ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৫ মাঘ ১৪২৬

বিপিএল থেকে বাদ পরে যাকে দোষালেন অধিনায়ক মাশরাফি

২০২০ জানুয়ারি ১৪ ১৫:৩৪:৪৫
বিপিএল থেকে বাদ পরে যাকে দোষালেন অধিনায়ক মাশরাফি

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের এলিমিনেটর ম্যাচে ঢাকা প্লান্ট ওদিকে ৭ উইকেটে হারিয়ে কোয়ালিফায়ার নিশ্চিত করেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ঢাকা প্লাটুনের দেওয়া ১৪৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ১৭.৪ ওভারে তিন উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

টসে জিতে ঢাকা প্লাটুনকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান চট্টগ্রাম কাপ্তান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান সংগ্রহ করতে সমর্থ্য হয় ঢাকার ব্যাটসম্যানরা। মাত্র ৬০ রানে ভেতরেই ৬ জন ব্যাটসম্যানকে হারায় ঢাকা প্লাটুন। পরে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান শাদাব খানের একক নৈপুণ্যে ১৪৪ রানের পুঁজি আসে।

শুরুতে টসে হেরে ব্যাটিং করতে নামেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও মুমিনুল হক। তবে একেবারেই সুবিধা করতে পারেননি তামিম। ১০ বলে ৩ রান করে রুবেল হোসেনের বলে আউট হন এই ওপেনার। এরপর দলীয় পঞ্চম ও ষষ্ঠ ওভারে বিজয় ও লুইস রিস শূন্য হাতে ফিরলে ২৮ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে ঢাকা।

খানিকবাদেই চট্টগ্রামের পেসার রায়াদ এমিরিটের জোড়া আঘাতে ৭ রান করে ইনফর্ম ব্যাটসম্যান মেহেদী হাসান ও জাকের আলী শূন্য রানে সাজঘরে ফিরলে বিপদ আরো ঘনীভূত হয়। ফলে ৯ ওভারে ৪৩ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে ঢাকা প্লাটুন।

তবে ঘনঘন উইকেট পতনের মাঝেও ধরে খেলতে থাকেন মুমিনুল হক। পরে চট্টগ্রামের জন্য কাটা হয়ে থাকা মুমিনুলকেও তুলে নেন পেসার এমিরট। সাজঘরে ফেরার আগে ৩১ বলে সমান ৩১ রান করেন মুমিনুল।

এরপর নিজের দ্বিতীয় শিকার বানিয়ে ৩ রানে থাকা আসিফ আলীকে ফেরান নাসুম আহমেদ। শেষদিকে শাদাব খান ও থিসারার পেরারার ৪৪ রানের পার্টনারশীপের উপর ভর করে নির্ধারিতে ওভার শেষে ১৪৪ রানের সংগ্রহ পয়ি ঢাকা। আউট হওয়ার আগে পেরারা ১৩ বলে ২৫ করেন। ঢাকার আজকের ম্যাচের ত্রাতা শাদাব ৪১ বলে ৬৪ রান তোলেন।

চট্টগ্রামরে হয়ে রায়াদ এমরিট ৩, নাসুম আহমেদ ও রুবেল হোসেন দুইটি করে উইকেট নেন।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিপিএলে হেরে যাবার আক্ষেপ নিয়ে বলেন,”তবে ঘনঘন উইকেট পতনটা না হলেই আমরা একটা লড়াকু স্কোর করতে পারতাম।শেষটা ভালই ছিল কিন্তু শুরুতে ব্যাটসম্যানদের আরেকটু সতর্ক হওয়া উচিত ছিল।”


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর