ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬

কতটা ভালোবাসা পেল গানগুলো

২০২০ ফেব্রুয়ারি ১৮ ১৫:০০:৩৮
কতটা ভালোবাসা পেল গানগুলো

ভালোবাসা দিবসে প্রকাশিত হয়েছে একগুচ্ছ নতুন গান। এগুলো আসবে বলে যেভাবে জানান দেওয়া হয়েছিল, প্রকাশের পর দেখা গেল, তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি। গানগুলো নিয়ে না হয়েছে আলোচনা, না হয়েছে বিনিময়। যদিও মানুষকে স্পর্শ করার মতো বিনোদনের

উপাদানগুলো ফেসবুকে ভাগাভাগি করার রেওয়াজ তৈরি হয়েছে। এ গানগুলোর ক্ষেত্রে সে রকমটিও দেখা যায়নি। এমনও হয়েছে, আসবে বলে খবর ছড়িয়েও আসেনি অনেক শিল্পীর ভালোবাসা দিবসের গান। নানা কারণে হয়তো শেষ পর্যন্ত বাজার উপযোগী করে তুলতে পারেননি প্রযোজকেরা। তবে মিউজিক ভিডিও, লিরিক ভিডিও বা কেবলই অডিও আকারে বেশ কিছু গান প্রকাশিত হয়েছে সংগীত প্রযোজনা সংস্থা ও শিল্পীর ইউটিউব চ্যানেলে। সিএমভি, ধ্রুব মিউজিক স্টেশন, জি সিরিজ, সিডি চয়েজ, গানচিল, লেজার ভিশনসহ বেশ কজন শিল্পীর চ্যানেল ঘুরে দেখা গেছে,

প্রকাশের ৩ থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত গানগুলো খুব বেশি দেখা বা শোনা হয়নি। তিন দিন আগে প্রকাশিত হয়েছে ‘মেঘ’ শিরোনামে কোনালের গানের ভিডিও। এ পর্যন্ত সেটি দেখা হয়েছে ১ লাখ বারের বেশি। ছয় দিনে তানজিব সরোয়ারের ‘ডুবে ডুবে’ গানটি দেখা হয়েছে ৭ লাখ ৪৭ হাজার বার। তাহসান খান ও সুস্মিতা আনিসের ‘স্মৃতির ফানুশ’ সাত দিনে আড়াই লাখ বার দেখা হয়েছে, ইমরান ও বৃষ্টির ‘বায়না’ দেখা হয়েছে ৫ লাখ ৬৪ হাজারের বেশি বার। তেরো দিনে ইমরান ও পূজার ‘তুমি শুধু আমার’ দেখা হয়েছে ৬ লাখ বার, হাবিব ওয়াহিদের ‘হারালে কোথায়’ ৫ দিনে দেখা হয়েছে সাড়ে ৩ লাখ বার।

গান দেখার প্রবণতা কি কমে গেছে? প্রযোজনা সংস্থা সিএমভির কর্ণধার শেখ শাহেদ আলী বলেন, ‘দর্শক কতবার গান দেখেছেন, সেটা অনেক ক্ষেত্রেই নির্ধারিত হয় ইউটিউব ভিউর ওপর। অবশ্য ইউটিউব তাদের ভিউ গণনায় নতুন নিয়ম এনেছে, যাতে আগের মতো খুব বেশি ভিউ দেখা যাবে না।’ ভালোবাসা দিবসে দর্শকের বেশি আগ্রহ ছিল নাটকের প্রতি। এমন দাবি করে তিনি বলেন, ‘ভালোবাসা দিবসে মানুষ নাটকের ব্যাপারে বেশি আগ্রহী থাকে। তাঁদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে আমরা ভালোবাসা দিবসে কিছু নাটক প্রকাশ করেছি। সেগুলোর সাড়াও বেশ ভালো।’ ভালোবাসা দিবসকে উপলক্ষ করে ‘প্রজাপতি মন’ গেয়েছেন কিশোর ও নিশিতা।

তিন দিনে সেটি দেখা হয়েছে ১৩ হাজার, কাজী শুভর ‘কতটা যে ভালোবাসি’ তিন দিনে ২০ হাজার, অবন্তি সিঁথির ‘আলোয় আলোয়’ ৫ দিনে ৫ হাজার, হৃদয় খানের ‘এই নিশি তোমার আমার’ ৪ দিনে ৫ হাজার বার দেখা হয়েছে। অন্যান্যের মধ্যে কর্ণিয়ার ‘হঠাৎ বৃষ্টি ছুঁয়ে’ ৭ দিনে ২৭ হাজার, সালমার ‘মনের কথা বলব’ ১৩ দিনে ২০ হাজার বার, তপুর ‘সাদা রঙের স্বপ্ন’ ১২ দিন দেখা হয়েছে ১২ হাজার বার। যদিও এই ‘ভিউ’ সংখ্যা দেখে গানের গ্রহণযোগ্যতা যাচাই করা যাবে না।

ভালোবাসা দিবসে প্রকাশিত গানগুলো যে ভালো হয়নি বা আলোচনায় আসেনি, এ নিয়ে ভিন্নমত পোষণ করেছেন শিল্পী ও সংগীত পরিচালক বাপ্পা মজুমদার। তিনি বলেন, ‘গানের বাজার নিয়ে আমরা সবাই বিহ্বল। আমার মনে হয়, কিছু গান নিশ্চয়ই ভালো হয়েছে। প্রচারের কমতির কারণে হয়তো সেটা মানুষের কাছে পৌঁছায়নি।’ তবে অনেকের মত, গানের কথা ও সুর যদি হৃদয় ছুঁত, তাহলে সেটা নিয়ে আলোচনা হতোই।


সঙ্গীত এর সর্বশেষ খবর

সঙ্গীত - এর সব খবর