ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

জেমসের কান্নায় সেদিন ভেসেছিলো বাংলাদেশ

২০২০ অক্টোবর ১৮ ১৩:১৮:১৪
জেমসের কান্নায় সেদিন ভেসেছিলো বাংলাদেশ

দুজনকে নিয়ে অনেক নেতিবাচক গল্পও ছড়ানো আছে শোবিজে। যদিও তারা দুজন কখনোই কোনোদিন তাদের প্রতিপক্ষ হিসেবে প্রকাশ্যে কিছু বলেননি। বরং দুজনকে দেখা গেছে চমৎকার সম্পর্কের মধ্যেই। বহুবার দুজনকে এক মঞ্চে গাইতেও দেখেছেন এদেশের সংগীতপিপাসু মানুষ। আর হবে না সেই সুযোগ। একজন

এলআরবির আইয়ুব বাচ্চু চলে গেছেন পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে। রয়ে গেছেন নগর বাউল জেমস। ২০১৮ সালের ১৮ অক্টোবর মারা যান ‘এবি বস’খ্যাত আইয়ুব বাচ্চু। আজ তার দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী। প্রিয় তারকার প্রস্থানের দিনে অনেকেই তাকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন পছন্দের গানে-কবিতার পংক্তি ও নানা স্মৃতিচারণায়।

অনেকেই স্মরণে এনেছেন আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুর দিনে এক কনসার্টে জেমসের সেই হৃদয় বিদারক কান্নার কথা। অনেকে প্রকাশ করছেন ছবিও।

২০১৮ সালের ১৮ অক্টোবর সকালে যখন আইয়ুব বাচ্চু শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন জেমস তখন রাষ্ট্রীয় উন্নয়ন মেলার কনসার্টে যোগ দিতে বরগুনার পথে। সেখান থেকেই আইয়ুব বাচ্চুর জন্য শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন তিনি। জানিয়েছেন আসতে না পারার আক্ষেপও।

কনসার্টের মঞ্চে উঠেই বলেছিলেন, কনসার্ট আইয়ুব বাচ্চুর জন্য উৎসর্গ করেছেন তিনি। সেই ঘোষণা ছিল আবেগতাড়িত। আইয়ুব বাচ্চুর নাম নিতে গিয়ে চাপা কান্নার স্রোতে কথা হারিয়ে ফেলছিলেন তিনি।

নিজেকে কোনোরকম নিয়ন্ত্রণ করে বলেছিলেন, ‘আজকের অনুষ্ঠান হোক এটাই চাইছিলাম না। কিন্তু বাচ্চু ভাইয়েরই একটা কথা মনে পড়ে গেল। একটা গল্প বলি। অনেক আগে একটা শোতে হাস্যোজ্জ্বল বাচ্চু ভাই বলেছিলেন- যাই হোক ‘শো মাস্ট গো অন’! আজও অন। আমি চেষ্টা করছি।’

এরপর জেমস বাচ্চুর স্মরণে গিটারে সুর তোলেন। সেই সুর চিৎকার করে যেন কাঁদছিলো। জেমসও কাঁদছিলেন। শিশুর মতো ঠোঁট বাঁকানো অভিমানী সেই বোবা কান্নার আবেগ ছুঁয়ে গিয়েছিলো সারা বাংলাদেশকে। জেমসের কান্না দেখে সেদিন কেঁদেছিলেন কোটি কোটি সংগীতপ্রিয় মানুষেরাও। কান্নার সেই ভিডিও শোভা পেয়েছিলো ফেসবুকে বিভিন্নজনের দেয়ালে দেয়ালে।

আজ আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুদিনে আবারও ফিরে এলো জেমসের কান্নার সেই ভিডিও ও ছবি।


সঙ্গীত এর সর্বশেষ খবর

সঙ্গীত - এর সব খবর