ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬

একের পর এক ‘মিথ্যা’ বলার কারন ফাঁস করলেন অপু বিশ্বাস

২০১৯ অক্টোবর ১০ ১৭:৪৯:১৯
একের পর এক ‘মিথ্যা’ বলার কারন ফাঁস করলেন অপু বিশ্বাস

শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ের গুঞ্জন কিংবা ধর্ম পালন- একেক সময় একেক কথা বলেছেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। বিভিন্ন সময় তার বলা কথা থেকে স্পষ্ট, মিথ্যে বলেছিলেন তিনি। দেরীতে হলেও বিষয়টি স্বীকার করে নিলেন জনপ্রিয় এই চিত্রনায়িকা। কেন মিথ্যা বলেছিলেন, দিয়েছেন সেই ব্যাখ্যাও।

সম্প্রতি চ্যানেল আইয়ের একটি অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে অপু বিশ্বাস সব কিছুই স্বীকার করেছেন। শাহরিয়ার নাজিম জয়ের উপস্থাপনায় ‘৩০০ সেকেন্ড’ নামের এই অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেছেন সেহাঙ্গল বিপ্লব।

অনুষ্ঠানে উপস্থাপকের ধর্ম বিষয়ক প্রশ্নে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আসলে সত্যি কথা বলতে গেলে কি, আমি কিন্তু পুরনো ধর্ম নিয়েই ছিলাম। আমি ক্যামেরার সামনে অনেক মিথ্যে বলেছি, কিছু কিছু জিনিসের কারণে। যেমন- প্রথম দিকের মিথ্যেটা ছিল, নিজের ক্যারিয়ার ও ওই সময়ে সে স্বামী (শাকিব খান) ছিল। তাকে সাপোর্ট করাটা আমার দায়িত্বের মধ্যে ছিল।

যদিও আমি বলতাম, কি শাকিব কবে বিয়ে করছো? কিন্তু রানিং আমরা স্বামী-স্ত্রী। এমন কি অনেক প্রোগ্রাম হয়তো রিভিউ করে দেখতে পারে সবাই, যেখানে শাকিবকে আমি প্রশ্ন করতাম, শাকিবও আমাকে উল্টো প্রশ্ন করতো যে, আমাদের বিয়ে কখন, কি হচ্ছে? আমি ওর বিয়ের বরণডালা সাজাবো। রাতে গিয়ে আবার ধরেন তাকে রান্না করে খাওয়াচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘যখন সবাই জানলো আমি বিবাহিত। মুসলিম ধর্মের একজন ছেলেকে বিয়ে করার কারণে আমি মুসলমান। কিন্তু আমি বিয়ের পর থেকেই হিন্দু। কারণ হিন্দু থেকে মুসলিম হওয়ার যে প্রক্রিয়াধীন কাজগুলো হয়, সেগুলোর একটাও তারা (শাকিব খানের পরিবার) করেননি।

প্রয়োজনে দর্শককে মিথ্যে বলেছেন মাঝে-এই প্রসঙ্গে অপু বলেন, ‘সেটা আমার ছেলের জন্য। কেন মিথ্যে বলেছি, যেহেতু আমার বাচ্চা হয়ে গেছে, শাকিবকে আমি বিয়ে করেছি। সে একজন মুসলিম। সেই জায়গা থেকে ভেবেছি যে সংসারটা ঠিকঠাক থাকুক। যেমন আমি বিয়েটাকে আড়াল করেছিলাম। কিন্তু সময়ের সাথে সাথে আমি বিয়েটা প্রকাশ করেছিলাম।’

অনুষ্ঠানে অপু বিশ্বাস আরও বলেন, ‘বেলা শেষে একটা সময় আমি ভুলে গেছি যে, আমিও মানুষ। আমাকে মরতে হবে। আমি যদি মারা যাই, তখন আপনারা আমাকে কি করবেন, কবর দেবে না আমাকে আগুনে পোড়াবেন। এটা কিন্তু কনফিউজড হয়ে যাবে। কারণ আমার সাথে তো শাকিব খানের সংসারটা নেই। তো আমাকে তো আমার সত্যটা এখন বলতে হবে। আমি যখন বাচ্চা পেটে নিয়েও ঘুরেছি, আপনারা কেউ জানতেন না। সবাই বলতেন অপু উধাও। আমার রানিং কাজ ফেলে অপু চলে গেছে। কিন্তু একটা সময়ের ব্যবধানে জানতে পারলেন, ও অপু উধাও ছিল না। অপুর বেবি হয়েছে তাই উধাও।

ছেলে আব্রাহাম খান জয়ের ধর্ম প্রসঙ্গ অপু বলেন, ‘আমার ছেলে তার ধর্ম মুসলিম। যেহেতু তার ধর্ম ও জন্মটা মুসলিম। এটা ভবিষ্যৎ বলে দেবে, আমার ছেলে আদৌ কোথায়… তাকে আমি নিয়ে আসবো।’

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে শাকিব খানকে বিয়ে করেন অপু বিশ্বাস। মিডিয়া পাড়ায় তাদের বিয়ে নিয়ে নানা গুঞ্জন থাকলেও বিষয়টি গোপন রেখেছিলেন তারা। তবে ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল একমাত্র সন্তান জয়কে নিয়ে একটি টিভি চ্যানেলের লাইভে এসে বিয়ের খবর প্রকাশ করেন অপু বিশ্বাস। বিয়ের খবর প্রকাশের কয়েক মাস পর অপুর বিবাহ বিচ্ছেদ করেন শাকিব খান।


ঢালিউড এর সর্বশেষ খবর

ঢালিউড - এর সব খবর