ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

মালয়েশিয়ায় চরম বিপদে ৮ লাখেরও বেশি মানুষ কর্মহীন

২০২০ জুলাই ১৫ ১৩:৪৫:৫২
মালয়েশিয়ায় চরম বিপদে ৮ লাখেরও বেশি মানুষ কর্মহীন

করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আদেশ মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার লকডাউনের প্রথম ৩ মাসেই দেশটিতে ৮ লক্ষ ২৬ হাজার ১ শত মানুষ বেকার হয়েছে। এর মধ্যে দেশটির জনসাধারণের পাশাপাশি বিদেশী অভিবাসীরা ও রয়েছেন। দেশটির সরকারী পরিসংখ্যান বিভাগ (ডিওএসএম) এই তথ্য প্রকাশ করেছে। তবে এই মন্দা কাটিয়ে উঠতে সরকার ইতিমধ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ ও নিয়েছে। দেশটিতে কর্মক্ষম জনশক্তি ১৫ থেকে ৬৪ বছর বয়সীদের মাঝে জড়িপ চালিয়ে এই তথ্য নির্ধারন করা হয়েছে যা চলতি মাস পর্যন্ত শতকরা ৫.৩ এ পৌঁছেছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) মালয়েশিয়ার সংবাদ মাধ্যম দ্য স্টার এক প্রতিবেদনে এ বিষয়ে একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটিতে যখন প্রথম মার্চ মাস থেকে লকডাউন শুরু হয় তখন ৬ লক্ষ ১০ হাজার ৫ শত থেকে শুরু করে এক লাফে ৭ লক্ষ ৭৮ হাজার ৮ শ তে পৌঁছে যায় এবং পরবর্তী এপ্রিল মাসে থেকে জুলাই মাস পর্যন্ত বেকারের সংখ্যা বপড়ে বর্তমানে ৮ লক্ষ ২৬ হাজার ১ শত পূর্ণ হয়েছে।

গত বছর ২০১৯ সালের মে মাসের ৫ লক্ষ ১৯ হাজার ৮ শত জন ছিল ২০২০ সালের মে মাসে ৩ লক্ষ ৬ হাজার ৩ শত জন বেড়ে ৮ লক্ষ ২৬ হাজার ১ শত জনে পৌঁছেছে।

মালয়েশিয়ার শ্রমশক্তিতে নিয়োগপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের সংখ্যা এপ্রিলের ১৪.৯৩ মিলিয়ন থেকে মে মাসে সামান্য কমেছে ১৪.৮৯ মিলিয়ন লকডাউন এর প্রভাব পড়ে।

তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন বেসরকারি হিসাবে বেকারের প্রকৃত সংখ্যা আরো বেশি। ১ ম দফা লকডাউনে সব ধরনের অবকাঠামো বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। যদিও পরে ধীরে ধীরে লকডাউন শিথিল করার পর অধিকাংশ প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে এবং বর্তমান চলমান রিকভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার(আরএমসিও) তে কিছু নিয়ন্ত্রণ আদেশ বহাল রয়েছে। কিছুদিন আগেও দেশটির সরকার অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে প্রায় ৩৫ বিলিয়নের আর্থিক প্রনোদনা ঘোষণা করা হয়েছে বিভিন্ন সেক্টর এর জন্য। সরকার আশা প্রকাশ করেছেন তারা এই মন্দা কাটিয়ে উঠতে পারবেন।


উল্লেখ্য যে, মালয়েশিয়ায় নাগরিক ১৫ বছর থেকে ৬৪ বছর বয়স পর্যন্ত নারী পুরুষ নিয়মিত কাজ করেন। তারা ভারী কোন কাজ করেন না বিধায় লক্ষ লক্ষ বিদেশী শ্রমিক প্রয়োজন হয়।


বহির্বিশ্ব এর সর্বশেষ খবর

বহির্বিশ্ব - এর সব খবর