ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭

‘ফেসবুকে আমার কোনো ফ্যান ক্লাব বা নাটকের গ্রুপ নেই’

২০২০ আগস্ট ১৩ ১২:৫৬:২৪
‘ফেসবুকে আমার কোনো ফ্যান ক্লাব বা নাটকের গ্রুপ নেই’

আশনা হাবিব ভাবনা। অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী। সম্প্রতি 'মুখ আসমান' নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে অভিনয় শুরু করেছেন। এ ছাড়া ব্যস্ত সময় কাটছে লেখালেখি ও ছবি আঁকা নিয়ে। এ সময়ের ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে-

মুখে মাস্ক, চোখের নিচে ও কপালে লাল দাগ- এমন বেশ কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এমন কোন চরিত্রে অভিনয় করছেন, যার জন্য এমন মেকআপ?

মুখের সব দাগ কিন্তু মেকআপের নয়। লম্বা সময় মাস্ক পরার কারণে মুখে সত্যিকারের কিছু দাগও ছিল। পরিচালক অনিমেষ আইচের 'মুখ আসমান' নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে অভিনয় করছি। ছবিতে আমার চরিত্র নিতু নামের এক করোনাযোদ্ধা ডাক্তারের। এ চরিত্রের জন্যই পরিচালকের কথায় মাস্ক ও ফেসক্যাপ পরে, চশমার দাগ নিয়ে অভিনয় করছি। চরিত্র বাস্তব করে তোলার জন্য শুটিংয়ের আগে সারা দিন-রাত মাস্ক পরে থেকেছি।

চরিত্র নিয়ে আপনাকে মহড়া, নয়তো নানা পেশার মানুষের সঙ্গে মিশতে দেখা গেছে, এর কারণ কী?

সব পেশার মানুষকে আমি ভালোভাবে জানি- তা কিন্তু নয়। এ জন্য শুটিংয়ের আগে যে চরিত্রে অভিনয় করব, তার পেশা, স্বভাব, চলন-বলন সবকিছু জানার চেষ্টা করি। কিছু নাটকের জন্য মহড়ায় অংশ নিয়েছি, যাতে শুটিংয়ের সময় অনায়াসে ক্যামেরার সামনে অভিনয় করে যেতে পারি। আমি সব সময় চাই, অভিনীত চরিত্র যেন দর্শকের কাছে বাস্তব মনে হয়।

যখন থেকে অভিনয়ে এসেছেন, তখনও কি কাজ করার বিষয়ে এমন ভাবনা-চিন্তা ছিল?

এ ভাবনা শুরু থেকেই ছিল, এখনও আছে। কারণ, তথাকথিত নায়িকা না, আমি একজন অভিনেত্রী হতে চাই। পরিশ্রম, সংগ্রাম, সাধনা- সবকিছুই করব; শুধু দর্শকের কাছে এ কথা শোনার জন্য যে আমি একজন অসাধারণ অভিনেত্রী। তা ছাড়া তারকাখ্যাতির প্রতি আমার কোনো মোহ নেই। অন্যদের তুলনায় আমার কাজের সংখ্যা কম না বেশি- তা নিয়েও ভাবি না।

কী মনে হয়, কাজ কম হলেই তা ভালো হবে?

কাজ কম হলে চরিত্র ভালোভাবে আত্মস্থ করা যায়। অভিনয় নিয়ে আলাদা করে ভাবার সুযোগ থাকে। কিন্তু ঘড়ি ধরে একের পর এক কাজ করতে গেলে সে সুযোগ থাকে না। তার চেয়ে বড় কথা হলো গল্প ভালো না, নির্মাণে যত্নের ছাপ নেই, চরিত্রেও নেই ভিন্নতা- এমন নাটক বা সিনেমা দর্শকের মনে দাগ কাটবে না।

এত ভাবনা-চিন্তা করে কাজ করেন বলেই কি আপনার এখনকার নাটক ও ছবিগুলো নিয়ে এত আলোচনা?

্‌আমি শুধু ভালো কিছু কাজ করার চেষ্টা করছি- এর বেশি কিছু না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আমার কোনো ফ্যান ক্লাব, নাটকের গ্রুপ নেই; যারা আমার নাটক বা সিনেমা সব জায়গায় শেয়ার করবে। 'একা', 'টুলেট'সহ এখনকার নাটক, ছবিগুলো নিয়ে যারা ভালো বা মন্দ মত প্রকাশ করছেন, তারা বিভিন্ন শ্রেণির দর্শক। আমার কাজ তাদের যেমন মনে হয়েছে, সেটাই তারা বলছেন।

কাজ এমনিতেও কম করেন, এখন কি করোনার জন্য সেটা কমে গেছে?

করোনার মধ্যেও কাজ করেছি। 'টুলেট' তো ঈদের জন্যই নির্মাণ করা। স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিয়েই কাজটি করেছি। হ্যাঁ, এটা ঠিক যে শুটিং আর মাঝেমধ্যে বাজারে যাওয়া ছাড়া করোনায় ঘর থেকে বের হইনি।

ঘরের সময়টা কীভাবে কাজে লাগিয়েছেন?

প্রথমে নেইল পলিশ, লিপস্টিক দিয়ে ছবি আঁকা শুরু করেছি। মেকআপ দিয়ে আঁকা সে ছবিগুলোর প্রশংসা পাওয়ার পরে রংতুলি দিয়ে ছবি আঁকা শুরু করেছি। এর বাইরে কিছু কথা লিখেছি, যাকে অনেকে কবিতা বললেও আমি তেমন দাবি করিনি।


মিডিয়া গসিপ এর সর্বশেষ খবর

মিডিয়া গসিপ - এর সব খবর