ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

'নোবেল সবকিছু জানার পরেও ভুল করেছে'

২০১৯ জুলাই ১৪ ১৯:৫৬:৫৪
'নোবেল সবকিছু জানার পরেও ভুল করেছে'

ভারতীয় সংগীত রিয়েলিটি শো সারেগামাপা’র মঞ্চে ‘এত কষ্ট কেন ভালবাসায়’ গানটি করেছেন বাংলাদেশের তরুণ শিল্পী নোবেল। গানটিকে তিনি ‘আর্ক’ ব্যান্ডের গান বলে পরিচয় করিয়ে দেন, যে তথ্যটি ভুল। এর আগে একই মঞ্চে জেমসের ‘বাবা’, ‘মা’ গান দুটি কাভার করেছিলেন নোবেল। সেসময় গীতিকার ও সুরকার প্রিন্স মাহমুদের নাম বলেননি তিনি। পরে সমালোচনার মুখে পরে ক্ষমা চেয়েছিলেন নোবেল। তখন প্রিন্স মাহমুদ নোবেলকে ক্ষমা করে দেন বলে জানা যায়।

নতুন করে ‘এত কষ্ট কেন ভালবাসায়’ গানটি করার সময় আর্ক ব্যান্ডের গান বলে ভুল তথ্য দিয়ে ফের সমালোচনার মুখে পড়েছেন উদীয়মান শিল্পী নোবেল। একই মঞ্চে এবারও নোবেল এড়িয়ে গেলেন প্রিন্স মাহমুদের নাম। বিষয়টি প্রিন্স মাহমুদের নজরে আসার পরে গেল রাতে নিজের ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, “দুঃখিত, এতো কষ্ট কেন ভালবাসায় আর্ক ব্যান্ডের গান না। এটা ১৯৯৮ সালে রিলিজ হওয়া আমার কথা ও সুরে মিক্সড অ্যালবাম ‘শেষ দেখা’তে হাসান গেয়েছিল।”

রবিবার বিকেলে সংগীতের কালজয়ী গীতিকার প্রিন্স মাহমুদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কিছুই বলতে চাননি। তবে এতটুকু নিশ্চিত করেন যে, সবকিছু জানার পরেও নোবেল ভুল করেছে। প্রিন্স মাহমুদ বলেন, এসব গান নিয়ে নোবেলের সঙ্গে আমার আগেই কথা হয়েছে। সে জানে এগুলো কার গান। আমি তাকে আগেই সবকিছু বলেছি। সে সবকিছু জেনেশুনেই আমার নাম বলেনি।’

এদিকে, প্রিন্স মাহমুদের ফেসবুকে দেয়া ওই পোস্টে সংগীত সংশ্লিষ্ট অনেকেই নোবেলের এমন আচরণের কঠোর সমালোচনা করেছেন। কেউ কেউ তাকে ধুর্ত বলে আখ্যায়িত করেছেন। নাবিল হক নামে একজন নোবেলের কড়া সমালোচনা করে মন্তব্য করেছেন, নোবেল লোকটা চালাক না চতুর। প্রিন্স মাহমুদ ভাইর উচিত হয় নাই সারেগামাপাতে ‘বাবা’ গানে যখন নাম বলে নাই তখন ক্ষমা করে দেওয়া। আমি ১০০% কনফার্ম নোবেল জানে ‘এত কষ্ট কেন ভালবাসায়’ প্রিন্স মাহমুদের সুরে হাসানের গান। পরপর তিনবার বাবা, মা, এত কষ্ট কেন ভালোবাসায়’ তে একই ভুল করছে। সে এত চতুর তার নিজের নতুন গান ‘সুনন্দা’ নামে এই ‘এত কষ্ট কেন’র সাথে যোগ করে হিট করাতে চাচ্ছে।

সংগীতের এক ভক্ত বলেন, জেমস, আইয়ুব বাচ্চু, প্রিন্স মাহমুদ, হাসান সবাই হতে পারে না। কাজেই সীমা লঙ্ঘন করো না। প্রকৃতি সীমা লঙ্ঘনকারীকে সহ্য করেনা।

মাহমুদুল হাসান নাসিম নামে আরেকজন প্রিন্স মাহমুদের পোস্টে লিখেছেন, এতো বড় প্লাটফর্ম, এতো উচ্চ তারকা হতে যাওয়া ও হটসিটে বসা বোদ্ধারা কেউই একটা গানের সৃষ্টার গীতিকার, সুরকার দের নাম একটিবার উচ্চারণ করার নূন্যতম কার্টেসি দেখানোর চর্চাটা করার ইচ্ছা পোষণ করেনা। নতুনেরা আমজনতারা শিখবে কীভাবে? এছাড়া, একটা গানের সাথে বলা তথ্যগুলো সঠিক না ভুল সেটা যাচাইয়েরও সামান্য সময় নেই তাদের। আমাদের প্রিন্স মাহমুদসহ আরো অনেক লিজেন্ডারি গীতিকার, সুরকার যাদের গুরুত্ব কোন কিছুর উপর নির্ভর করেনা। আমাদের মতো গোল্ড ডিগার রা ঠিকই ওনাদেরকে খুঁজে নেন, ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা জানান।

রবিউল ইসলাম রিমন নামে একজন একজন লিখেছেন, নিজেই জানে না কার গান গাচ্ছে এত বড় মঞ্চে! এর চেয়ে দুঃখজনক আর কি হতে পারে! শেইম নোবেল। রবিন নামে আরেকজন লিখেছেন, কুমার বিশ্বজিতের গান ‘যেখানে সীমান্ত তোমার সেখানে বসন্ত আমার’ গাওয়ার সময় ও গীতিকারের নাম ভুল বলেছিল নোবেল।


বলিউড এর সর্বশেষ খবর

বলিউড - এর সব খবর