ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

'রাতে শুটিং করতে, হোটেলে দেখা করতে, আপত্তিকর ছবি পাঠাতে বলেন রাজীব'

২০২০ জুলাই ০৮ ১৭:১৮:৪২
'রাতে শুটিং করতে, হোটেলে দেখা করতে, আপত্তিকর ছবি পাঠাতে বলেন রাজীব'

হোটেলে গিয়ে একান্তে কথা বললেই মিলবে সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ! কলকাতার এক খ্যাতনামা পরিচালক-প্রযোজক এমন কুপ্রস্তাব দিয়েছেন বাংলাদেশের নায়িকাকে। এ নিয়ে কলকাতার

ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি এবং মিডিয়া জগতে চলছে তোলপাড়। ছবিতে সুযোগ দেওয়ার বিনিময়ে অশ্লীল প্রস্তাব দেওয়ার গুরুতর অভিযোগ পরিচালকের বিরুদ্ধে।

যার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক- রাজীব কুমার বিশ্বাস, বিখ্যাত অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের প্রাক্তন স্বামী। অভিযোগকারী অভিনেত্রী-মডেলের নাম শান্তা পাল। সম্প্রতি তেলুগু ছবিতে কাজ করছেন বলে আলোচনার শিরোনাম হয়েছেন শান্তা। তাছাড়া কলকাতার নায়ক অঙ্কুশের বিপরীতে একটি বাংলা ছবিতেও কাজ করার কথা রয়েছে তার। এবিপি আনন্দ, সংবাদ প্রতিদিন সহ কলকাতার নামকরা গণমাধ্যমগুলোতে এ নিয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। মানবজমিনকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে গত বছর মিস এশিয়া গ্লোবালে চতুর্থ এবং মিস বিউটিফুল আইজ খেতাব পাওয়া শান্তা পাল বলেছেন

বিস্তারিতঃ

*রাজীবের সাথে আপনার পরিচয় কিভাবে?

-আমি তাকে চিনতাম না। ফেসবুকে তিনি আমাকে হুট করেই তার ছবিতে কাজের প্রস্তাব দেন।

*অভিযোগটা ঠিক কি নিয়ে?

-রাজীব আমাকে জানান, তার ছবির জন্য আমাকে পছন্দ করেছেন। জিজ্ঞেস করেন আমি রাতে শুটিং করতে পারবো কিনা। এটা শুনে আমি অবাক হই। তারপর বলেন আমি রাজি থাকলে চুক্তি করতে ঢাকায় এসে পাঁচ তারকা হোটেলে উঠবেন, সেখানেই দেখা করতে। আমি তাতে অসম্মতি জানাই। তিনি মাহিয়া মাহীকে এ ছবির জন্য প্রথমে নেয়া হয়েছিল, ছবির নায়ক জনপ্রিয় দেব ইত্যাদি নানাভাবে প্রলোভন দেখান। এক পর্যায়ে আপত্তিকর ছবি পাঠাতে বলেন।

*অনেকেই বলেন আলোচনায় আসার জন্য আজকাল অনেক নায়িকাই বানিয়ে এসব অভিযোগ করে থাকেন...

-আমার সাথে রাজীবের সব কথা হয়েছে ফেসবুকে। তার সব প্রমাণ আছে। তাছাড়া কলকাতার মূলধারার পত্রপত্রিকায় এ নিয়ে রিপোর্টও হয়েছে। রাজীব তাদের সাথে কথা বলেননি৷ তার নীরবতাই বলে দিচ্ছে আমার অভিযোগ সঠিক। আর এর সাথেতো আমার মান-মর্যাদাও জড়িত।

*সম্প্রতি তেলুগু ছবিতে বাংলাদেশী নায়িকা হিসেবে আপনিই প্রথম কাজ করেছেন বলে খবর বেরিয়েছে। কিন্তু অনেকে বলছেন এর আগেও বাংলাদেশের একজন তেলুগু ছবির নায়িকা হয়েছিলেন...

-এটা ঠিক। তবে মেঘলা মুক্তা নামের যিনি আগে তেলুগু ছবিতে কাজ করেছিলেন, সেটা কোন বিগ বাজেটের মুভি ছিলনা, কোন হলেও মুক্তি পায়নি, মূলধারার মিডিয়ায়ও সেভাবে আসে নি।

আমার ছবির পরিচালক বিশ্বনাথ রাও। তিনি দক্ষিণে খুব জনপ্রিয় এক নাম। বাজেট ভারতীয় রূপিতে ৩০-৪০ কোটি।

*কিন্তু এর আগেতো নুসরাত ফারিয়া বলিউডের জনপ্রিয় নায়ক ইমরান হাশমীর বিপরীতে অভিনয় করবেন বলেও খবর বেরিয়েছিল। শেষে তেমন কিছুই দেখা যায়নি। অনেক বলছেন, আপনার ক্ষেত্রেও কি এমনটি হতে পারে?

-নুসরাত ফারিয়ার ওই খবরটিও কিন্তু ভারতের মূলধারার মিডিয়াতে আসে নি। আমার তেলুগু ছবিতে অভিনয়ের খবর কিন্তু কলকাতার জনপ্রিয় পত্রিকাগুলোই প্রথম দিয়েছে। তারা নিশ্চয়ই যাচাই করেই তা করেছে।


ঢালিউড এর সর্বশেষ খবর

ঢালিউড - এর সব খবর