ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭

প্রিতমের ইচ্ছা ছিল শবনম ফারিয়ার সঙ্গে বিয়ে দেবেন

২০২১ জানুয়ারি ১৩ ১৬:১২:৩৭
প্রিতমের ইচ্ছা ছিল শবনম ফারিয়ার সঙ্গে বিয়ে দেবেন

কথা ছিল ২০২০ সালেই বিয়ে পিঁড়িতে বসবেন গায়ক প্রতীক হাসান। পারিবারিকভাবে সবকিছু ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু করোনায় আটকে যায় প্রতীকের বিয়ে। তবে এবার আর দেরি নয়, খুব শিগগির বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন তিনি। গতকাল মঙ্গলবার ছিল তাঁর জন্মদিন। বিশেষ এই দিনেই প্রথম আলোকে জানালেন বিয়ের পরিকল্পনা।

প্রিতমের ইচ্ছা ছিল শবনম ফারিয়ার সঙ্গে বিয়ে দেবেন

এমনিতে আগেভাগে বিয়ে নিয়ে কথা বলতে আগ্রহী নন প্রতীক। নিজের নতুন গানের খবর সব সময় চূড়ান্ত হওয়ার পরই জানান। তেমনি বিয়ে করেই বউসহ খুশির খবর জানাতে চান এই তরুণ গায়ক। কিন্তু বিয়ে নিয়ে নিজের নীরবতা ভাঙলেন। পাত্রীর নাম–পরিচয় গোপন রেখেই জানান, দুই বছর তাঁদের প্রেম ছিল।

পরে তাঁরা বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। তাঁদের প্রথম দিনের পরিচয়টা ছিল একদমই অন্য রকম। তাঁদের মধ্যে অমিলই ছিল বেশি। কীভাবে প্রেমটা হয়ে গেল, সেটা বুঝতেই পারেননি প্রতীক। তিনি বলেন, ‘পরিবারের সম্মতিতে আমাদের বিয়ে হচ্ছে। গত বছর বিয়ের তারিখ ঘোষণার সময়ই শুরু হয় করোনা। আটকে গেল বিয়ে। পারিবারিকভাবে আমাদের বিয়ের সব ঠিক আছে। যেকোনো সময় বিয়ের দিন জানিয়ে দেব।’

জন্মদিনে প্রথম প্রহর কেটেছে পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে কেক কেটে। দিনটিতে প্রতীককে নিয়ে নানান অভিযোগ থাকে বন্ধুদের।

তিনি জানান, জন্মদিনটা কেন ঘটা করে উদ্‌যাপন করি না, সেটা নিয়ে তাঁর বন্ধুরা প্রায়ই রাগারাগি করে। জন্মদিনে কোনো পার্টি না দেওয়া প্রসঙ্গে প্রতীক বলেন, ‘আমার বন্ধু এবং ভালোবাসার মানুষ অনেক। সবাইকে বলতে গেলে মিনিমাম পাঁচ হাজার কাছের মানুষ হবে। সবাইকে এক জায়গায় করার জন্য বিশাল হল রুম দরকার। সেই জন্য জন্মদিনে বিশেষ কিছু করা হয় না। যাঁরা খুবই কাছের, তাঁরা আমাকে না জানিয়ে নানা রকম সারপ্রাইজ দেন।’

সর্বশেষ ‘কাবারের হাড্ডি’ শিরোনামে একটি গানে বেশ সাড়া পাচ্ছেন প্রতীক। সেই গান নিয়ে মজার গল্প জানালেন প্রতীক। প্রিতমের অনেক দিনের ইচ্ছা ছিল শবনম ফারিয়ার সঙ্গে গানের ভিডিও চিত্রে তাঁদের বিয়ে দেবেন। কারণ, তাঁদের নাকি রসায়নটা ভালো। কিন্তু শুটিং করতে গিয়ে দেখা গেল প্রতীক নার্ভাস।

সেটা বুঝতে পারেন ছোট ভাই প্রিতম। সাহস দেন, নানাভাবে ভুলগুলো শুধরে দেন। জানা গেল, দুই ভাই কাজ করতে গেলে খুনসুটি লেগেই থাকে।

প্রতীক জানান, শুটিংয়ে প্রিতম বলবে এভাবে নয় সেভাবে, চেহারা ফোকাস করো। তখন প্রিতমের ‘চিল্লাচিল্লিতে’ তিনি খেই হারিয়ে ফেলেন। প্রতীকের ভাষায়, ‘শুটিংয়ে চিল্লাচিল্লি তো করেই, আবার গান রেকর্ডিং করতে গেলেও প্রিতম বলবে এভাবে নয় সেভাবে। আমি বলি হচ্ছে, সে এক যুক্তি দেখাবে। এটা-সেটা বোঝাবে। তখন মনে হয় প্রিতম একটা গ্যাংস্টার।’ হেসে হেসেই কথাগুলো বললেন প্রতীক। সবশেষে দুই ভাই মিলেই বুঝেশুনে সিদ্ধান্ত নেন। দুই ভাইয়ের কাজে রসায়নটাও ভালো।

প্রতীক বর্তমানে নতুন একটি থিম সং নিয়ে ব্যস্ত। জন্মদিনে হঠাৎ করেই গানটিতে কণ্ঠ দিয়ে হয়েছে তাঁকে। জানালেন, গানের তাঁর সঙ্গে আরও কণ্ঠ দেবেন লুইপা, আনিকাসহ আরও অনেকে। আজ বুধবার গানটির শুটিংয়ে অংশ নেওয়ার কথা। ১৫ জানুয়ারি গানটি রিলিজ হবে। সম্প্রতি তিনি ‘মাস্ক’, ‘টাকাটা কই’সহ বেশকটি নাটকের গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। সেগুলো নিয়ে প্রশংসাও পাচ্ছেন তিনি।


সঙ্গীত এর সর্বশেষ খবর

সঙ্গীত - এর সব খবর