ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭

সুশান্ত-মাদক মামলায় ফেঁসে গেলেন দীপিকা

২০২০ সেপ্টেম্বর ২২ ১১:০২:৫৯
সুশান্ত-মাদক মামলায় ফেঁসে গেলেন দীপিকা

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর মাদক মামলায় এবার একটি বড় খবর প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে। একটি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, মাদক মামলায় এবার বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনকে ডেকে পাঠাতে পারে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি সপ্তাহেই দীপিকা পাড়ুকোনকে ডেকে পাঠানো হবে। দীপিকার পাশাপাশি শ্রদ্ধা কাপুর, সারা আলি খান এবং রকুলপ্রীত সিংকেও চলতি সপ্তাহে ডেকে পাঠিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, দীপিকার নাম এসেছে কারিশ্মা নামের এক জনের সঙ্গে তার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের সূত্রে। প্রসঙ্গত, করিশ্মা জাতীয় পুরস্কার জয়ী প্রযোজক মধু মন্টেনার ট্যালেন্ট হান্ট সংস্থায় কাজ করেন। যে সূত্রে মন্টেনাকেও ডেকে পাঠাবে এনসিবি।

সম্প্রতি কয়েক জন বলি-তারকার হোয়াটস্‌অ্যাপ চ্যাট এনসিবি-র হাতে আসে। সেখানে ‘ডি’ এবং ‘কে’ আদ্যাক্ষরের দু’টি নামের কথা জানা যায়। মাদক প্রসঙ্গে তাদের মধ্যে একাধিক বার কথা চালাচালি হয়েছে বলে দাবি করে এনসিবি। এর পরেই শোরগোল পড়ে। কে এই ‘ডি’? ‘কে’ই বা কে? তখন থেকেই দানা বাঁধতে শুরু করে সন্দেহ।

বলিউডের একাংশের দাবি, ‘ডি’ আসলে দীপিকা পাড়ুকোন। আর ‘কে’ হচ্ছেন করিশ্মা। ‘কে’-কে বুধবার ডেকে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি ‘ডি’ অর্থাৎ দীপিকাকেও সমন পাঠানো হবে বলে খবর।

করিশ্মা কাজ করেন ‘কওয়ান ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি’তে। সেই সূত্রেই তাঁর দীপিকার সঙ্গে কথা হত। কারণ, মন্টেনার ওই সংস্থায় দীপিকার ম্যানেজার ছিলেন করিশ্মা।

জানা যাচ্ছে, বলিউডের জনপ্রিয় প্রযোজক মধু মন্টেনাকেও (অভিনেত্রী নীনা গুপ্তার মেয়ে মাসাবা গুপ্তার প্রাক্তন স্বামী) ডাক পাঠানো হয়েছে এনসিবির পক্ষ থেকে। গজনি, সুপার থার্টি, কুইন-সহ একাধিক জনপ্রিয় সিনেমার প্রযোজক হলেন মধু মন্টেনা।

এদিকে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর এখনও পর্যন্ত ১৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এনসিবির পক্ষ তেকে। যার মধ্যে রিয়া চক্রবর্তী, সৌভিক চক্রবর্তী, স্যামুয়েল মিরান্ডারা রয়েছেন।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৪ জুন সকালে নিজ ফ্ল্যাট থেকে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সে দিনই ময়নাতদন্ত করেন মুম্বাইয়ের কুপার হাসপাতালের পাঁচ জন চিকিৎসক। তাদের রিপোর্টে লেখা ছিল, ঝুলন্ত অবস্থায় শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু। সেই রিপোর্টে এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা আখ্যা দিয়ে বলা হয়েছিল, শরীরে অন্য কোনও আঘাতের চিহ্ন নেই।


বলিউড এর সর্বশেষ খবর

বলিউড - এর সব খবর