ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭

ক্ষমা করে দিও, অ্যাটর্নি জেনারেলকে তার স্ত্রী

২০২০ সেপ্টেম্বর ২৮ ১৫:০৭:৫০
ক্ষমা করে দিও, অ্যাটর্নি জেনারেলকে তার স্ত্রী

প্রবল কান্নার মাঝে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে শেষ বিদায় জানিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন তার স্ত্রী বিনতা মাহবুব। বিদায়ের মুহূর্তে তিনি লাশবাহী গাড়ি ধরে বারবার বলতে থাকেন, ‘ক্ষমা করে দিও। ক্ষমা করে দিও তুমি। আমাকে ক্ষমা করে দিও।’ সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বেইলি

রোডে অ্যাটর্নি জেনারেলের সরকারি বাসভবনে এই শোকাবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এ সময় বিনতা মাহবুব তার স্বামীর জন্য দোয়া পড়তে থাকেন।

সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটের দিকে মাহবুবে আলমের মরদেহ নিয়ে তার বাসা থেকে লাশবাহী ফ্রিজিং গাড়ি সুপ্রিম কোর্টের উদ্দেশে রওনা হয়। এ সময় মাহবুবে আলমের স্ত্রী গাড়ির কাছে দৌড়ে আসেন। তিনি গাড়ি ধরে বারবার ক্ষমা চাইতে থাকেন। পরে স্বজনরা এসে তাকে বাসার দিকে টেনে নিয়ে যান।

লাশবাহী গাড়িটি নিয়ে পুলিশ ধীরে ধীরে সামনের দিকে এগোতে থাকে। তখন স্বজনদের ছেড়ে আবারও লাশবাহী গাড়ির দিকে ছুটে আসতে থাকেন মাহবুবে আলমের স্ত্রী। স্বজনরা তাকে সরিয়ে নিয়ে যান এবং অ্যাটর্নি জেনারেলের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া চাইতে বলেন।

এর পর সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টা ৩৫ মিনিটে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের পেশ ইমাম আবু সালেহ মো. সলিম উল্লাহ জানাজায় ইমামতি করেন। সকাল ১০টা ৪১ মিনিটের দিকে তার মরদেহ সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে আনা হয়।

জানাজায় অংশ নেন প্রধান বিচারপতি, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি ও হাইকোর্টের বিচারপতিরা এবং মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, ঢাকা দক্ষিণের মেয়রসহ সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবীরা।

অ্যাটর্নি জেনারেলের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে তাকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয়।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তার মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা শোক প্রকাশ করেন।


জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর