ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

রূপে তোমায় ভোলাব না

২০১৮ আগস্ট ০৯ ২০:১৯:২৭
রূপে তোমায় ভোলাব না

গণিত ভালোবাসতেন কলেজে পড়ার সময়। বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ও গণিতের ওপর গ্র্যাজুুয়েশন করেছেন। পড়াশোনা নিয়ে এতই ব্যস্ত থাকতেন যে অন্য কিছু করার মতো সময়ই তাঁর হাতে ছিল না। পাকিস্তানি হলেও মমিনা মুস্তাহসান বেড়ে উঠেছেন নিউ ইয়র্কে। ক্যারিয়ার হিসেবে কখনোই গান বেছে নেওয়ার কথা ভাবেননি। ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতেও দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভুগতেন।

তবে মমিনাকে সবাই চেনা শুরু করল ২০১৬ সালে ওস্তাদ রাহাত ফতেহ আলী খানের সঙ্গে কোক স্টুডিওতে ‘আফরিন আফরিন’ গাওয়ার পর। ‘আমাকে যখন বলা হলো—আপনাকে রাহাত ফতেহ আলী খানের সঙ্গে গাইতে হবে, সেটা ছিল আমার জীবনের অন্যতম হতবিহ্বল মুহূর্ত। রাহাত ফতেহ আলী খানের গান তখনই প্রথম সামনাসামনি শুনেছি ’—জানালেন মমিনা মুস্তাহসান।

গণিত আর সংগীতের সম্পর্ক নাকি খুব কাছাকাছি। কলেজে থাকতে মমিনা একটা গান লিখে ফেলেন বন্ধু ফারহান সাঈদের সঙ্গে মিলে, নাম ‘পি জাউ’। ফাইনাল সেমিস্টারে থাকতে পাকিস্তাানি ব্যান্ড ‘সোচ’-এর সঙ্গে প্রথম কোনো গান রেকর্ড করেন। ‘আওয়ারি’ নামের গানটি একবারেই বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলে বসে ক্যাজুয়ালি রেকর্ড করা। ২০১৪ সালে এই গানটি ব্যবহার করা হয় বলিউড থ্রিলার ‘এক ভিলেন’-এ।

এর মাঝে করে ফেললেন স্ট্রিং ব্যান্ডের সঙ্গে ‘মুনতাজির’ গানটি। তত দিনে ‘আফরিন আফরিন’ ইন্টারনেট দুনিয়ায় ঝড় তুলে ফেলল। পাকিস্তানের সবচেয়ে বেশি দেখা ইউটিউব ভিডিও হয়ে গেল কম সময়ের মধ্যে। এরপর এত শুভ কামনা পেয়েছেন যে বিরক্তই হয়ে গিয়েছিলেন। মমিনা বললেন, ‘যেখানেই যাই সেখানেই শুধু রূপের প্রশংসা। আরে কেউ আমার গান নিয়ে বলুক। বলুক আমি কেমন গেয়েছি। সব মিলিয়ে খুব বিরক্ত ছিলাম। সিদ্ধান্ত নিয়ে নিলাম গান ছেড়ে দেব। আগে নিজে কিছু বলার মতো করে নিই। যখন নিজের রূপ ছাপিয়ে একজন শিল্পী হতে পারব তখনই গানে ফিরে আসব।’

মমিনা মুস্তাহসান গান ছেড়ে দিব্যি তখন শিক্ষা, মানসিক স্বাস্থ্য এবং পাকিস্তানি নারীদের ভূমিকা নিয়ে কাজ করা শুরু করলেন। যার ফলাফল ২০১৮-তে ফোর্বসের ‘থার্টি আন্ডার থার্টি লিস্টে জায়গা করে নিতে পেরেছেন ২৫ বছর বয়সী এই গায়িকা ও সমাজকর্মী।

‘আমি একজন গায়িকা থেকে বেশি কিছু হয়েছি। ত্রিশের কম বয়সী বিশ্বের ৩০ জনের ফোর্বসের তালিকায় জায়গা পেয়ে মনে হয়েছে কিছু একটা হতে পেরেছি। যেদিন ফোর্বস এই তালিকা প্রকাশ করল, সেদিনই আমি অর্জুন কানুনগোর থেকে ফোন পাই গান করার জন্য।’

আর সেই গান দিয়েই এক বছর বিরতির পর গানের জগতে ফিরেছেন মমিনা মুস্তাহসান। গায়ক অর্জুন কানুনগোর সঙ্গে করা ‘আয়া না তু’ গানটি প্রকাশ পেয়েছে গত জুনে। মমিনার আগের গানগুলোর মতো না হলেও এটাও কেড়ে নিয়েছে শ্রোতাদের মন।

সামনে কী করবেন? ‘অনেক দিন গান থেকে দূরে ছিলাম। এ বছর যত বেশি পারি গান করব। পাশাপাশি জাতীয় ও সামাজিক ইস্যু নিয়ে কথা বলব। একজন শিল্পী হিসেবে এটা আমার দায়িত্ব। আমার গানেও এসব সামাজিক সমস্যার প্রতিফলন পাবেন।’


সঙ্গীত এর সর্বশেষ খবর

সঙ্গীত - এর সব খবর