ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬

ফাঁসির জন্য লোক ডেকে নিজের হাত-পা বাঁধান সালমান শাহ:ছটকু

২০১৯ সেপ্টেম্বর ০৭ ১৪:০৪:০০
ফাঁসির জন্য লোক ডেকে নিজের হাত-পা বাঁধান সালমান শাহ:ছটকু

‘ফাঁসির মঞ্চে সালমান শাহ ওঠার পর তার মাথায় আমি কালো কাপড় পরিয়ে দেই। কিন্তু সালমান তখন শট দিতে রাজি হয় না। আমাকে ডেকে বলে, আমার হাত-পা বেঁধে দিন; না হলে তো শটটা পারফেক্ট হবে না।

আমি তখন বললাম, হাত-পা বেঁধে গলায় দড়ি লাগালে যেকোনো দুর্ঘটনা হতে পারে। তার চেয়ে ভালো হয় তুমি হাত পেছনে রাখো-সেটা ক্যামেরায় দেখা যাবে না। কিন্তু সে কিছুতেই রাজি হলো না, নিজেই মানুষ ডেকে হাত-পা বাঁধিয়ে শট দিলো।’

ক্ষণজন্মা চিত্রনায়ক সালমান শাহর ‘সত্যের মৃত্যু নেই’ সিনেমার ফাঁসির মঞ্চের শুটিংয়ের সময়কার একটি ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কথাগুলো বললেন পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার ছটকু আহমেদ।

তিনি বলেন, ‘সালমান শাহ অসম্ভব রকমের শক্তিশালী একজন অভিনেতা ছিল। নিজের প্রতিটি চরিত্র সে শতভাগ পারফেক্ট করে করার চেষ্টা করত। ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালে একেবারে চরিত্রে ঢুকে যেত। এমন অভিনেতা খুব কম আসে।’

ছটকু আহমেদের লেখা ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ ছিল সালমান-শাবনুর জুটির প্রথম সিনেমা। তার পরিচালনায় ‘বুকের ভেতর আগুন’ সিনেমাতেও সালমান অভিনয় করেছিলেন। তবে সিনেমাটির ৩০ শতাংশ শুটিং বাকি থাকতেই পৃথিবী থেকে বিদায় নেন এই মেধাবী অভিনেতা।

‘সেদিন আমি টিভির সামনে বসে ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচ দেখছিলাম। আমার এক প্রযোজক বন্ধু কল দিয়ে সালমানের চলে যাওয়ার খবর দেয়। আমি প্রথমে বিশ্বাস করতে পারিনি। কারণ সালমানের মৃত্যুর খবর শোনার জন্য আমি একেবারে প্রস্তুত ছিলাম না। এমন গুণী একজন অভিনেতা এতো দ্রুত চলে যাবে? সেটা কোনোভাবেই মানতে পারছিলাম না। ‘বুকের ভেতর আগুন’ সিনেমার শুটিং বাকি ছিল। সিনেমাটির প্রযোজক ছিল আমার স্ত্রী মাসরুরাহ আহমেদ এপি। পরে ফেরদৌসকে দিয়ে সিনেমাটি শেষ করি’, যোগ করেন ছটকু আহমেদ।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর সালমান শাহ মৃত্যুবরণ করেন। ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৬ সাল, মাত্র তিন বছরে তিনি অভিনয় করেছেন ২৭টি সিনেমায়। প্রায় বেশিরভাগ সিনেমাই ব্যবসায়ীক সাফল্য পায়। ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ সিনেমার মাধ্যমে ঢালিউডে পা রেখেছিলেন তিনি।


মিডিয়া গসিপ এর সর্বশেষ খবর

মিডিয়া গসিপ - এর সব খবর