ঢাকা, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭

মাশরাফির উপহার

২০২০ জুন ০২ ১৪:৫৪:৩৬
মাশরাফির উপহার

করোনাকালে একের পর এক দৃষ্টান্তস্থাপনকরী উদ্যোগ নিয়ে প্রশংসিত হয়েছেন লাল সবুজের কিংবদন্তি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রেখে এবার দাঁড়ালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তালিকাভুক্ত ঢাকা মেট্টোর ক্রিকেট একাডেমির কোচদের পাশে।

করোনার প্রাদুর্ভাবে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে নিজের ১৬ বছরের প্রিয় ব্রেসলেট নিলামে তুলেছেন কিংবদন্তি অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মুর্তজা! নিলামে ৪২ লাখ টাকায় ওঠে প্রিয় সেই ব্রেসলেট। সেই অর্থের একাংশ উপহার হিসেবে দেওয়া হল বিসিবি’র তালিকাভুক্ত ঢাকা মেট্রো ক্রিকেট একাডেমির কোচদের।

মঙ্গলবার (২ জুন) ধানমন্ডি আবাহনী মাঠে মাশরাফীর এই উপহার নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে তুলে দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ও নড়াইলের কৃতি সন্তান ড. কে এম সালাউদ্দিন, নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের আমিরুল ইসলাম ইকবাল, সৈয়দ সুলতান আবেদিন ও আব্দুল্লাহ আল জাবের। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট একাডেমি কোচেস এসোসিয়েশনের সভাপতি কাজী আনোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ রাজ। বিজ্ঞাপন

এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড.সালাউদ্দিন বলেন, আমরা ক্লাসে ছাত্রদের পড়াই আর মাঠে ক্রিকেটারদের প্রশিক্ষণ দেয় এই কোচেরা। ক্রিকেট মাঠের শিক্ষক যে কোচেরা, আজ তাদের দুর্দিনে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে মানবিকতার এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ক্রিকেটার মাশরাফি। তিনি প্রমাণ করলেন তিনি ক্রিকেট মাঠকে কতোটা ধারণ করেন। নড়াইলের একজন সন্তান হিসেবে এখানে উপস্থিত হতে পেরে ভাল লেগেছে।

ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসটিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্রেসলেট বিক্রি করে পাওয়া মোট অর্থের ২৫ লক্ষ টাকা ব্যয় হবে নড়াইলের জন্য। আর ১৫ লক্ষ টাকা ব্যয় হবে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের তত্ত্বাবধানে মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে, ডাকসুর মাধ্যমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অসচ্ছলতা শিক্ষার্থীদের সহায়তায়, ঢাকা শহরের ক্রিকেট কোচের আর্থিক সহায়তায় ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন ও বিনামূল্যে রক্ত দাতাদের সংগঠনের উন্নয়নে।

এদিন মোট ৮২ জন কোচের মাঝে প্রতিজনকে ৩ হাজার টাকা করে উপহার দেওয়া হয়। এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের সহায়তার জন্য ১ লক্ষ টাকা পৌঁছে দেওয়া হয় ডাকসু'র কাছে।

করোনাকালে যেন সাক্ষাৎ এক দেবদূত হিসেবে আবির্ভুত হয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। করোনায় সৃষ্ট স্থবির অর্থনীতিতে নড়াইলের প্রায় ১২শ দুস্থ মানুষের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন লাল সবুজের ক্রিকেটের জীবন্ত এই কিংবদন্তী। কখনো বা নিজেই তাদের জন্য খাবার হাতে ছূটে গেছেন। নজড় এড়ায়নি জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ থেকেও। সদর হাসপাতালের প্রবেশ দ্বারেই নিজ উদ্যোগে স্থাপন করেছেন জীবাণুনাশক কক্ষ। চিকিৎসকদের সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে ওই হাসাপাতালেই স্থাপন করেছেন, ‘ডক্টেরস সেফটি চেম্বার।’ পিপিই, হ্যান্ড স্যানিজার যখন যা প্রয়োজন হচ্ছে দিয়েছে। সবশেষ জেলার কৃষকদের ধান কাটার কাজ সহজতর

করতে কিনে দিয়েছেন চারটি হারভেস্টিং মেশিন।

সারাবাংলা/এমআরএফ/জেএইচ


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর