ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৬

বড় ধামাকা আসছে, অপেক্ষা করুন: শাকিব খান

২০১৯ মে ২৬ ০১:০৬:০৬
বড় ধামাকা আসছে, অপেক্ষা করুন: শাকিব খান

ঈদের ছবি ‘পাসওয়ার্ড’-এর তিনটি গানের শুটিং শেষ করে গতকাল শুক্রবার তুরস্ক থেকে দেশে ফিরেছেন শাকিব খান। তুরস্কের অনেকগুলো ঐতিহাসিক স্থানে শুটিং হয়েছে গানগুলোর। পাশাপাশি তাঁর নতুন আরেকটি ছবি ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবির একটি গানের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছে শাকিব-বুবলী জুটি। ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির গানগুলো নিয়ে দারুণ রোমাঞ্চিত শাকিব। এরই মধ্যে ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে জমা পড়েছে। তা ছাড়া এই ঈদে ‘নোলক’ নামে তাঁর অভিনীত আরেকটি ছবিরও মুক্তির কথা আছে, সে বিষয়েও কথা বলেছেন ঢাকাই ছবির এই জনপ্রিয় নায়ক।

তুরস্কে গানগুলোর শুটিং কেমন হলো?

খুবই ভালো। আমরা তুরস্কের ইস্তাম্বুল, আলাতোনিয়া, কাপাডোকিয়া, পামুকালের মতো ঐতিহাসিক জায়গায় শুটিং করেছি। ওই সব স্থানে এর আগে ঢাকার কোনো ছবির শুটিং হয়নি। গানগুলোর কোরিওগ্রাফি করেছেন ভারতের মুম্বাইয়ের বাবা যাদব। তাঁর কাজ নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। আমার বিশ্বাস, ছবি মুক্তির আগেই ইউটিউবে গানগুলো নিয়ে হইচই পড়ে যাবে। আমি নিজেই ইউটিউবে গানগুলো দেখার জন্য অস্থির হয়ে আছি।

ইউটিউবে কবে মুক্তি পাবে?
কয়েক দিনের মধ্যেই গানগুলো পর্যায়ক্রমে ‘শাকিব খান অফিশিয়াল’ ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত করা হবে। এটা আমার নিজের ইউটিউব চ্যানেল। প্রথমে ‘পাগল মন’ গানটা ছাড়বে। এরপর কয়েক ধাপে টিজার ট্রেলার ছাড়া হবে। অপেক্ষা করুন, বড় ধামাকা আসছে।

কেমন?
প্রায় চার বছর পর আমার নিজের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে ছবি বানিয়েছি। এর আগে ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’ যখন নির্মাণ করেছিলাম। সেই সময় সবচেয়ে ভালো ব্যবসা করেছিল ছবিটি। আর এবার তো আরও বাজেট, আরও যত্ন নিয়ে কাজ করেছি। যে মাপের ছবি হয়েছে, আশা করছি সিনেমাপ্রেমীরা এই ঈদে শুধু ‘পাসওয়ার্ড’-এর মধ্যেই থাকবেন। দেশে না, ছবিটি আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি দেওয়ার চেষ্টা করছি।

দেশের বাইরে কোথায় কোথায় মুক্তি দেবেন?
ইউরোপ, আমেরিকা আর মধ্যপ্রাচ্যের বাংলা ছবির পরিবেশকেরা যোগাযোগ করেছেন। তাঁরা ঈদের পরই বিভিন্ন দেশে ছবিটি মুক্তি দিতে চান।

শাকিব-বুবলী জুটির অন্য ছবিগুলো যেমন, তার সঙ্গে ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির কোনো পার্থক্য আছে?
এই ছবিটি একেবারেই আলাদা। কারণ গল্প নতুন। এক রহস্যজনক গল্পের মধ্যে ডুবে যাবেন দর্শক। প্রেক্ষাগৃহে বসে গল্পের বাঁকে বাঁকে দর্শক রোমাঞ্চিত হবেন। ছবিটি ঈদ উৎসবের মতো করে নির্মাণ করা হয়েছে। শুটিংয়ে কোথাও আপস করা হয়নি। আন্তর্জাতিক মানের ছবি হয়েছে এটি।

কিন্তু ঈদে আপনার অভিনীত আরেকটি ছবি ‘নোলক’ নিয়ে তো কিছু বলছেন না।
এটা কিন্তু মোটেও ঈদের ছবি নয়। আমি আগেও বলেছি, এখনো বলছি। ‘নোলক’ আমার অভিনীত ছবি। সেই ছবি দিয়ে একজন প্রযোজক ব্যবসা করবেন, সেটা আমিও চাই। কিন্তু ঈদে মুক্তি দিলে ছবিটি দর্শক দেখবেন না। লোকসান হবে প্রযোজকের। ঈদের ছবি ঈদকে মাথায় রেখে তৈরি করতে হয়।

‘নোলক’ বড় বাজেটের ছবি। ঈদের বাইরে মুক্তি দিলে ছবির প্রযোজককে লোকসান গুনতে হবে।
ভালো ছবির জন্য ঈদ লাগে না। ভালো ছবি চলচ্চিত্রের যুগ তৈরি করে। যুগ কখনো চলচ্চিত্র তৈরি করে না। তাই ভালো ছবি যেকোনো সময়ই দর্শক টানে। যেহেতু ‘পাসওয়ার্ড’ ঈদের ছবি। দেশে হলের সংখ্যা কম। যে হলগুলো সচল আছে, বেশির ভাগ হলেই ‘পাসওয়ার্ড’ মুক্তি পাবে। তাই ‘নোলক’-এর মতো বড় বাজেটের ছবি কিছু ছোট হলে মুক্তি দিয়ে লাভ কী? ঈদের পরে ভালো সময় দেখে মুক্তি দিলেই তো হয়।

আপনার অভিনীত ছবি মুক্তির আগে আপনাকে প্রচারণায় দেখা যায় না। নিজের প্রযোজিত ছবি ‘পাসওয়ার্ড’ নিয়ে কী পরিকল্পনা করছেন?
পরিকল্পনা তো আছেই। নিজের ছবির জন্য তো কাজ করতেই হবে। এরই মধ্যে আমার ফেসবুক পেজ, আমাকে নিয়ে ভক্তদের তৈরি একাধিক গ্রুপে ‘পাসওয়ার্ড’ নিয়ে প্রচারণা শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে জমা আছে ছবিটি। আশা করছি ছবিটি শিগগিরই ছাড়পত্র পাবে। এরপরই ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির টিমকে সঙ্গে নিয়ে প্রচারণা শুরু করব।

সূত্র: প্রথম আলো


ঢালিউড এর সর্বশেষ খবর

ঢালিউড - এর সব খবর