ঢাকা, বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

গানের ভিডিও থাকতেই হবে এমন কোনো কথা নেই: হাবিব

২০২০ মার্চ ১৩ ১২:০১:২৫
গানের ভিডিও থাকতেই হবে এমন কোনো কথা নেই: হাবিব

হাবিব ওয়াহিদ। তারকা কণ্ঠশিল্পী ও সংগীত পরিচালক। সম্প্রতি তার ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করেছেন নতুন গান 'শীতল স্পর্শ'। ভিডিও ছাড়াই গান প্রকাশ, বর্তমান ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গে গল্পনির্ভর ভিডিও দিয়ে গান প্রকাশ

করছেন অনেক দিন ধরে। এবার হঠাৎ ভিডিও ছাড়াই গান প্রকাশ করলেন, কারণ কী? গান মানুষ শোনে, অনুভব করে, যা মনের পর্দায় কিছু স্মৃতি তুলে ধরে। তাই গানের ভিডিও থাকতেই হবে- এমন কোনো কথা নেই। গানের প্রকাশনা ইউটিউবনির্ভর হওয়ার পর থেকে ভিডিও নির্মাণের দিকে সবাই ঝুঁকে পড়েছেন। গান তাই শোনার পাশাপাশি দেখার বিষয় হয়ে উঠেছে অনেকের কাছে। কিন্তু লিরিক্যাল ভিডিও অনেকে প্রকাশ করছেন, শ্রোতার সাড়াও পাচ্ছেন। এ জন্য এবার আমিও 'শীতল স্পর্শ' গানের ভিডিও না করে অডিওতে প্রকাশ করলাম। যেহেতু নিজের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করা হয়েছে, তাই লিরিক্যাল ভিডিও হিসেবে এর প্রকাশ। তিন সপ্তাহ আগে 'হারালে কোথায়' গানের ভিডিও প্রকাশ করেছেন। কোনো উৎসব ছাড়াই এত অল্প সময়ে আরেকটি গান প্রকাশ করার কারণ? শ্রোতারা সবসময় নতুন কিছু চান। গান প্রকাশের জন্য লম্বা বিরতি নিতে হবে, এ রকম কোনো বিধিনিষেধ নেই। আর উৎসব ছাড়া কোনো মাসে একাধিক গান প্রকাশ করা যাবে না বা করব না- এ কথাও কখনও বলিনি। এটা ঠিক, যে ধরনের পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করি এবং ভালো কিছু করার চেষ্টায় বাড়তি সময় নিতেই পারি। কিন্তু গান বা অ্যালবাম প্রকাশের জন্য বড় একটা বিরতি নিতে হবে- এটা আমি মানি না। বেশ কিছু গানের কাজ করছিলাম, যেগুলো একে একে প্রকাশ করার পরিকল্পনা ছিল। তাই 'হারালে কোথায়' গানের পর মনে হলো আরেকটি গান প্রকাশ করা যেতে পারে। সেই ভাবনা থেকেই 'শীতল স্পর্শ' গানটি প্রকাশ করা। 'হারালে কোথায়' গান এবং ভিডিও অনেকের প্রশংসা কুড়িয়েছে। 'শীতল স্পর্শ' গানটি নিয়েও প্রত্যাশা কি একই রকম? শ্রোতাদের ভালো লাগবে- এমন প্রত্যাশা নিয়েই তো সব কাজ করি। কিন্তু সব গানই একই রকমভাবে শ্রোতার হৃদয় স্পর্শ করবে- এটা নিশ্চিত করে বলা যাবে না। কারণ একেকজনের ভালোলাগা একেক রকম। এটা জেনেই আমরা যারা শিল্পী ও মিউজিশিয়ান, তারা কাজ করে যাই। চেষ্টা করেছি, গায়কিতে নিজস্বতা ধরে রেখে ভিন্ন ধাঁচের সংগীতায়োজনে 'শীতল স্পর্শ' গানটি তৈরি করার। আলী বাকের জিকোর গীতিকথা পড়ে মনে হয়েছে, এই গানের জন্য মেলোডি সুর মানানসই হবে। তাই আরও একবার সুর-সংগীতের জন্য মেলোডিকেই বেছে নিয়েছি। এখন গান শুনে শ্রোতারা যদি বলেন, এমন কিছুই তাদের প্রত্যাশা ছিল, তাহলেই সৃষ্টির আনন্দ খুঁজে পাব। নতুন শিল্পীদের নিয়ে বেশ কিছু গান করেছেন। আগামীতেও তাদের নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা আছে? এইচডব্লিউ চ্যানেলে শুধু নিজের গাওয়া গান নয়, সুর এবং সংগীতায়োজনের কাজগুলো তুলে ধরতে চাই। সে কারণেই নতুন শিল্পীদের গান প্রযোজনা শুরু করেছিলাম। লিজা, পড়শী, সালমার জন্য গান তৈরি করেছি। অনেকে সে গানগুলো ভালো লেগেছে বলেও জানিয়েছেন। তাই ধারাবাহিকভাবে আরও কিছু কাজ করার ইচ্ছা আছে। তরুণদের নিয়ে কিছু করতে নিজেরও ভালো লাগে।


সঙ্গীত এর সর্বশেষ খবর

সঙ্গীত - এর সব খবর