ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬

প্রথমবারের মতো ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’

২০২০ জানুয়ারি ২৭ ১৯:৩৫:৩৬
প্রথমবারের মতো ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আয়োজিত হতে যাচ্ছে ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’। এই প্লাটফর্ম থেকে একজন নির্বাচিত হয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা নির্বাচিত সুন্দরীদের সঙ্গে ‘মিস আর্থ’-এর মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে অংশ নেবেন। স্বনামধন্য এই সুন্দরী প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের অংশগ্রহণ। নিয়ম অনুযায়ী

১৮ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে অবিবাহিত কোনো তরুণী এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন। নানা বিচার প্রক্রিয়া শেষে সেরা বিজয়ীকে আগামী সেপ্টেম্বরে ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলাতে পাঠানো হবে। সেখানে গ্রুমিং সেশনে অংশগ্রহণ শেষে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে আজ দুপুরে রাজধানীর রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মিস আর্থ বাংলাদেশের ন্যাশনাল ডিরেক্টর নায়লা বারী। তিনি জানান, মিস আর্থ একটি আন্তর্জাতিক মানের সুন্দরী প্রতিযোগিতা।

এখানে প্রতিপাদ্য হলো ‘Beauty for a cause’। মিস আর্থের উদ্দেশ্য হচ্ছে আর্থ আইকন দিয়ে পৃথিবীর প্রকৃতি, পরিবেশ ও আবহওয়া রক্ষার সচেতনতা গড়ে তোলা এবং বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণে উৎসাহিত করা। প্রতিযোগিতাটি জাতিসংঘের ‘এনভায়রনমেন্ট প্রোগ্রাম’-এর সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়া এর সহযোগী সংগঠনগুলো হলো UN, UNEP, UN Women, UNFPA, USAID, Plan। মিস আর্থ ২০১৯ প্রতিযোগিতায় ৯০টি দেশের সুন্দরীরা অংশ নিয়েছিলেন।

বর্তমানে সুন্দরীরা তাঁদের নিজ দেশে ও বিশ্বের বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক সংস্থার সাথে যুক্ত হয়ে প্রকৃতি রক্ষায় বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগে নিজেদের যুক্ত করে অবদান রাখছেন। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ থেকে শুরু হবে মিস আর্থ বাংলাদেশের নিবন্ধন। এটি চলবে পুরো ফেব্রুয়ারি জুড়ে। নিবন্ধনের জন্য (www.misserthbangladesh.com)- এই ঠিকানায় লগইন করতে হবে।

নিবন্ধন শেষে জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে প্রাথমিক বাছাই কার্যক্রম চলবে। মার্চ ও এপ্রিল মাসে বাছাই শেষে সারাদেশ থেকে সেমিফাইনালের জন্য ২১ জনকে নির্বাচিত করা হবে। নির্বাচিতদের মে মাসে ঢাকায় রেখে গ্রুমিং করা শেষে বাংলাদেশের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে দেওয়া হবে। এ ছাড়া এই প্রতিযোগিতায় থাকবে পরিবেশ রক্ষাবিষয়ক চলচ্চিত্র তৈরির প্রতিযোগিতা।

প্রসঙ্গত, অন্যান্য সুন্দরী প্রতিযোগিতায় মূল কথা থাকে সুশ্রী ও সপ্রতিভ মুখ এবং বুদ্ধিমত্তা। কিন্তু মিস আর্থ প্রতিযোগিতায় তিনিই অনন্য বিবেচিত হবেন, যিনি ওই গুণগুলোর পাশাপাশি প্রকৃতিকে রক্ষা নিয়ে ভাবেন এবং এ বিষয়ে কাজ করতে চান।

মিস আর্থ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী মনোনয়নের ক্ষেত্রে ৩০% পরিবেশ রক্ষাবিষয়ক নীতি সংক্রান্ত যোগ্যতা ও জ্ঞান, ৩৫% সৌন্দর্য, ২০% শারীরিক গঠন, ১৫% মনোভাবসহ অন্যান্য বিষয় বিবেচনা করা হয়, যা ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’ নির্বাচনের ক্ষেত্রেও বিবেচনা করা হবে। পুরো কার্যক্রমের আয়োজক ও লাইসেন্সপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান ট্রিপল নাইন গ্লোবাল।


সমকালীন এর সর্বশেষ খবর

সমকালীন - এর সব খবর