ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬

প্রথম সপ্তাহেই ১৯১ কোটি রুপি

২০১৯ অক্টোবর ১০ ১৫:০১:১৩
প্রথম সপ্তাহেই ১৯১ কোটি রুপি

তেলেগু ছবির মেগাস্টার চিরঞ্জীবী যে এখনো কতটা জনপ্রিয় আবারও প্রমাণ করলেন ‘সাইরা নরসিংহ রেড্ডি’ দিয়ে। ২ অক্টোবর মুক্তি পাওয়ার পর ‘বাহুবলী ২ ’-এর পরে দ্বিতীয় তেলেগু ছবি যা সবচেয়ে বেশি ব্যবসা করেছে মুক্তির প্রথম সপ্তাহেই। ছবিটি ব্যবসা করেছে ১৯১ কোটি রুপি।

চিরঞ্জীবী, অমিতাভ, নয়নতারা, তামান্না ভাটিয়া অভিনীত ছবিটি এক দেশপ্রেমিকের গল্প নিয়ে। ১৭০ মিনিটের সাইরা ছবিটি তামিল, তেলেগু, হিন্দি ও মালায়লাম চারটি ভাষায় মুক্তি পেয়েছে।

বিজনেস টুডের খবরে বলা হয়েছে, পূজার বাজারে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে চারটি বাংলা ছবির মধ্যেও দর্শক টানে দক্ষিণের ছবি ‘সাইরা’। ছবিটি কলকাতার মাল্টিপ্লেক্সগুলোতেও চলছে রমরমা। চিরঞ্জীবী অভিনীত ‘সাইরা নরসিংহ রেড্ডি’ ছবিটি প্রথম চার দিনে ব্যবসা করেছে ৬১ কোটি রুপিরও বেশি, যা আঞ্চলিক ছবির ক্ষেত্রে অনেক বড় কৃতিত্বের ব্যাপার। ‘বাহুবলী ২’-এর পরে, মুক্তির প্রথম সপ্তাহে ব্যবসার নিরিখে, এই ছবিই সবচেয়ে বেশি ব্যবসা করেছে।

ট্রেড অ্যানালিস্ট গিরিস জহর বলেন, অন্ধ্র প্রদেশে সাইরার প্রথম ৮ দিনে আয় ১২৪ কোটি রুপির বেশি। দক্ষিণের এক স্বাধীনতা যোদ্ধার ছবি হওয়ায় তালিমনাডুর চেন্নাই ও কেরালায় ভালো ব্যবসা করেছে ছবিটি। এই দুই রাজ্য আয় ৩২ কোটি ৭০ লাখ রুপি। আর কর্ণাটকে ২৩ কোটি রুপি ঘরে তুলেছে ছবিটি। এই ৮ দিনে ‘সাইরা’ দক্ষিণ বাদে পুরো ভারতে আয় করেছে ১৩ কোটি। ভারত বাদে সারা বিশ্বে ব্যবসা করেছে ১৯২ কোটি রুপি।

দক্ষিণের ছবি সাইরার সঙ্গে একই দিনে মুক্তি পেয়েছে হৃত্বিক রোশন ও টাইগার শ্রফের ‘ওয়ার’ ছবিটি। প্রথম আট দিনে ছবিটি ২০০ কোটির মাইলফলক পেরিয়েছে। এ ছাড়া ‘ওয়ার’ এবং বিশ্বব্যাপী মুক্তি পাওয়া ‘জোকার’–এর মতো দুটো ছবির সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে হয়েছে চিরঞ্জীবীর ‘সাইরা’কে। এত বিগ বাজেট ও আয়ের ছবির মধ্যে টিকে থাকার লড়াই করতে হচ্ছে ‘সাইরা নরসীমা রেড্ডীকে’।

চিরঞ্জীবীর ১৫১তম ছবি ‘সাইরা নরসীমা রেড্ডী’। ছবিতে আছেন অমিতাভ বচ্চন, নয়নতারা, তামান্না ভাটিয়া, বিজয় সেতুপতি, আনুশকা শেট্টি, জগপতি বাবু। ছবিটিকে ঢেলে সাজাতে কার্পণ্য করেননি নির্মাতারা। তা ছাড়া এটি একটি ঐতিহাসিক ছবি, সেটাও একটা বড় কারণ ছবির সাফল্যের। ওই অঞ্চলের ইতিহাসমতে, ষোড়শ শতাব্দীর এক অনামী জমিদার উইয়ালাওয়াড়া নরসিংহ রেড্ডি ব্রিটিশ শাসনের বিরুদ্ধে তলোয়ার হাতে গর্জে উঠেছিলেন ১৮৫৭ সালে সিপাহি বিদ্রোহের অনেক আগেই।

