ঢাকা, শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬

করোনার দিনে হৃতিক-সুজানার পুনর্মিলন

২০২০ মার্চ ২৬ ১৭:৫৫:০৯
করোনার দিনে হৃতিক-সুজানার পুনর্মিলন

২০১৪ সালে যখন পাকাপাকিভাবে আইনি বিচ্ছেদ হয় হৃতিক রোশন ও সুজান খানের, অগনিত ভক্ত খুব মর্মাহত হয়েছিলেন। তবে বিচ্ছেদের পরেও হৃতিক ও সুজানের মধ্যে যে সুসম্পর্ক রয়েছে, তা বহুবার সামনে এসেছে। বিচ্ছেদের পর দুই ছেলের দায়িত্ব

চমৎকারভাবে ভাগ করে নিয়েছিলেন এই দম্পতি। বিচ্ছেদের পরও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রেখেছেন তাঁরা। সন্তানদের নিয়ে ঘুরে বেড়িয়েছেন পাহাড়ে, সমুদ্রে। কিন্তু করোনার সময়ে তো ঘর থেকে বের হওয়া মানা। তাহলে বাবা আর মাকে একসঙ্গে পাবে কীভাবে যমজ ভাই হৃহান ও হৃদান।

সেই সমাধান দিতেই হৃতিকের বাসায় এসে উঠেছেন সুজান খান। আর সে জন্য সাবেক স্ত্রীকে ধন্যবাদ আর কৃতজ্ঞতা জানাতে ভোলেননি এই বলিউড তারকা। তাঁর বাড়িতে সুজান খান বিছানায় বসে চা-কফি পান করছেন, এমন একটি ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন হৃতিক রোশন। সুখী হৃতিক ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আমি ভাবতেও পারিনি এমনটা ঘটবে। এই চরম অনিশ্চয়তার দিনে, অন্তত কয়েক সপ্তাহের লকডাউনে দুই সন্তানের অভিভাবক হিসেবে আমি অত্যন্ত খুশি।

আমার সন্তানদের মা করোনার ভয়ংকর পরিস্থিতিতে মানবিকতার দুর্দান্ত উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন। সন্তানদের সঙ্গ দিতে একই বাড়িতে থাকছেন তিনি। তাঁর এই সহযোগিতার জন্য আমি অত্যন্ত কৃতজ্ঞ। আমার সন্তানেরা ভবিষ্যতে গর্ব করে বলার মতো গল্প পেল। ধন্যবাদ সুজান, ভালোবাসা, সহমর্মিতা, সাহস, শক্তি আর উদারমনের এই উজ্জ্বল উদাহরণ সৃষ্টির জন্য।’ এই স্ট্যাটাসের নিচে চার হাজার তারকা ও ভক্ত সাধুবাদ জানিয়েছেন।

আর মাত্র তিন ঘণ্টায় সাড়ে সাত লাখের বেশি লাইক পড়েছে। এর মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর আবারও এক ছাদের নিচে থাকবেন হৃতিক রোশন, সুজান খান ও তাঁদের দুই সন্তান। হৃতিক ও সুজানের বিয়ে হয়েছিল ২০০০ সালে। সেই বছর বলিউডে হৃতিকের যাত্রা হয় ‘কহো না প্যায়ার হ্যায়’ ছবি দিয়ে। ছবি মুক্তি পাওয়ার পরপরই বিয়ে হয় এবং স্বাভাবিকভাবেই বহু তরুণীর হৃদয় ভেঙে দেন সদ্য ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখা নায়ক। ওদিকে ফিল্মি পরিবারের মেয়ে হয়েও সুজান কিন্তু কখনোই অভিনয়কে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিতে চাননি।


বলিউড এর সর্বশেষ খবর

বলিউড - এর সব খবর