ঢাকা, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পিয়ানো, গিটার আর ড্রামের অপূর্ব মেলবন্ধন

২০১৯ ডিসেম্বর ০২ ১৮:৫৫:০৩
পিয়ানো, গিটার আর ড্রামের অপূর্ব মেলবন্ধন

জ্যাজ শুনতে দর্শকসারির প্রায় সব আসন পূর্ণ। ভেতরে ঢুকে দেখা গেল, অনেক শ্রোতা-দর্শক দাঁড়িয়েই গান শুনছেন আর দুলছেন। মঞ্চে তখন জ্যামিং চলছে। সেখানে পিয়ানোর বাজনার সঙ্গে বেস গিটার আর ড্রামের দারুণ এক মেলবন্ধন। সুরেলা শব্দধ্বনির সমন্বয়ে

পশ্চিমা জ্যাজ মিউজিকের এমন মনমাতানো পরিবেশনা মুগ্ধ হয়ে শুনছেন দর্শক। গতকাল রোববার সন্ধ্যার দৃশ্য এটি। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির পরীক্ষণ থিয়েটার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হলো নিউইয়র্ক ও বার্লিনকেন্দ্রিক জনপ্রিয় ব্যান্ড লিসবেথের জ্যাজ কনসার্ট। ভিনদেশি শিল্পীদের এ আসরের পুরো সময়জুড়ে উৎসুক দর্শক-শ্রোতার ভিড়ে পরীক্ষণ থিয়েটার মিলনায়তন ছিল কানায় কানায় পূর্ণ।

মূলত যন্ত্রসঙ্গীতে সাজানো আয়োজন। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সহযোগিতা জার্মান সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গ্যেটে ইনস্টিটিউটের আয়োজনে পরিবেশনা পর্ব শুরুর আগে সংক্ষিপ্ত কথনে অংশ নেন গ্যেটে ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের পরিচালক কিরস্টেন হাকেনব্রোক। সংক্ষিপ্ত কথনের পর শুরু হয় সংগীত পর্ব। ৩০০ শ্রোতার কাছে পিয়ানো, গিটার ও ড্রামের সমন্বিত কম্পোজিশন যেন হয়ে ওঠে কোনো শিল্পীর সুনিপুণ ক্যানভাস।

৭০ মিনিটের পরিবেশনায় মেলোডিক লাইনের সঙ্গে ক্লিয়ার ফর্ম উচাটন করে তোলে শ্রোতার মনন। মার্ক মুয়েলবাউরের দুর্দান্ত বেসের সঙ্গে ম্যানুয়েল স্মিডেলের পিয়ানোর বাজনা আর মরিৎজ বাউমগার্টনারের দ্রুতগতির ড্রামিং সৃষ্টি করে ছন্দময় আবহ। চার সদস্যের লিসবেথ চৌপদী এদিন পরিণত হয়েছিল তিন সদস্যের লিসবেথ ত্রিরত্নে। অসুস্থতার কারণে মঞ্চে ছিলেন না স্যাক্সোফোন বাজানো দলটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শার্লোটি গ্রেভ।

এদিনের পরিবেশনার মধ্যে ছিল ‘অরিজিনাল সোর্স’, ‘অল ওর নাথিং অ্যাট অল’, ‘শোরালে’, ‘অফ মাইনর’, ‘প্রিলুডে টু আ কিস’, ‘শার্লি’, ‘ক্রিকেটস’ ইত্যাদি। অংশ নিয়েছে পিয়ানোতে ম্যানুয়েল স্মিডেল, ড্রামে মরিৎজ বাউমগার্টনার এবং বেসে ইগোর স্প্যালাতিতাদের। নিয়মিত বেসিস্ট মার্ক মুয়েলবাউয়ারের পরিবর্তে ইতালি থেকে যোগ দেন দেশটির জনপ্রিয় বেসিস্ট ইগোর স্প্যালাতি। স্যাক্সোফোনবাদক শার্লোটি গ্রেভের নেতৃত্বে ২০০৯ সালে যাত্রা শুরু করে বার্লিনভিত্তিক লিসবেথ কোয়ার্টেট। মূলত সমসাময়িক জ্যাজ সংগীত পরিবেশন করে দলটি।

লিসবেথের দ্বিতীয় সিডি ‘কনস্ট্যান্ট ট্রাভেলার্স’-এর জন্য ২০১২ সালে নবাগত সংগীত দল হিসেবে জার্মানির সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার ‘জ্যাজ-ইকো’ পেয়েছে। এ ছাড়া শারলোটি গ্রেভ ২০১০ সালে ‘জ্যাজ বাল্টিকা’ প্রতিভা পুরস্কার পেয়েছেন। দলনেতা শারলোটি গ্রেভ তাঁদের সংগীত কম্পোজিশনকে একজন শিল্পীর ছবি আঁকার সঙ্গে তুলনা করেছেন। একটি শিল্পকর্ম যেভাবে একটি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে পরিণত হয়, তেমনি তাদের সংগীতে মেলোডিক লাইন, ক্লিয়ার ফর্ম এবং আধুনিক উপস্থাপনার মধ্য দিয়ে একটি শক্তিশালী সংগীতে রূপান্তর হয়।

নিউইয়র্ক ও বার্লিনভিত্তিক দল লিসবেথ ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জ্যাজ সংগীত পরিবেশন করেছে। স্যাক্সোফোনবাদক শার্লোটি গ্রেভের নেতৃত্বাধীন লিসবেথ কোয়ার্টেট বৈচিত্র্যপূর্ণ জ্যাজ সংগীতের সুবাদে ইউরোপ ও আমেরিকার বিভিন্ন দেশে দারুণ সমাদৃত। ইতিমধ্যে দলটি প্যালাটিয়া জ্যাজ, জ্যাজ বাল্টিকা এবং ইয়ং জেনারেশন জ্যাজ মিটিং বার্লিনের মতো বিভিন্ন বিখ্যাত উৎসবে পারফর্ম করেছে। গ্যেটে ইনস্টিটিউটের আমন্ত্রণে ভারতের সাতটি শহর এবং শ্রীলঙ্কার কলম্বো শহরে জ্যাজ সংগীত পরিবেশন শেষে ঢাকায় এসেছে দলটি। তাদের পরবর্তী কনসার্ট হবে পাকিস্তানের করাচি শহরে।


সঙ্গীত এর সর্বশেষ খবর

সঙ্গীত - এর সব খবর