নরসিংহ রেড্ডির সেই ব্রিটিশবিরোধী সংগ্রাম ও দেশপ্রেম ছবির মূল গল্প। দক্ষিণের মহাতারকা চিরঞ্জীবী আর এমন একটি ঐতিহাসিক চরিত্রের কারণে দর্শকের উৎসাহ ছিল তুঙ্গে। এরপর অন্য দক্ষিণের ছবির মতোই ছবিতেও প্রাচুর্য ছড়ানো সেট, গ্রাফিক্সের জারিকুরি এবং তলোয়ার যুদ্ধ রয়েছে ভুরি ভুরি। তাই এ সপ্তাহে মুক্তিপ্রাপ্ত অন্যান্য দক্ষিণী ছবিকে পেছনে ফেলে অনেকটাই এগিয়ে গেছে ‘সাইরা নরসীমা রেড্ডি’। এমনকি কলকাতার মাল্টিপ্লেক্সগুলোতেও ভালোই ব্যবসা করছে এই দক্ষিণী ছবি।

১৮৪৭ সালে ভারতীয় বিপ্লবী নরসীমা রেড্ডিকে ফাঁসি দিয়েছিল ব্রিটিশ সরকার। তেলেগু ভাষায় দক্ষিণ ভারতের এই বিপ্লবীর বায়োপিকই হচ্ছে ‘সাইরা নরসীমা রেড্ডি’। সাইরার চরিত্রে দক্ষিণী সুপারস্টার চিরঞ্জীবী। দক্ষিণের তিনি ‘চিরু’ নামে পরিচিত। ছবিতে অতিথি চরিত্রে আছেন বলিউড ‘শাহেনশা’ অমিতাভ বচ্চন। ছবিতে বিগ বি আছেন চিরঞ্জীবীর গুরু হিসেবে। দক্ষিণী এই ছবি নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত সবাই।

সুরেন্দর রেড্ডি পরিচালিত সাইরা নরসীমা রেড্ডিতে আছে অনেক চমক। ছবিতে ঝাসির রানী লক্ষ্মী বাই চরিত্রে আছেন আনুশকা শেঠী। ‘বাহুবলী’র দেবসেনাই সাইরা নরসীমা রেড্ডিকে ছবিতে ইন্ট্রোডিউস করিয়ে দেবেন।

দেড় শ কোটি রুপি বাজেটের ‘সাইরা’ ছবিটি প্রযোজনা করেছেন দক্ষিণী অভিনেতা চিরঞ্জীবীর ছেলে রামচরণ তেজা।

ছবিটিকে অনেকেই একটু অতিরঞ্জিত বলেই মনে করছেন। তবে ছবিতে তামান্না ভাটিয়া চরিত্রটি অনেকটাই সারপ্রাইজ করেছে। বিজিএম ভিএফেক্স সিনেমাটোগ্রাফি এককথায় অসাধারণ। আরও বলা হচ্ছে, ক্লাইম্যাক্সের জন্য চিরুর অভিনয় তেলেগু সিনেমা অনেক দিন মনে রাখবে। অনেকে আবার বলছেন, ক্লাইমেক্সে সাইরা ‘বাহুবলী’র থেকে সেরা। বিগ বি খুব বেশি সময় নেই এ জন্য তাঁকে নিয়ে কোনো আলোচনাও হচ্ছে না। নয়নতারা আগের ছবিগুলোর মতোই।

সাইরা নরসীমা রেড্ডি’ দক্ষিণী সুপারস্টার চিরঞ্জীবীর ১৫১তম ছবি। ‘কয়দী নম্বর ১৫০’ মুক্তির আড়াই বছর পর ফিরলেন চিরু। এটা চিরঞ্জীবীর ক্যারিয়ারে প্রথম ঐতিহাসিক ছবি। এই ছবি নিয়ে দক্ষিণে আলোচনা বেশ। সবার ধারণা ব্লকবাস্টার হবে ছবিটি।

২ কোটি রুপির আংটি উপহার পেলেন তামান্না

দক্ষিণের জনপ্রিয় অভিনেতা রাম চরণের স্ত্রী কোনিডেলা ‘বাহুবলী’ তারকা তামান্না ভাটিয়াকে ৬২.৪ গ্রাম ওজনের একটি হিরের আংটি উপহার দিয়েছেন। যার বাজারমূল্য ২ কোটি রুপি। ‘সাইরা’ ছবি মুক্তি পাওয়ার পরই তামান্না ছবির প্রযোজক রামচরণের স্ত্রীর কাছ থেকে এ উপহার পেলেন।

‘সাইরা নরসীমা রেড্ডি’র অভিনেত্রী তামান্না সেই ছবি নিজের টুইটারে শেয়ার করেছেন। পাশাপাশি কোনিডেলাকে ধন্যবাদ জানাতেও ভোলেননি তিনি।

উল্লেখ্য, ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের ছবিতে কাজ করে যাচ্ছেন তামান্না। বিশেষ করে তামিল ও তেলেগু ছবি। তবে ‘বাহুবলী’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয় করে নিজেকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যান এ অভিনেত্রী। অভিনেত্রী এখন বেশ কয়েকটি সিনেমার কাজে ব্যস্ত রয়েছেন। শিগগিরই বলিউড অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর বিপরীতে একটি সিনেমায় দেখা যাবে তাকে।


বলিউড এর সর্বশেষ খবর

বলিউড - এর সব খবর