ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬

জিম্বাবুয়েকে ধবল ধোলাইর হুংকার সাইফ উদ্দিনের

২০২০ ফেব্রুয়ারি ২৭ ১৯:১৮:২৭
জিম্বাবুয়েকে ধবল ধোলাইর হুংকার সাইফ উদ্দিনের

নাঈম হাসানের স্পিন ঘুর্ণি ও মুশফিক-মুমিনুলের ব্যাটে মাত্রই শেষ হওয়া একামাত্র টেস্টে চিড়ে চ্যাপ্টা হয়েছে জিম্বাবুয়ে। পাঁচ দিনের ম্যাচটি ক্রেইগ আরভিনরা হেরে বসেছে চতুর্থ দিনের দুই সেশন বাকি থাকতেই। সাদা পোষাকের পর এবার ওয়ানডেতেও একই দাপটে জিততে চাইছে স্বাগতিক

বাংলাদেশ। আর এই ক্ষেত্রে তাদের আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে ওয়ানডেতে দলটির বিপক্ষে নিজেদের ধারাবাহিক দাপুটে পারফরম্যান্স। বিজ্ঞাপন ৫০ ওভারের ক্রিকেটে রোডেশিয়ানরা বাংলাদেশের বিপক্ষে সবশেষ জয়ের মুখ দেখেছিলে সেই ২০১৩ সালে। জিম্বাবুয়ে সফরে মুশফিকুর রহিমরা তিন ম্যাচ সিরিজের ওয়ানডে হেরেছিল ২-১ ব্যবধানে। কিন্তু ওই শেষ। এরপর আর একটি ম্যাচেও লাল সবুজের বিপক্ষে জয়ের মুখ দেখেনি আফ্রিকার এই দেশটি।

সেই পরিসংখ্যানই ১ মার্চ থেকে সিলেটে শুরু হতে যাওয়া ওয়ানডে সিরিজে ডমিঙ্গো শিষ্যদের হোয়াইটওয়াশ করার জ্বালানি যোগাচ্ছে বলে হুঙ্কার দিলেন দলের পেস বোলিং অল রাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) মিরপুর জাতীয় ক্রিকেট একাডেমিতে তিনি এমনটিই জানালেন। বিজ্ঞাপন প্রত্যয়ী সাইফ উদ্দিন বলেন, ‘অবশ্যই হোয়াইটওয়াশ সম্ভব। তুলনামূলকভাবে আমরা জিম্বাবুয়ের থেকে অনেক এগিয়ে।

মাঠের পারফরম্যান্সের দিক থেকে, টেস্টে ভালো করেছি। ওয়ানডেতেও শেষ করেকবারের দেখায় ধবলধোলাই করেছি। আমরা আশাবাদী ধবলধোলাই করতে পারব। তবে ক্রিকেট খেলা, কিছুই কিন্তু বলা যায় না।’ লাল সবুজের জার্সিতে সাইফ উদ্দিনকে সবশেষ দেখা গিয়েছিল গেল বছরের সেপ্টেম্বরে। ঘলের মাঠে আফগানিস্তান ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলেছিলেন ক্রিদেশীয় সিরিজ। সেই সিরিজেই পিঠের পুরোনো ব্যথা ফিরে এলে বাদ পড়েন ভারত সিরিজ থেকে।

খেলা হয়নি বিপিএল আর পাকিস্তান সিরিজেও। বিসিবি মেডিক্যাল বিভাগের ছাড়পত্র নিয়ে মাঠে ফিরেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ দিয়ে। নর্থ জোনের হয়ে খেলা এই পেসার বল হাতে খুব একটা ছন্দে ছিলেন না। তবে আশা করছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জ্বলে উঠবেন। ‘আমি সম্পূর্ণ ছাড়পত্র পেয়েছি মেডিকেল টিম থেকে। এখন আমার কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। বিসিএল খেলেছিলাম, সেখানে একটু বাঁধাধরা নিয়ম ছিল। এক ইনিংসে ৮ ওভার করব।

সেটা দুই সপ্তাহ হয়ে গেছে। এখন আশাকরি শতভাগ গিয়ে খেলতে পারব।’ ওয়ানডেতে দুই দলের ৭২ বারের মোকাবেলায় ৪৪বারই জিতেছে বাংলাদেশ। কিন্তু তারপরেও সতর্ক সাইফ উদ্দিন। মনে করিয়ে দিলেন, জিম্বাবুয়েকে খাটো করে দেখার উপায় নেই। ‘জিম্বাবুয়েকে খাটো করে দেখার কিছু নেই। ইংল্যান্ডের মতো দলও কিন্তু নেদারল্যান্ডসের কাছে হেরেছিল টি-টোয়েন্টিতে।

এসব তো জোর গলায় বলা কঠিন। তবে আমরা ধবল ধোলাই এর লক্ষ্য নিয়েই খেলব।’ ১ মার্চ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে দুই দল। দ্বিতীয় ম্যাচটি ৩ মার্চ। আর তৃতীয় ও শেষটি ৬ মার্চ।


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর