গানের ভুবনে অনুপ্রবেশ ঘটল নব্বইয়ের দশকের ঢাকাই ছবির অন্যতম জনপ্রিয় জুটি নাঈম ও শাবনাজের ছোট সন্তান মাহাদিয়ার। নিজের ইউটিউব প্ল্যাটফর্মে দুটি গানের ভিডিও প্রকাশ করেছেন মাহাদিয়া। মাহাদিয়ার কণ্ঠে গাওয়া গান দুটি হলো- নিউজিল্যান্ডের জনপ্রিয় গায়িকা লর্ডের রয়্যালসের একটি গান ও উপমহাদেশের প্রখ্যাত গায়িকা আশা ভোঁশলের গাওয়া ‘যেতে দাও আমায় ডেকো না’।

গানকে খুব ভালোবাসেন মাহাদিয়া। ছোটবেলা থেকেই শাস্ত্রীয় সংগীত ও গজলে তালিম নিচ্ছেন। নজরুলসংগীতের ওপরও ভালো দখল রয়েছে তার। তবে ইংরেজি গানের ওপর সবসময়ই আকর্ষণ অনুভব করেন তিনি। সে জন্য শুনে শুনেই ইংরেজি গান শিখেছেন বলে জানিয়েছেন মাহাদিয়া।

বাবা-মা ছিলেন সুপারহিট চিত্রতারকা। তাদের মতো অভিনয় জগতে না এসে গানের ভুবনে এলেন কেন প্রশ্নে মাহাদিয়া বলেন, ‘গানের বিষয়টি আমার বংশগত। আমার পরিবারের সবাই ভালো গান গায়। বিশেষ করে বাবা অনেক ভালো গান জানেন। দাদি আর ফুফুরাও দারুণ গায়। নামিরা আপু আমাকে এ বিষয়ে বেশ অনুপ্রাণিত করেছেন। এ ছাড়া বন্ধুদের থেকে অনেক প্রশংসা আর উৎসাহ পেয়েছি।’

ইংরেজি গান দিয়ে ইউটিউবে আত্মপ্রকাশ বিষয়ে মাহাদিয়া বলেন, ‘অ্যাডেল ও সেলিন ডিওন আমার অসম্ভব পছন্দের গায়িকা। তাদের গানগুলো গেয়ে গেয়েই মূলত অনুপ্রাণিত হয়েছি। ইংরেজি গান গেয়ে ইনস্টাগ্রামে প্রায়ই আপলোড করতাম। বন্ধুদের প্রশংসা পেয়েছি অনেক। বাবাও পছন্দ করতেন। সব মিলিয়ে গাওয়া হয়ে গেল আর কী।’

এদিকে ইউটিউবে মেয়ের গান প্রকাশ হওয়ায় অসম্ভব খুশি নাঈম ও শাবনাজ। এ বিষয়ে শাবনাজ জানান, ‘নাঈমের খুব ইচ্ছা- ছোট মেয়ে গান গাইবে। বলতে গেলে বাবার ইচ্ছাপূরণেই গান গাইল ও। সবার কাছে মেয়ের জন্য দোয়া চাই।’

শ্রোতাদের ভালোবাসা পেলে শিগগিরই মাহাদিয়ার কণ্ঠে সেলিন ডিওনের একটি গান ইউটিউবে প্রকাশ করা হবে বলে জানান শাবনাজ। নব্বইয়ের দশকে নাঈম ও শাবনাজ মানেই সুপারহিট সব সিনেমা। কিন্তু হঠাৎই সিনেমাকে না বলে দেন এ জনপ্রিয় জুটি। পুরোপুরি সংসারি হয়ে যান। এবার কণ্ঠের জাদু দেখাতে এলেন এ জুটির কন্যা মাহাদিয়া।

মাহাদিয়ার কণ্ঠে আশা ভোঁশলের গাওয়া ‘যেতে দাও আমায় ডেকো না’ কিংবদন্তি গানটি দেখুন