ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ক্রিকেটার ধোনির এই নায়িকার সঙ্গেও প্রেম ছিল

২০১৯ মে ০৯ ২২:৪৪:২৩
ক্রিকেটার ধোনির এই নায়িকার সঙ্গেও প্রেম ছিল

বলিউড আর ভারতের ক্রীড়াঙ্গন যেন হাত ধরাধরি করে চলে। বিশেষ করে ক্রিকেট। অনেকেই সম্ভবত জানেন না, এক দশক আগে দক্ষিণী চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাই লক্ষ্মীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মহেন্দ্র সিং ধোনির।

২০০৮ সালে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল চেন্নাই সুপার কিংসের (সিএসকে) ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ছিলেন ভারতের দক্ষিণী সুন্দরী রাই লক্ষ্মী। সিএসকের অধিনায়ক ছিলেন ধোনি, এখনো রয়েছেন। শোনা যায়, টিমে থাকাকালে এই নায়িকার সঙ্গে সুসম্পর্ক হয় ক্যাপ্টেন কুলের। কিন্তু খুব বেশিদিন টেকেনি সে সম্পর্ক। এক বছরের মধ্যেই আলাদা হয়ে যান দুজন।

রাই লক্ষ্মীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ফের ভালোবাসার মানুষকে খুঁজে পান ধোনি। আর তিনি হলেন শৈশবের বন্ধু সাক্ষী রাওয়াত। ওই বছরেই সাক্ষীর সঙ্গে প্রেম শুরু হয়। এ যুগল বিয়ে করেন ২০১০ সালের ৪ জুলাই। যদিও প্রেমের সম্পর্ক গোপন রেখেছিলেন দুজনই। ২০১৫ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি এই দম্পতির ঘর আলো করে আসে কন্যাসন্তান জিভা। আর রাইও নিজের মতো জীবনযাপন শুরু করেন। ধোনির পর আরো তিন-চারজনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান রাই।

কিন্তু টেস্ট ক্রিকেট থেকে ধোনি অবসর নেওয়ার সময় ফের খবরের শিরোনাম হন রাই লক্ষ্মী। মানুষ তাঁদের ব্যর্থ প্রেমের গল্প নিয়ে আলোচনা শুরু করেন। আর সেটা রাইয়ের জীবনে দারুণ প্রভাব ফেলে। ধোনির সঙ্গে নিজের সম্পর্ককে ‘ভীতিকর’ বলেও বর্ণনা করেন রাই।

টাইমস অব ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী রাই লক্ষ্মী বলেছিলেন, ধোনির সঙ্গে তাঁর সম্পর্ককে ‘দাগ’ বা ‘ভীতি’ বলে বিশ্বাস করা শুরু করেছিলেন তিনি।

‘এসব নিয়ে কথা বলার জন্য মানুষের এখনো সেই শক্তি ও ধৈর্য আছে, ভাবতেই অবাক লাগে। যতবার টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে ধোনির অতীত প্রসঙ্গ আসে, ততবারই তারা আমাদের সম্পর্ক টেনে আনে। আমার মনে হয়, একদিন আমার সন্তানেরাও টেলিভিশনে এসব দেখবে এবং এ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করবে,’ ধোনির সঙ্গে প্রেম প্রসঙ্গে বলেন রাই লক্ষ্মী।

‘ধোনির পরে আমার আরো তিন থেকে চারটা সম্পর্ক হয়েছে, কিন্তু একজনকেও কেউ খেয়াল করল না। আমি তাঁকে সত্যিই ভালো করে চিনতাম, কিন্তু একে সম্পর্ক বলা যাবে কি না, তা জানি না। কারণ আসলেই তেমন কিছু হয়নি। আমরা এখনো পরস্পরকে সম্মান করি। সে সামনের দিকে এগিয়েছে এবং বিয়েও করেছে। এখানেই গল্পের শেষ। আমি এখন খুবই সুখী মানুষ এবং কাজকেই প্রাধান্য দেই,’ যোগ করেন রাই লক্ষ্মী।

যা হোক, ধোনিকে কখনোই তাঁর অতীতের প্রেমিকা সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়নি। কিন্তু ‘জুলি টু’ সিনেমা দিয়ে বলিউড অভিষেককালে তাঁর সাহসী দৃশ্য বেশ আলোচিত হয়। ধোনির প্রসঙ্গ তোলা হয় বারবার।

ভারতের দক্ষিণী চলচ্চিত্র অঙ্গনে জনপ্রিয় মুখ রাই লক্ষ্মী। গত এক দশকে তামিল, তেলেগু, মালয়ালাম, কন্নড়, হিন্দি ভাষা মিলিয়ে ৫০টির বেশি সিনেমা করেছেন তিনি। পেয়েছেন ফিল্মফেয়ারসহ অসংখ্য পুরস্কার। সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস


খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর