ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬

যেভাবে চেহারা পাল্টে ফেলেছিলেন দীপিকা ভিডিওসহ

২০২০ জানুয়ারি ১৯ ০১:২৮:১৬
যেভাবে চেহারা পাল্টে ফেলেছিলেন দীপিকা ভিডিওসহ

কখনো কোটিপতির আদুরে কন্যা, কখনো বা সংগ্রামী, পরিশ্রমী নারী—চরিত্রের প্রয়োজনে নিজেকে ভেঙেচুড়ে নতুন করে হাজির হন অভিনেত্রী। পর্দায় নিজেকে গ্রহণযোগ্য করে হাজির করতে প্রয়োজনীয় সব কিছুই করেন তাঁরা। ক্যারিয়ারকে স্মরণীয় করে রাখতে ভিন্নধারার চরিত্রের প্রতি জোর দেন বিশেষজ্ঞরা। আর অভিনয়জীবনের

শুরু থেকেই তাঁদের সেই কথাকে আপ্তবাক্য হিসেবে নিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। আর এবার অ্যাসিড আক্রান্ত নারীর ভূমিকায় অভিনয় করতে গিয়ে নিজের চেহারা পাল্টে ফেলেছেন দীপিকা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদনে জানা যায়, সম্প্রতি মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘ছপাক’-এ অভিনয় করেছেন দীপিকা। এতে অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দীপিকা। ছবিতে তাঁর অভিনীত চরিত্রের নাম মালতী।

তবে এই পথচলা মোটেই সহজ ছিল না দীপিকার। প্রতিবেদনে বলা হয়, অ্যাসিড আক্রান্ত নারীর চেহারা পেতে বেশ কষ্ট করতে হয়েছে দীপিকাকে। এই যাত্রায় তিনি আশ্রয় নিয়েছেন প্রস্থেটিক মেকআপের। এটি করে দিয়েছেন খ্যাতনামা মেকআপ শিল্পী ক্লোভার উটন। তিনি হাতের জাদুতে বদলে দিয়েছেন দীপিকার চেহারা। অবশ্য এ জন্য বেশ কয়েকটি ধাপ পার হতে হয়েছে দীপিকাকে।

পরিচালক মেঘনা গুলজারের জানান, তিনি কখনোই চাননি যে দীপিকাকে দেখতে লক্ষ্মী আগরওয়ালের মতো লাগুক। তাঁর ভাষায়, ‘আমি সব সময় চেয়েছি (স্রষ্টা না করুন) দীপিকার সঙ্গে যদি এমন ঘটনা ঘটত, তাহলে তাঁকে ঠিক যেমন লাগত, তেমনই লাগুক তাঁকে।’

প্রস্থেটিক মেকআপের জন্য প্রথমে ক্লোভারকে ‘প্লাস্টার অব প্যারিস’ দিয়ে দীপিকার মুখের মাপ নেওয়া হয়েছে। দীপিকার পক্ষে এভাবে প্লাস্টার অব প্যারিস দিয়ে মুখ, চোখ ঢেকে বেশিক্ষণ থাকা মোটেও সহজ ছিল না। এখানেই শেষ নয়, প্রস্থেটিক মেকআপের জন্য এর পরও বেশ কিছু ধাপ পার হতে হয়েছে দিপ্পিকে। অবশ্য সব ধাপ শেষ হওয়ার পর দীপিকার লুকের প্রশংসা করেছেন সবাই।

গত ১০ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছে দীপিকা পাড়ুকোন অভিনীত, মেঘনা গুলজার পরিচালিত ছবি ‘ছপাক’। দিল্লির মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনের নানা ঘটনা সেলুলয়েডে উঠে এসেছে।


বলিউড এর সর্বশেষ খবর

বলিউড - এর সব খবর