ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

সঞ্জয় দত্ত হতে যা করেছিলেন রণবীর!

২০১৮ জুলাই ১০ ২০:৫০:১৮
সঞ্জয় দত্ত হতে যা করেছিলেন রণবীর!

শুক্রবার (২৯ জুন) মুক্তি পেয়েছে বলিউডের তারকা অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের আত্মজীবনীমূলক ছবি ‘সঞ্জু’। মুক্তির প্রথম দিনই অনলাইনে ফাঁস হয়েছে ছবিটি। তবুও ছবির সাফল্য আটকাতে পারেনি। সপ্তাহ না পেরুতেই ২০০ কোটির ঘরে ঢুকেছে ছবিটি। ছবির এই সাফল্যের অনেকটা জুড়ে রয়েছেন রণবীর কাপুর। ছবিতে নিজেকে সঞ্জয় দত্ত হিসেবে উপস্থাপন করতে কঠোর পরিশ্রম করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে পরিচালক রাজকুমার হিরানি বলেন, ‘প্রথম চ্যালেঞ্জ ছিল সঞ্জয় দত্তের চরিত্রে কে অভিনয় করবেন? এমন একজনকে প্রয়োজন যে চেহারায়, কথাবার্তা ও আদবকায়দায় পুরোপরি সঞ্জয় হবেন। রণবীর সেই জায়গায় একশ-তে একশ পেয়েছেন।’

২০১৬ সালের ঘটনা। হঠাৎ রণবীর কাপুরের মুঠোফোনে রাজকুমার হিরানির ম্যাসেজ আসে। প্রথমে চরিত্রটির জন্য রাজি ছিলেন না রণবীর। পরে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেন। তারপর শুরু হয় যুদ্ধ। প্রথমে শুরু হয় সঞ্জয় দত্তের মতো চেহারা ফুটিয়ে তোলার লুক টেস্ট। পুরোপুরিভাবে সঞ্জয় দত্ত হয়ে উঠার আগে একের পর এক লুক টেস্ট বাতিল করা হয়। প্রস্থেটিক মেকআপের জন্য দিনে ছয় ঘণ্টা পোজ দিতে হতো রণবীকে।

এ প্রসঙ্গে রণবীর কাপুর বলেন, ‘প্রতিদিন অন্তত ছয় ঘণ্টা প্রস্থেটিক মেকআপ টিমের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হতো। একের পর এক লুক টেস্ট বাতিল হয়েছে। চূড়ান্ত লুক প্রকাশ্যে আসার আগে কমপক্ষে ছয়বার আমার লুক বদল করা হয়েছে। ছয় ঘণ্টা চেয়ারে বসে পোজ দিয়েছি। মেকআপ নিয়ে আলোচনা করেছি। কিন্তু দিন শেষে বলা হতো টেক ক্যানসেল। পরের দিন একইভাবে আবার বসতে হতো।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রতিদিন রাত ৩টায় উঠে এক গ্লাস প্রোটিন শেক খেতে হতো। তারপর ৮-৯টার মধ্যে মিল। সেই সঙ্গে জিম সেশন। জিম করা আমার একেবারেই অপছন্দের। তবে এই বায়োপিকে চেহারার খুবই গুরুত্ব রয়েছে। সঞ্জয় দত্তের মতো পেশি বানাতে আমাকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ নিতে হয়েছিল। মাস খানেকের চেষ্টায় চেহারার পরিবর্তন দেখে নিজেই খুব অবাক হয়ে গিয়েছিলাম। আমার শরীরে পেশির ঢেউ খেলছিল। জীবনে এমন চেহারার কথা ভাবিনি। সেটে সবাই আমাকে দেখে বলেছিল, এবার আমরা সফল হতে চলেছি।’


বলিউড এর সর্বশেষ খবর

বলিউড - এর সব খবর