ঢাকা, রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট ১৫ নভেম্বর থেকে, খেলবেন সাকিব

২০২০ অক্টোবর ২৫ ২২:৪০:৫৫
টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট ১৫ নভেম্বর থেকে, খেলবেন সাকিব

মাত্রই পর্দা নামল দলের তিন দলের ওয়ানডে টুর্নামেন্ট বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপের। শান্ত একাদশ ও মাহমুদউল্লাহ একাদশের মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচ দিয়ে আজ শেষ হলো করোনাকালে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের আয়োজনে প্রথম কোন প্রতিযোগিতামুলক ক্রিকেট আসরের। আর সেটা শেষ হতেই দামামা বেজে

উঠেছে টি-টোয়েন্টি লিগের। ৫ দলের এই টুর্নামেন্ট শুরু হবে নভেম্বরের ১৫ তারিখে। যেখানে খেলবেন আইসিসির নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা নন্দিত টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় আইসিসি কর্তৃক এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সাকিব আল হাসান, যা শেষ হচ্ছে ২৯ অক্টোবর। সেই নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেই ৫ দলের টি টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলতে নভেম্বরের ১০ তারিখে দেশে ফিরবেন লাল সবুজের ক্রিকেটের এই ‘সুপার ম্যান’। খেলবেন নিষেধাজ্ঞাউত্তর প্রথম কোন প্রতিযোগিতামুলক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট।

রোববার (২৫ অক্টোবর) সংবাদ মাধ্যমকে এতথ্য দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

তিনি বলেছেন,‘সামনে আমরা একটি টি-টোয়েন্টি করতে চাচ্ছি। এটা ৫ দলের হবে। আশা করছি ১৫ নভেম্বর। এটার বিস্তারিত কাল পরশুর মধ্যেই দিয়ে দিব আমরা। সাকিব চলে আসবে ১০ তারিখের মধ্যে। আমার সবশেষ ওর সঙ্গে যে কথা হয়েছে যে ও ১০ তারিখের দিকেই এখানে চলে আসবে। আগেও হতে পারে। টুর্নামেন্টের আগে তো বটেই। ও এক সপ্তাহ বা তা আগেই চলে আসবে। এবং ও এখানে অনুশীলন করবে। তার আগে তো ওর দলও হয়ে যাবে।

৫ দলের এই টুর্নামেন্টে বিদেশি ক্রিকেটার রাখার কথা ভাবছেন না বিসিবি বস। স্থানীয় ক্রিকেটারদের ওপরে সবিশেষ গুরুত্বরোপ করতেই মূলত তার এই ভাবনা। এদিকে টুর্নামেন্টের স্পন্সরশিপের জন্য এক্সপ্রেশন অব ইন্টারেস্টের কথাও ব্যক্ত করলেন লাল সবুজের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার এই কান্ডারি।

‘এই পাঁচ দলের করতে গেলে এখন পর্যন্ত আমাদের সিদ্ধান্ত হচ্ছে সব স্থানীয় প্লেয়াররাই খেলবে। যেহেতু ৫ দলের সেহেতু আরো বেশ কয়েকজন ছেলে সুযোগ পাবে। নুন্যতম ৩০টা ছেলে আসবে। আমরা এক্সপ্রেশন অব ইন্টারেস্ট চাইব। কারা কারা এই দলগুলোর স্পন্সর হতে চায়। ওই অনুযায়ী আমরা এটা ঠিক করে ফেলব। ইনশাল্লাহ ১৫ নভেম্বর থেকে। বিদেশি ক্রিকেটার রাখতে চাচ্ছি না। এই মুহুর্তে না। কারণ দেখে বিদেশি প্লেয়ার আনতে গেলে সব ব্যাটসম্যানই পাওয়া যাচ্ছে। ব্যাটসম্যান এনে লাভ টা কি? আমরাদের তেমন কোন লাভই হচ্ছে না।’

দলের স্পন্সর কীভাবে ঠিক হবে? সংবাদ মাধ্যমের করা এমন প্রশ্নে পাপন জানালেন,‘এখানে দুটো অপশন। একটা নম্বরের উপর নির্ভর করে। কারা আসছে সেটার উপর নির্ভর করছে। দুটো অপশনের একটা হচ্ছে লটারি আরেকটা হচ্ছে ওরা যদি বলে আমি এটা চাই, আমি ওটা। যদি মিলে যায় তাহলে পাঁচজনকে পাঁচটা দিবে। নাইলে লটারিতে চলে যাব।’


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর