ঢাকা, শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭

সব ঠিক আছে, সৌরভের এখন শুরুর অপেক্ষা

২০২০ সেপ্টেম্বর ১৯ ১২:১৮:১৯
সব ঠিক আছে, সৌরভের এখন শুরুর অপেক্ষা

ফ্রাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এবারের পর্দা উঠছে আরব আমিরাতে। মহামারি করোনাভাইরাস কালেও আইপিএল মাঠে গড়ানোর জন্য নানান পরিকল্পনা নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড-বিসিসিআই। ২০২০ সালের আইপিএল মাঠে গড়ানোর কথা ছিল গত মার্চের ২৯ তারিখে তবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে

তা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হওয়ায় শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) মাঠে গড়াচ্ছে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও জাকজমকপূর্ণ টুর্নামেন্টটি।

উদ্বোধনী দিনে মুখোমুখি হবে রোহিত শর্মার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও আগের বারের চ্যাম্পিয়ন মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। ম্যাচটা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায়। করোনাকালে আইপিএলের স্বাদ নিতে প্রস্তুত হচ্ছেন তো! আর এই ম্যাচ নিয়ে বেশ উত্তেজিত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান সৌরভ গাঙ্গুলি।

সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে এখন অপেক্ষা শুরুর। আর এমন অবস্থায় ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে মুঠোফোনে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, 'চ্যালেঞ্জ তো মানুষের জীবনে থাকেই। কিন্তু এটা অন্য রকম এক চ্যালেঞ্জ। কোভিডের কারণে এ বারের আইপিএল একদম অন্য রকম।'

গাঙ্গুলি নিশ্চিত করেছেন এখন পর্যন্ত সবকিছুই ঠিকঠাক আছে। তিনি বলেন, 'মনে হচ্ছে, সব কিছু ঠিক আছে। এখন অপেক্ষা ক্রিকেট শুরু হওয়ার।

করোনার কারণে স্থগিত হয়ে পড়া থেকে শুরুর আগ পর্যন্ত আইপিএল নিয়ে কম জলঘোলা হলো না। সংবাদমাধ্যমে সবচেয়ে বেশি কথা উঠেছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে ঘিরে। এই সময়টাতে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। করোনার শুরুর দিকে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে বলাও হচ্ছিল, ঠিক সময়েই হবে বিশ্বকাপ। কিন্তু পরে করোনার কারণে বিশ্বকাপ পেছানোর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। সংবাদমাধ্যমে খবর প্রচার হয়েছে, এতে হাত ছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইয়ের!

স্থগিত হয়ে যাওয়া আইপিএল আয়োজনের জন্য ফাঁকা সময় প্রয়োজন ছিল বিসিসিআইয়ের। সেই প্রয়োজন মিটাতেই নাকি ভেতরে ভেতরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পেছানোর চেষ্টা করেছে ভারতীয় বোর্ড, যাতে আইপিএল আয়োজনের জন্য সময় বের করা যায়!

বিসিসিআই অবশ্য এসব কথা পাত্তা দেয়নি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পেছানোর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ার পর শোনা যাচ্ছিল, ভারতেই অনুষ্ঠিত হবে আইপিএল। কিন্তু ভারতের করোনা পরিস্থিতি সন্তোষজনক অবস্থায় না পৌঁছাতে বিকল্প দেশে আয়োজনের তোড়জোড় শুরু করে বিসিসিআই। একটা সময় নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কায় আইপিএল আয়োজনের আভাস পাওয়া যাচ্ছিল। বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে শেষ পর্যন্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতকে চূড়ান্ত করা হয়। মরুর দেশটিতে আগে থেকেই করোনার প্রকোপ কম ছিল, সেই কারণে বেছে নেওয়া। তবে এতে কম ঝাক্কি ঝামেলা পোহাতে হয়নি বিসিসিআই এবং আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে।

আয়োজক দেশটির পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, সেখানে গিয়ে বাধ্যতামূলক দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। তিনবার করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলে তবেই মিলবে মাঠে নামার সার্টিফিকেট। এসব শর্ত মানতে গিয়ে বড় বিপদ পাড়ি দিতে হয়েছে দলগুলোকে। এসবের মধ্যে স্পন্সর ইস্যু নিয়েও ঝামেলা পোহাতে হয়েছে আইপিএল কর্তৃপক্ষকে।

দুবাই গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে পড়েছিল চেন্নাই সুপার কিংসের ১০ সদস্য। পরে দলটির দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য সুরেশ রায়না ও হরভজন সিং আইপিএল থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নেন। অনেকে ওই সময়ে আইপিএল মাঝপথে থেমে যাওয়ার শঙ্কাও দেখছিলেন। সেই শঙ্কা কাটিয়ে টুর্নামেন্টটা মাঠে গড়াচ্ছে সেটা ক্রিকেট সমর্থকদের জন্য নিশ্চয় বড় স্বস্তির। বিজ্ঞাপন

স্বাভাবিকভাবেই করোনাকালে আইপিএলের ম্যাচগুলো দেখতে মাঠে প্রবেশ করতে পারবেন না দর্শকরা। টুর্নামেন্টের সবগুলো ম্যাচ হবে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে। টুর্নামেন্টের পুরোটা সময় আলাদা থাকতে হবে খেলোয়াড়সহ টিম ম্যানেজমেন্টের সবাইকে। এদিকে, ভারতীয়সহ অন্য কয়েকটি দেশের ক্রিকেটাররা পাঁচ মাসের বিরতির পর আইপিএল দিয়েই ক্রিকেটে ফিরছেন। সেটাও একটা বাঁধা হবে নিশ্চয়।

অতীতে প্রতি আইপিএলেই উদ্বোধনীতে তারকাদের ছড়াছড়ি, নাচ-গানের মহল দেখা যেতো। কিন্তু করোনার কারণে এবারের উদ্বোধন হবে একেবারেই সাদামাটা। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি, আইপিএল সভাপতি ব্রিজেশ প্যাটেলসহ কয়েকজনের বক্তব্যেই উদ্বোধন আয়োজন শেষ করা হবে। উদ্বোধনীতে সব দলের অধিনায়কদের উপস্থিত থাকার কথা শোনা যাচ্ছিল। শেষ মুহূর্তে নাকি সেই সিদ্ধান্ত থেকেও সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইপিএল কর্তৃপক্ষ।

তবে অনেককিছু এড়িয়ে আইপিএল শুরু হলেও একটা শঙ্কা কিন্তু থেকেই যাচ্ছে। টুর্নামেন্ট চলাকালে যদি হঠাৎ কয়েকজন ক্রিকেটার আক্রান্ত হয়ে পড়নে তবে? দু'জন ক্রিকেটারের শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়াতে স্থগিত হয়ে গিয়েছিল গত পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল)।

বাংলাদেশের দর্শকরা আইপিএল-এর সব ম্যাচ সরাসরি দেখতে পারবেন জিটিভিতে। এছাড়া কোনো ধরনের সাবস্ক্রিপশন ফি বা চার্জ ছাড়াই অনলাইনে দেখা যাবে র‍্যাবিটহোলবিডি'র ওয়েবসাইট www.rabbitholebd.com-এ।


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর