাদী আমাদের কেমিস্ট্রি পছন্দ করবেন দর্শক।’ আলাপে আলাপে মিম জানান, নতুন বছরে বেশ গুছিয়ে কাজের পরিকল্পনা করেছেন। এবারও সিনেমাতেই ফোকাস করবেন। তার ভাষ্য, ‘ভালো গল্প ও চরিত্র এবং ভালো মানের পরিচালক পেলে তবেই কাজ করবো। সংখ্যায় কম হলেও ভালো মানের চলচ্চিত্র চাই। মানুষ মনে রাখবে এমন চলচ্চিত্র চাই। দিনশেষে কাজটাই তো একজন শিল্পীকে বাঁচিয়ে রাখে।’ অভিনয়ের বাইরে বর্তমানে বেশ কিছু স্টেজ শো নিয়েও ব্যস্ততা রয়েছে মিমের। অবসরে সময় কাটে পরিবারের সঙ্গে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বেশ সরব মিম। অনেকেই অভিযোগ করেন ফ্রিতে ফেসবুক-ইন্সটাগ্রামে তারকাদের দেখার সুযোগ পায় সাধারণ মানুষ। এজন্য তাদের প্রতি আবেদন বা আকর্ষণটা কমে যায়। টাকা দিয়ে টিকিট কেটে হলে গিয়ে সেইসব তারকাদের সিনেমা দেখার ইচ্ছে হয় না দর্শকের। মিম সেই অভিযোগের বিপক্ষে। তার মতে, ‘এটা একটা পুরনো ধারণা মনে হয় আমার কাছে। এখন ২০২০ সাল চলছে। এ ধরনের ধারণার কোনো ভিত্তি আছে বলে মনে হয় না। বিশ্বজুড়েই তারকারা নানান সোশাল সাইট ব্যবহার করছেন। সেখানে ছবি দিচ্ছেন, নিজেদের আপডেট রাখছেন। সেগুলো থেকেও কিন্তু ভক্ত তৈরি হচ্ছে। আমাদের ক্ষেত্রে তাহলে সমস্যা কী। বরং একজন তারকার কাছাকাছি থাকতে পারার ভালো লাগা থেকে দর্শকের মধ্যে ওই তারকার কাজ দেখার আগ্রহ জন্মায়। ভালো কাজ হলে সেটা মানুষকে নাড়া দেবেই।’ মিম জানান, মোবাইল ফটোগ্রাফি করতে অনেক পছন্দ করেন তিনি। সুযোগ পেলেই সেলফি তুলেন। সেইসব ছবি মজার মজার সব ক্যাপশানে ফেসবুকে পোস্টও করেন। ছবি তোলা মিমের শখ, তবে সেটা মোবাইলেই। এলএ/পিআর


ঢালিউড এর সর্বশেষ খবর

ঢালিউড - এর সব খবর