ইন্টারনেটের সার্বজনীনতা বাড়ার পাশাপাশি ক্রমে এতে বিচরণকারী শিশুদের সংখ্যাও বাড়ছে। আর এর প্রভাবে শিশুদের জন্য বিপদও ক্রমে বাড়ছে।

এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে গার্ডিয়ান।
সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের শিক্ষা বিভাগের পরামর্শক অ্যান্থনি স্মিথ জানান, ইন্টারনেট বর্তমানে শিশুদের জন্য খুবই বিপজ্জনক স্থানে পরিণত হয়েছে।
তবে ঠিক কী কারণে ইন্টারনেট বিপজ্জনক কিংবা ইন্টারনেটের কোন অংশটি বেশি বিপজ্জনক এমন প্রশ্নে এ বিষয়ে তিনি কিছুটা ব্যাখ্যাও করেছেন। তিনি জানান, অনলাইনে উত্তক্তের ঘটনা ক্রমে বাড়ছে এবং এ বিষয়ে আইনও অকার্যকর।
অনলাইনে উত্তক্তের ঘটনা বাড়ার পাশাপাশি বাড়ছে সেক্সটিং বা যৌনউত্তেজক ছবি ও লেখা ও অনলাইন আসক্তির ঘটনা। এর সবই শিশুদের জন্য বিপজ্জনক বিষয়। আর এ বিষয়গুলো ক্রমে বাড়ছে।
এ প্রসঙ্গে লন্ডন স্কুল অফ ইকনমিক্সের প্রফেসর সোনিয়া লিভিংস্টোন বলেন, ‘আমাদের সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, কাউকে উত্যক্ত করার ঘটনা একটা স্থিতিশীল পর্যায়ে রয়েছে। কিন্তু ইন্টারনেট ও মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করে এ ঘটনার সংখ্যা বাড়ছে। তবে খুব সামান্য সংখ্যক শিশুই এ বিষয়ে তথ্য প্রকাশ করে। ফলে ইন্টারনেট আইনবিহীন জঙ্গলে পরিণত হচ্ছে।’