ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৫ মাঘ ১৪২৬

প্রতিদিন ৫টি খাবার খেলে যৌবন থাকবে অটুট

২০২০ জানুয়ারি ০৩ ১০:১৬:২৬
প্রতিদিন ৫টি খাবার খেলে যৌবন থাকবে অটুট

জীবনে উদ্দীপনা আনতে ভা’য়াগ্রায় সাহায্য নেন অনেকেই। বর্তমান জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাসের কারণে যৌ’নজীবনে শিথিলতা আসছে। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় যদি থাকে এমন কিছু খাবার যার মধ্যে রয়েছে জিনসিনোসাইড; তবে আপনার ফিরে আসতে পারে যৌ’নজীবনের উদ্দীপনা।যে ৫ খাবার ‘ভেষজ ভা’য়াগ্রা

হিং: ন্যাচরাল রেমেডিস ফর গুড হেলথ’বইতে লিখেছেন, যদি টানা ৪০ দিন ধরে রোজ ০.০৬ গ্রাম হিং খাওয়া যায় তাহলে পেতে পারেন সুস্থ যৌ’নজীবন।রান্নায় মেশাতে পারেন হিং।প্রতিদিন সকালে ১ গ্লাস জলে এক চিমটি হিং ফেলে খেলেও পাবেন উপকারিতা।

সজনে ডাঁটা: আমেরিকান জার্নাল অফ নিউরোসায়েন্স জানাচ্ছে পুরুষদের লিঙ্গ উত্থানের সমস্যা বা উদ্দীপনার ঘাটতিতে খুব ভাল কাজ করে সজনে ডাঁটা। প্রতিদিনের ডায়েট রাখতে পারেন সজনে ডাঁটা। অথবা এক গ্লাস দুধে সজনে ফুল, নুন ও গোলম’রিচ মিশিয়ে প্রতিদিন খেলেও উপকার পাবেন।

জিরা: জিরার মধ্যে থাকা পটাশিয়াম ও জিঙ্ক যৌ’নাঙ্গে র’ক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ফলে বাড়ে যৌ’ন উদ্দীপনা।জানাচ্ছে জার্নাল অফ দ্য সায়েন্স অফ ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার। প্রতিদিন এক কাপ গরম চায়ে জিরা ফেলে খান।আদা: বিভিন্ন ক্ষেত্রে আদার উপকারিতার কথা আমাদের সকলেরই

জানা। সুস্থ যৌ’নজীবন বজায় রাখতেও অ’পরিহার্য্য হতে পারে আদা।আদার মধ্যে থাকা ভোলাটাইল অয়েল স্নায়ুর উত্তে’জনা বাড়ায় ও র’ক্ত সঞ্চালনের মাত্রা ঠিক রাখে। প্রতিদিন একটি সেদ্ধ ডিমের সঙ্গে আদার রস ও মধু খেতে পারেন।রসুন: আফ্রিকান হেলথ সায়েন্সস জানাচ্ছে আদার

মতোই উপকারী রসুন। র’ক্তে শর্করা ও কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে রসুন।ফলে প্রতিদিনের ডায়েটে যদি রসুন থাকে তবে কমতে পারে লি,ঙ্গ উত্থানের সমস্যা।

বর্তমানে অনেক ছেলেই নিজের বডি ফিটনেস ঠিক রাখতে ও নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলতে নিয়মিত জিমে ঘাম ঝরান। শরীরে যেন বাড়তি মেদ না জমে সে জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করেন তারা। কিন্তু সমীক্ষা বলছে ভিন্ন কথা। একটি সমীক্ষায় দেখা যায় শরীরে অল্প মেদওয়ালা অর্থাৎ কিছুটা মোটা ছেলেদেরই পছন্দ করে মেয়েরা। ইউনিভার্সিটি অব মিসৌরির একটি সমীক্ষা অনুযায়ী, স’ম্পর্ক স্থাপনের ক্ষেত্রে অল্প মেদ আছে

এমন পুরুষদেরই বেশি বিশ্বা’সযোগ্য মনে করেন বেশিরভাগ নারী। হালকা গোলগাল ও সাধারণ চেহারার মধ্যেই নিরাপত্তা খুঁজে পান তারা। গবেষকদের মতে, বেশি সুঠাম দেহের পুরুষ সঙ্গীকে নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভুগতে পারেন কেউ কেউ। সে কারণেই একটু গোলগাল চেহারাই

পছন্দ তাদের। সমীক্ষায় অংশ নেয়া নারীদের দাবি, এটা খাব না, সেটা খাব না, মোটা হয়ে যাব… এই ধরনের কথা বলা পুরুষের থেকে অল্প মোটা পুরুষই ভালো।তবে বিজ্ঞানীরা এর পেছনের কারণও খুঁজে পেয়েছেন।

তাদের দাবি, অল্প স্থুল পুরুষদের কাজের প্রতি বেশি মনযোগী বলে মনে করেন নারীরা। পরিবারকেও বেশি সময় দেন বলে মনে করা হয়। সেক্ষেত্রে সামাজিকভাবে বেশি নিরাপদ বোধ করেন তারা। এছাড়া
নিজের বডি ইমেজ নিয়ে চিন্তিত নারীরা

একটু ভুঁড়িওয়ালা পুরুষই পছন্দ করেন। এর একটা বড় কারণ মোটা পুরুষদের পাশে বেশি রোগা লাগে নারীদের। আর সে কারণেই পুরুষরা একটু মেদ হলেই তারা বেশি আত্মবিশ্বা’সী মনে করেন।


লাইফ স্টাইল এর সর্বশেষ খবর

লাইফ স্টাইল - এর সব খবর