ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬

‘আর সব করো, অভিনয় বাদে’

২০২০ ফেব্রুয়ারি ১৭ ০৯:০৫:১৬
‘আর সব করো, অভিনয় বাদে’

আয়ুষ্মান খুরানাকে বলা হচ্ছে বলিউডের ‘নেক্সট খান’। ভবিষ্যতের বলিউডে দাপটের সঙ্গে রাজত্ব করবেন তিনি। মেধা, উপস্থিত বুদ্ধি, পরিশ্রম আর সঠিক সিদ্ধান্ত তাঁকে বলিউডের সেরা অভিনেতাদের কাতারে এনে দাঁড় করিয়েছে। একটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও একাধিক ফিল্মফেয়ার

পুরস্কার পাওয়া ৩৫ বছর বয়সী এই অভিনেতা সাধারণত ভিন্নধর্মী সমাজ সচেতনতামূলক ছবি করেন। আর সেগুলোই তাঁকে দর্শক ও সমালোচক—এই দুই ভিন্ন শ্রেণির কাছ থেকেই এনে দিয়েছে ভূরি ভূরি প্রশংসা। এবার ‘আর্টিকেল ফিফটিন’–এ পুলিশের পোশাক চাপিয়ে সমালোচনা বিভাগে পেলেন সেরা অভিনেতার পুরস্কার। পুরস্কার হাতে বলেছেন, ‘কেউ ভাবেননি দর্শক আমাকে পুলিশের পোশাকে এভাবে গ্রহণ করবেন। যাঁরা আগে থেকেই সেটা দেখতে পেয়েছিলেন, বিশ্বাস করেছিলেন, তাঁদেরকে কৃতজ্ঞতা। এই পুরস্কার তাঁদের জন্য।’

আয়ুষ্মান খুরানার ব্যক্তিগত ও পেশাজীবন বিষয়ে ফিল্মফেয়ারের করা ৬টি প্রশ্ন নিয়ে এই আয়োজন: ১. আপনার কোন স্বভাবে বিরক্ত স্ত্রী তাহিরা কশ্যপ? আমি যখন কাজ করি, তখন ওই কাজে একেবারে ডুবে যাই। তখন ঘর, সংসার, স্ত্রী, সন্তান—কিচ্ছু থাকে না মাথায়। যখন একটু বিরতি পাই, তখনো স্ক্রিপ্ট নিয়ে ব্যস্ত থাকি। পরিচালক, প্রযোজকদের সঙ্গে একের পর এক মিটিং করি। তাই ও (তাহিরা কশ্যপ) চায়, আমি যেন বছরের একটা নির্দিষ্ট সময় ওর জন্য রাখি, সংসারে দিই, কিন্তু সেটা হয় না। যদি আমি ছুটিতেও থাকি, বেড়াতেও যায়, তখনো আমার মাথায় ঘোরে, এরপর কী কাজ করা যায়...এসবে বিরক্ত তাহিরা। ২. ভাই অপারশক্তি খুরানাকে নিয়ে একটা গোপন কথা বলুন। ও খুবই আবেগী। ওর প্রথম ভালোবাসা ফুটবল। ওর কাছে অভিনয় ফুটবলের পরে আসে।

৩. অভিনয় নিয়ে আপনার পাওয়া সবচেয়ে বাজে উপদেশ কী? রোডিশে বিজয়ী হওয়ার পর আমাকে একজন বলেছিল, ‘আর যা-ই করো, অভিনয় করো না। ওটা তোমার কম্ম নয়।’ শুনে আমি নিজেকে বললাম, ‘এসব কী বলে! আমি তো জীবনভর অভিনেতা হতেই চেয়েছি। অভিনেতা হতেই মুম্বাই এসেছি।’ ৪. কী ঘটলে বেশি বাজে হবে? ‘আন্ধাধুন’–এর মতো অন্ধ হয়ে গেলে, না ‘বালা’র মতো চুল পড়ে গেলে? আমি কোনো কিছু নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগি না। তবে হ্যাঁ, অন্ধ হয়ে গেলে তো আসলেই অসুবিধা। ৫. কী বেশি ভয় পান? বক্স অফিসের কম নম্বর না বাজে রিভিউ? আগে বক্স অফিস, তারপর সমালোচকেরা কী বললেন, সেটা আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

৬. এখন তো কমবেশি সব পরিচালকই তাঁর ছবিতে আপনাকে নিতে চান। আপনি কোন পরিচালকের সঙ্গে কাজ করতে চান? জোয়া আখতার (‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’, ‘লাস্ট স্টোরিজ’, ‘গোস্ট স্টোরিজ’, ‘গালি বয়’–এর নির্মাতা)


বলিউড এর সর্বশেষ খবর

বলিউড - এর সব খবর