ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

চাহিদা আছে, তবু সিনেমায় নেই

২০১৯ অক্টোবর ১৮ ১১:০৮:২৪
চাহিদা আছে, তবু সিনেমায় নেই

সিনেমা হল কমছেই। এর অন্যতম একটি কারণ, সিনেমা তৈরি না হওয়া। শাকিব খানের সিনেমা ছাড়া অন্য সিনেমাতে খুব একটা ভরসা পান না হলমালিকেরা। এদিকে ছোট পর্দার বেশ কয়েকজন অভিনয়শিল্পীর সিনেমাতে চাহিদা থাকলেও এখনো চুপ তাঁরা। কেন? সে উত্তর খোঁজা হলো এবার।

ছোট পর্দায় জনপ্রিয় মুখ অপূর্ব, আফরান নিশো, মেহ্জাবীন চৌধুরী ও তানজিন তিশা। তাঁদের ঘিরে বড় পর্দার প্রযোজক-পরিচালকদের আগ্রহ অনেকদিন ধরে। বড় পর্দায় তাঁদেরকে দেখার আগ্রহের কমতি নেই দর্শকদেরও। নিয়মিত কাজের প্রস্তাব পাচ্ছেন তাঁরা। কাজের ইচ্ছা তাঁদেরও, কিন্তু সিনেমাতে কাজ না করার নানা কারণ তুলে ধরলেন এই শিল্পী চতুষ্টয়।

২০১১ সালে গ্যাংস্টার রিটার্নস নামে প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন অপূর্ব। শেষ ছবিও এটি। এ পর্যন্ত পাঁচ থেকে ছয়টি ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন, কিন্তু একটিতেও রাজি হননি তিনি। অপূর্ব বলেন, ‘একটি সিনেমার গল্প শুনে যদি কাজের লোভই তৈরি না হয়, তাহলে সেখানে কীভাবে কাজ করি! অনেক সময় গল্প শুনতে বসে টের পেয়েছি অন্য ছবির কপি। যখন ছোট পর্দা থেকে বড় পর্দায় কাজ করব, নিশ্চয়ই আমাকে গুছিয়েই কাজটি করতে হবে। সিনেমা একটি টিমওয়ার্ক। পুরো বিষয়টি ঠিকঠাক না হলে কাজ করা উচিত না।’

আফরান নিশোর কাছেও প্রস্তাব এসেছে বারকয়েক। তিনিও ফিরিয়ে দিয়েছেন। নিশো বললেন, ‘সিনেমায় পেশাদারত্ব বজায় রেখে কাজ করতে চাই, শখের বসে নয়। একটা করলাম, মুক্তির পর কী হয়, তা দেখে পরবর্তী ছবি করব, এমনটি নয়। আমি ছোট পর্দায় ভালো আছি। এখন বড় পর্দায় গিয়ে বিচ্ছিন্নভাবে একটি–দুইটি কাজ করে ছন্দপতন করতে চাই না। তা ছাড়া সিনেমাতে অবশ্যই পারিশ্রমিক ভালো হতে হবে। তা নিয়েও ঝামেলা আছে।’

নিশো আরও বলেন, ‘এখন বছরে ৩০ থেকে ৩৫টি ছবি তৈরি হয়। ভালো ছবি আসে হাতেগোনা ৪ থেকে ৫টি। এখন সিনেমাতে পাঁচজন নায়ক আছেন, সবাই ভালো কাজ করতে চাইলে একটি করে ভাগে পড়বে। বছরে এক-দুইটি ছবি করে একজন নায়কের চলবে না।’

২০০৯ সালে লাক্স চ্যালেন আই সুপার স্টার হওয়ার পর থেকেই সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়ে আসছেন মেহ্জাবীন চৌধুরী। চলচ্চিত্রের প্রথম সারির অভিনেতাদের বিপরীতে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েও রাজি হননি তিনি। মেহ্জাবীন বলেন, ‘অনেক বাণিজ্যিক ঘরানার ছবিতে কাজের প্রস্তাব এসেছে। এ ধরনের ছবিতে নাচ–গানে অনেকটা ফোকাস থাকে। এ ধরনের কাজ করার ইচ্ছা নেই আমার। কিছু গল্প পেয়েছি, প্রায় সব কটিই নায়ককেন্দ্রিক। এসব ছবিতে অভিনয় করতে চাই না। ভালো গল্প, ভালো পরিচালক, ভালো চিত্রগ্রাহক ও ভালো সহশিল্পীর সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা। সেখানে অভিনয়ের সুযোগ থাকে।’

চার বছর আগেই সিনেমার প্রস্তাব পেয়েছেন তানজিন তিশা। বিজ্ঞাপন, ফটোশুটের কাজ করছেন। তখনো ছোট পর্দায় নামেননি। পরবর্তী সময়ে নাটকে জনপ্রিয় হয়ে পড়েন এই অভিনেত্রী। এখন নিয়মিতই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পাচ্ছেন। তিশা বলেন, ‘ছোট পর্দায় দর্শকেরা আমাকে পছন্দ করেছেন। আমার কাজকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা। চলচ্চিত্রেও আমাকে নিয়ে ভক্তদের আগ্রহ আছে, কিন্তু আমি ভক্তদের ঠকাতে চাই না। দর্শকেরা এখন গল্প বোঝেন। সিনেমায় তাঁরা একটি ভালো গল্প দেখতে চান। যেসব প্রস্তাব পেয়েছি, সেখানে ভালো গল্প পাইনি। তাই এখনই সিনেমা করা হচ্ছে না। তবে বড় পর্দায় কাজ করতে দারুণভাবে আগ্রহী আমি। এখন শুধু অপেক্ষায় আছি।’


নাটক এর সর্বশেষ খবর

নাটক - এর সব খবর