ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

দেশে ৫ কোটির মতো মধ্যবিত্তরা তো হাত পাততে পারবে না: এনামুল

২০২০ এপ্রিল ০৭ ১৬:৩২:২১
দেশে ৫ কোটির মতো মধ্যবিত্তরা তো হাত পাততে পারবে না: এনামুল

মরণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। যার প্রতিরোধে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সবকিছু। স্কুল-কলেজ বন্ধ হওয়ার পর অফিস-আদালতও বন্ধের পথে। যানবাহন, রিক্সা, সহ সবকিছু বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

কিন্তু যারা সাধারণ মানুষ, দিনে আনে দিনে খাই, তাদের কি হবে? তারা কিভাবে চলবে? এমন চিন্তায় আছেন ক্রিকেটার এনামুল হক বিজয়।

বর্তমান দেশের এমন পরিস্থিতি সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়তে হচ্ছে মধ্যবিত্তদের।

তারা দিনে এনে দিনে খাই। কিন্তু এখন রোজগারের সকল উৎস বন্ধ অবস্থায় ঘরবন্দী জীবন-যাপন করতে হচ্ছে তাদের। গরীবদেরকে সরকার, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন সহ অনেক মানুষ তাদের পাশে দাঁড়ানোর মত আছে।

কিন্তু মধ্যবিত্তরা তো কারো কাছে হাত পাততেও পারবে না। মুখ ফুটে সাহায্যের কথাও বলতে পারবে না। তাদের পাশে কে দাঁড়াবে? এমন আক্ষেপ নিয়ে বিজয় বলেন;“যারা ধনী তাদের সংখ্যা খুব বেশি নয়।

তারা কিন্তু চলতে পারবে। আবার দরিদ্রর সংখ্যা বেশি হলেও তাদের পাশে দাঁড়ানোর মানুষ আছে। সরকার থেকে শুরু করে কেউ না কেউ তাদের দিচ্ছে। কিন্তু ৪ থেকে ৫ কোটির মতো মধ্যবিত্ত, তাদের কি হবে?

তারা তো কারো কাছে হাত পাততে পারবে না। মুখ ফুটে সাহায্যের কথা বলতেও পারবে না। তাদের পাশে কে দাঁড়াবে? তাদের কথা কেউ ভাবছে বলেতো আমার মনেও হয় না। তবে বিজয় বাসায় বসে নেই।

স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে রিকশায় ঘুরে ঘুরে ১০০ পরিবারকে সহায়তা করেছেন। শেষ প্যাকেটা যখন দেন তখন তার মনে হয়েছে আরো অনেককে দেয়া বাকি। বিজয় দান করার সময় ও দেখেছেন অনেক মানুষ অপেক্ষায় আছে।

আর এই সবার এগিয়ে আসা উচিত। এ বিষয়ে উইকেটকিপার এই ব্যাটসম্যান আরও বলেন;“আমারা তো খেয়ে-পরে চলতে পারবো। কিন্তু যারা দিন আনে দিন খায়, তাদের দুরবস্থা ভাবা যায় না।

আমি আর আমার স্ত্রী মিলে রিকশায় ঘুরে ঘুরে ত্রাণ দিয়েছি এমন পরিবারগুলোর মঝে। ১০০টি পরিবারকে দিতে পেরেছি। শেষ প্যাকেটা যখন দেই তখন মনে হয়েছে আরো অনেককে দেয়া বাকি। শেষ ত্রাণটা দিতে গিয়ে দেখেছি আরো কত মানুষ অপেক্ষায় আছে।


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর