ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

পিটারসেনের কথায় সাহস পেতে পারে বিসিসিআই

২০২০ এপ্রিল ০৪ ২৩:২৮:১৩
পিটারসেনের কথায় সাহস পেতে পারে বিসিসিআই

এই সময়টাতে চার-ছক্কার আনন্দে মেতে থাকার কথা ছিল ভারতীয় ক্রিকেটের। আইপিএলের এবারের আসর শুরু হওয়ার কথা ছিল গত ২৯ মার্চে। ঠিক সময়ে শুরু হলে এতোদিনে কয়েকটা ম্যাচ শেষ হয়ে যেতো। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রদুর্ভাবে সব ভেস্তে গেছে।

বিজ্ঞাপন আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে আইপিএল। কিন্তু সেই সময়ে তো নয়ই এবারের আইপিএল আদৌ মাঠে গড়াবে কিনা তা নিয়ে শঙ্কা। কারণ করোনার প্রভাবে খেলা স্থগিত হয়ে পড়ার কারণে আন্তর্জাতিক সূচিতে বড় জটলা লেগে যাচ্ছে। এর মধ্যে নতুন সময়ে আইপিএল আয়োজনকে অসম্ভব বলে মনে করছেন অনেকে। বিষয়টি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইকে যে বড় দুশ্চিন্তায় ফেলেছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

ধারণা করা হচ্ছে, আইপিএল না হলে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি হবে বিসিসিআইয়ের। এদিকে, অনিশ্চয়তার মধ্যে আশার বাণী শোনালেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক কেভিন পিটারসন। বিজ্ঞাপন পিটারসেন বলছেন তার দৃঢ় বিশ্বাস আইপিএল হবে, ‘জুলাই-আগস্টে আইপিএল হতে পারে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস আইপিএল হবে। আমার মনে হয় আইপিএল দিয়েই ক্রিকেটের নতুন মৌসুম শুরু হবে। বিশ্বের প্রত্যেকটি খেলোয়াড় আইপিএল খেলতে মুখিয়ে আছেন।’

আইপিএল বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করলেও ইংলিশ তারকা এই মুহূর্তে খেলা দেখার চিন্তা বাদ দিতে বলেছেন ক্রিকেটভক্তদের। ইংলিশ আধিনায়ক বলেন, ‘আমি মনে করি এই মুহূর্তে দর্শকদের ঝুঁকি নেওয়া ঠিক হবে না। তাদের বোঝা উচিত তারা খেলা দেখতে পারবে না এবং বেশ কিছুদিন তাদের সরাসরি খেলা দেখা থেকে দূরে থাকতে হবে।’

পিটারসেন জুলাই-আগস্টের কথা বললেও ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি, আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে আইপিএল আয়োজনের কথা ভাবছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ওই সময়টাতে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে সেই সময়ে আইপিএল আয়োজন করতে চায় বিসিসিআই। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে দেওয়ার জন্য আইসিসিকে নাকি অনুরোধও করে রেখেছ ভারতীয় বোর্ড!


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর