ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬

অনুরোধ করছি , শহরগুলো দয়া করে লকডাউন করুন

২০২০ মার্চ ২৫ ০৮:৪৪:৪৮
অনুরোধ করছি , শহরগুলো দয়া করে লকডাউন করুন

পাকিস্তানে করোনাভাইরাস থাবা বসিয়েছে। সংক্রমণ রুখতে সরকার নানা পদক্ষেপ নিলেও দেশের মানুষ এনিয়ে নির্বিকার। তাদের এমন আচরণে একই সঙ্গে হতভম্ব আর হতাশ পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতার। করোনাভাইরাসকে হেলাফেলা করার পরিণতি অনেক ভয়ঙ্কর হবে সতর্ক করলেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস। এপর্যন্ত কোভিড-১৯ রোগে পাকিস্তানে আক্রান্ত প্রায় ৯০০ জন, মারা গেছেন ছয়জন। সংক্রমণ রুখতে কয়েকটি প্রদেশ লকডাউন করা হতে পারে। মোতায়েন করা হয়েছে সেনাবাহিনী। ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান রেলওয়ে।

কিন্তু জনগণের সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। কয়েক ঘণ্টার জন্য শহরে বের হয়ে এক আশঙ্কাজনক অভিজ্ঞতা হলো শোয়েবের, ‘আজ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য বাইরে গিয়েছিলাম আমি। কারও সঙ্গে হাত মেলায়নি কিংবা আলিঙ্গনও করিনি। পুরোটা সময় আমার গাড়ির জানালা বন্ধ ছিল এবং দ্রুত বাসায় ফিরেছি। কিন্তু বাইরে আমি খুবই উদ্বেগজনক পরিস্থিতি দেখলাম। এক বাইকে চারজনকে দেখলাম, তারা পিকনিকে যাচ্ছিল। একসঙ্গে অনেকে বাইরে খাবার খাচ্ছে, অন্য জায়গায় বেড়াতে যাচ্ছে। এখনও কেন রেস্টুরেন্ট খোলা, বন্ধ হচ্ছে না কেন?’

করোনা মোকাবিলায় ভারতের প্রচেষ্টাকে উদাহরণ দিলেন শোয়েব, ‘ভারতে লোকজন কারফিউর মধ্যে ছিল। আর পাকিস্তানে আমাদের ঘোরাঘুরি থামছে না। ৯০ শতাংশ করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হচ্ছে মানুষের সংস্পর্শে, তারপরও আমরা ঘরে থাকছি না। কী করছি আমরা? এটা বিপজ্জনক, মনে হচ্ছে আমরা জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছি।’

দেশে লকডাউন ঘোষণা করতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে অনুরোধ করলেন সবচেয়ে দ্রুতগতির বলের রেকর্ডধারী, ‘এটা (করোনাভাইরাস) যে কতটা ভয়ঙ্কর, আমরা তা বুঝতেই পারছি না। গরমে এটা ছড়ায় না কিংবা তরুণরা সংক্রমিত হয় না, এমন পৌরাণিক কথায় বিশ্বাস করবেন না। আমি পাকিস্তান সরকারকে কঠোর পদক্ষেপ নিতে এবং লকডাউন ঘোষণা করতে অনুরোধ করছি। শহরগুলো দয়া করে লকডাউন করুন। আগেভাগে লকডাউন না করে ইতালি বিশাল ভুল করেছিল। ওখানে প্রত্যেক দিন মানুষ মারা যাচ্ছে।


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর