ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

আটকের পর ঢাকায় আনা হচ্ছে সাহেদকে

২০২০ জুলাই ১৫ ১০:১৬:০৪
আটকের পর ঢাকায় আনা হচ্ছে সাহেদকে

বর্তমানে করোনা ভাইরাসের তান্ডবের মধ্যেই প্রতারনা শুরু করেছে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠান। এদিকে করোনাভাইরাস টেস্টের ভুয়া সার্টিফিকেট দিয়েছে তারা। শুধু তাই নয় এছাড়াও আরও অনেক প্রতারণার দায়ে অভিযুক্ত সাহেদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এবং হেলকপ্টারে করে সাহেদকে ঢাকায় আনা হচ্ছে।

বুধবার (১৫ জুলাই) ভোরে র‌্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যদের বিশেষ অভিযানে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কোমরপুর গ্রামের লবঙ্গবতী নদীর তীর সীমান্ত এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিরিচালক (এএসপি) সুজয় সরকার বাংলানিউজকে বলেন, রিজেন্ট হাসপাতাল প্রতারণা মামলার প্রধান আসামি ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদকে সাতক্ষীরা থেকে র‌্যাবের আভিযানিক দলের সঙ্গে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় আনা হচ্ছে।

সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকার তেজগাঁওয়ে পুরাতন বিমান বন্দরে সাহেদকে নিয়ে পৌঁছানোর কথা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

গত ৬ জুলাই নানা অনিয়ম, প্রতারণা, সরকারের সঙ্গে চুক্তি ভঙ্গ, করোনা পরীক্ষার ভুয়া ফলাফল, সার্টিফিকেট দেওয়া ও রোগীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগে রিজেন্ট গ্রুপের দু’টি হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার আলমের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে প্রতারণার সত্যতা মেলে। সেই সঙ্গে পাওয়া যায় গুরুত্বপূর্ণ আরও অনেক তথ্য।

পরদিন গত ৭ জুলাই রিজেন্ট গ্রুপের মূল কার্যালয় এবং রাজধানীর উত্তরা ও মিরপুরের দ ‘টি হাসপাতাল সিলগালা করে দেওয়া হয়। হাসপাতালটি প্রতারণা করে ১০ হাজারেরও বেশি করোনা পরীক্ষার ভুয়া সার্টিফিকেট দিয়েছে।


জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর