ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দুই বাংলার সিনেমা এক হলে বাহুবলীও বানানো যাবে : প্রসেনজিৎ

২০১৯ অক্টোবর ১৯ ১৮:১৮:৩০
দুই বাংলার সিনেমা এক হলে বাহুবলীও বানানো যাবে : প্রসেনজিৎ

প্রায়ই পশ্চিম বাংলার শিল্পীরা পূর্ব বাংলায় আসেন। কখনো গানের টানে, কখনো বা অভিনয় বা অন্য কোনো শিল্পের হাত ধরেই। তারা এখানে অতিথি হিসেবে হাজির হন আর পূর্ব বাংলাকে নিজেদের আরেকটি বাড়ি বলে দাবি করেন।

কেউ পূর্ব পুরুষদের ভিটেমাটি বাংলাদেশ নিয়ে আবেগঘন স্মৃতিচারণও করেন। একইভাবে এখানকার শিল্পীরাও পশ্চিমবঙ্গের যে কোনো রাজ্যে গিয়ে সেখান বাঙালিদের আতিথ্যে মুগ্ধ হন। দীর্ঘদিন ধরেই দুই বাংলার শিল্প ও শিল্পীদের এই মেলামেশা।

এবার দারুণ এক উপলক্ষ তৈরি হয়েছে দুই বাংলার শিল্পীদের সম্পর্ককে আরও বেগবান করতে। অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ভারত বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড (বিবিএফএ)। আগামী সোমবার (২১ অক্টোবর) ‘ভারত বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠানের প্রথম আসর বসবে বসুন্ধরার ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটির নবরাত্রি হল - ৪ এ।

এই অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে ফিল্ম ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া। বাংলাদেশ থেকে সহ আয়োজক হিসেবে আছে বসুন্ধরা গ্রুপ। টাইটেল স্পন্সর হিসেবে আছে টিএম ফিল্মস।

গত শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) এ উপলক্ষে বিস্তারিত জানাতে কলকাতার একটি পাঁচতারকা হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে আয়োজক কর্তৃপক্ষ। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ থেকে উপস্থিত ছিলেন আলমগীর এবং কলকাতা থেকে উপস্থিত ছিলেন প্রসেনজিৎ, জিৎ, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, তনুশ্রী চক্রবর্তী।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ফিল্ম ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া’র সাধারণ সম্পাদক ফিরদাউসুল হাসান। ভারতীয় অংশের জুরি বোর্ডের সদস্য অরোরা ফিল্মসের কর্ণধার অঞ্জন বসু।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যে আলমাগীর বলেন, ‘এই অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানটি নিয়ে যখন আমার সাথে কথা বলা হয়, তখন এই অ্যাওয়ার্ডের নাম ছিল ‘ভারত বাংলা ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড’। আমি বললাম ‘বাংলা’র সাথে ‘দেশ’টা নিয়ে নেন। তারপর থেকে এটির নামকরণ করা হয় ‘ভারত বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড’।’

আলমগীর জানান, এবার ভারত বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড (বিবিএফ) বাংলাদেশে হলেও আগামী বছর লন্ডনে হবে। সিঙ্গাপুরও প্রস্তাব দিচ্ছে এই আয়োজনটির জন্য।

সম্মেলনে প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জি বলেন, ‘২১ অক্টোবর রাতটি যেন ঐতিহাসিক দিন হয় সেটাই প্রত্যাশা আমার। দুই বাংলাতেই সিনেমার মন্দ সময় যাচ্ছে। তাই আমি মনে করি এক হয়ে আমাদের সিনেমা হল বাঁচাতে হবে। দুই বাংলা যেদিন এক হয়ে যাবে সেদিন আমরা ‘বাহুবলি’ও বানাতে পারবো।’

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন নায়ক জিৎসহ অন্যান্য অতিথিরা। সংবাদ সম্মেলনে বিবিএফএ অ্যাওয়ার্ডের ট্রফি উন্মোচন করা হয়।

এদিকে অনুষ্ঠানে অংশ নিতে এরইমধ্যে পশ্চিমবঙ্গের শিল্পীরা বাংলাদেশে আসতে শুরু করেছেন। আগামীকাল ঢাকায় পা রাখবেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক। তাকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হবে।


টালিউড এর সর্বশেষ খবর

টালিউড - এর সব খবর