ঢাকা, রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০, ২৮ আষাঢ় ১৪২৭

সিদ্ধান্তহীনতা : ঢাকায় থাকবে নাকি গ্রামের বাড়ি চলে যাবে টাইগাররা

২০২০ মার্চ ১৯ ১৩:১৯:৪০
সিদ্ধান্তহীনতা : ঢাকায় থাকবে নাকি গ্রামের বাড়ি চলে যাবে টাইগাররা

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে বন্ধ হয়ে আছে পুরো দেশের ক্রীড়া ইভেন্ট। স্থগিত করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ। তবে তৃতীয় রাউন্ড থেকে ফের খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা নিয়েও এখন অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। তাই ক্রিকেটাররাও আছেন সিদ্ধান্তহীনতায়। ঢাকায় থাকবেন নাকি গ্রামের বাড়িতে চলে যাবেন সে সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না তারা। কারণ সিডিউল অনুযায়ী আগামী কয়েকদিনের মধ্যে শুরু হওয়ার কথা তৃতীয় রাউন্ডের খেলা। কিন্তু পরিস্থিতি দেখে যা মনে হচ্ছে তাতে তৃতীয় রাউন্ডও স্থগিত রাখার সম্ভাবনা রয়েছে।

আগামীকালই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানানোর কথা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)।এদিকে খেলা বন্ধ থাকায় মিরপুর স্টেডিয়াম প্রাঙ্গনে ক্রিকেটারদের তেমন আনাগোনা নেই। তারপরও বুধবার মিরপুর একাডেমি মাঠ আর জিমনেশিয়ামে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে পাওয়া গেল। এরমধ্যে মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ রাহি, ইবাদত হোসেন ও মেহেদি হাসান মিরাজ ছিলেন।

এদিন তারা নিজেদের ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে এসেছিলেন। তবে মোস্তাফিজুর রহমান এসেছিলেন বোলিং নিয়ে কাজ করতে। এরই ফাঁকে পরিচিত এক সাংবাদিকের কাছে জানতে চান খেলা আদৌ শুরু হবে কিনা? না শুরু হলে বাড়ি চলে যেতে চান তিনি। পেসার আবু জায়েদ রাহি জানালেন লিগ শুরু না হলে তিনিও বাড়ি চলে যেতে চান।

রাহি জানান, আগে অতটা ভয় লাগেনি। তবে এখন নাকি তার ভয় লাগছে। খেলা শুরু না হলে সিলেটে নিজ বাড়িতে চলে যেতে চান। কিন্তু বিসিবি থেকে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত না জানানোয় কি করবেন কা বুঝতে পারছেন না। আবার ঢাকায় থাকারও কোনো কারণ দেখছেন না। তারমতো সিলেটের আরো দুই পেসার খালেদ আহমেদ ও ইবাদত হোসেনেরও একই চিন্তা।

তবে এদিক দিয়ে কিছুটা ব্যতিক্রম তাইজুল ইসলাম। খেলা শুরু না হলেও তার বাড়িতে যাওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই। কুষ্টিয়ার নিজ বাড়ি নয়, বরং এই সংকটময় পরিস্থিতিতে ঢাকায় থাকাটাকেই উত্তম মনে করছেন তিনি। তাইজুলের মতে, চিকিৎসার দিক চিন্তা করলে ঢাকাতেই ভালো। তাছাড়া ফিটনেস নিয়েও টুকটাক কাজ করা যাবে।


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর