ঢাকা, শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮, ৯ আষাঢ় ১৪২৫

মীমের জীবন সম্পর্কে এই তথ্য গুলো আপনার অজানা

২০১৮ জুন ১৩ ০১:১৬:৩৪
মীমের জীবন সম্পর্কে এই তথ্য গুলো আপনার অজানা

বিদ্যা সিনহা সাহা মীম বাংলাদেশের একজন মডেল, অভিনেত্রী এবং লেখিকা। লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার ২০০৭ প্রতিযোগিতায় তিনি প্রথম-স্থান লাভ করেন। একই বছরে হুমায়ুন আহমেদ পরিচালিত আমার আছে জল চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার চলচিত্রে অভিষেক হয়। জোনাকির আলো চলচ্চিত্রে অভিনয় করে ৩৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে মৌসুমীর সাথে যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার অর্জন করেন।

প্রাথমিক জীবন

মীম বাংলাদেশের রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলায় ১০ নভেম্বর, ১৯৯২ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বৃশ্চিক রাশির জাতিকা। মিমের বাবা বিরেন্দ্র নাথ সাহা একজন শিক্ষক এবং মা ছবি সাহা একজন গৃহিনী। বাবা সরকারি কলেজের শিক্ষক হওয়ায় বিভিন্ন জেলায় ঘুরে বড় হয়েছেন মিম। বাবার চাকরীসুত্রে ভোলা জেলা এবং কুমিল্লায় ছিলেন বেশ কিছু সময়।কিন্তুু তার কাছে তার প্রিয় জেলা হল তার জন্মস্থান রাজশাহী জেলা। মীমের ছোট একটি বোন আছে যার নাম প্রজ্ঞা সিনহা সাহা মমি। লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় এসেছিলেন মা-বাবার অনুপ্রেরণায়।

শিক্ষা জীবন
রাজশাহীতে জন্ম হলেও বেড়ে উঠেছেন ভোলায়, এসএসসি ও এইচএসসি পড়াশোনা করেছেন কুমিল্লায়। সাউথ ইস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ছাত্রী মীম এসএসসিতে কুমিল্লা বোর্ডের অধীনে নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে “গোল্ডেন এ প্লাস” পেয়ে পাস করেন। এইচএসসিতে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ থেকে মানবিক বিভাগে “এ” পেয়েছেন।

অভিনেত্রী
হুমায়ুন আহমেদ পরিচালিত আমার আছে জল চলচ্চিত্রে অসাধারন অভিনয় করে মীম সবার নজরে আসেন। এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার-এ সমালোচকদের বিচারে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনয়শিল্পীর পুরস্কার লাভ করেন। পরের বছর ২০০৯ সালে মীম অভিনয় করেন জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত আমার প্রাণের প্রিয়া ছায়াছবিতে। যাতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন শাকিব খান। এই ছায়াছবির জন্য তিনি মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার-এ তারকা জরিপে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনয়শিল্পীর পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন। এর সাথে সাথে মীম ছোট পর্দায় বেশ কিছু নাটকেও নিয়মিত অভিনয় করেন।

২০১৩ সালে মিজানুর রহমান আরিয়ানের অপরাধধর্মী ট্রাম্প কার্ড নাটকে অভিনয় করেন। নাটকটি ঈদুল ফিতরে আরটিভিতে প্রচারিত হয়। এরই অনুবর্তী পর্ব ট্রাম্প কার্ড ২ একই বছর ঈদুল আযহায় আরটিভিতে প্রচারিত হয়। এরপর লম্বা বিরতি নিয়ে ২০১৪ সালে পহেলা বৈশাখে খালিদ মাহমুদ মিঠু পরিচালিত জোনাকির আলো মুক্তি পায়। ত্রিভুজ প্রেমের গল্পে তার বিপরীতে অভিনয় করেন মামনুন হাসান ইমন ও কল্যাণ কোরাইয়া।


বিদ্যা সিনহা সাহা মীম
ছায়াছবিটি ব্যবসায়িক সফলতার মুখ না দেখলেও তার গ্ল্যামার প্রশংসিত হয়। এই চলচ্চিত্রে সমাজকর্মী ‘কবিতা’ চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি ৩৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে মৌসুমীর সাথে যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার অর্জন করেন। এরপর মুক্তি পায় তার পরবর্তী ছায়াছবি মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত তারকাঁটা। এতে তার সঙ্গে আরও অভিনয় করেন আরিফিন শুভ ও মৌসুমী। ছবিটি দিয়ে বিদ্যা সিনহা মীম আবার লাইমলাইটে আসেন।

২০১৫ সালের ঈদুল ফিতরে মীমের বহুল প্রতীক্ষিত ছবি পদ্ম পাতার জল মুক্তি পায়। ছবিটি কম সংখ্যক হলে মুক্তি পেলেও ভালো ব্যবসা করেছে। তাছাড়া মীম যৌথ প্রযোজনার ছায়াছবি ব্ল্যাক-এ অভিনয় করেছেন। ছবিটি ২০১৫ সালের ২৭ নভেম্বর ভারতে ও ৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশে প্রায় ২০০টি হলে মুক্তি পায়। রাজা চন্দ পরিচালিত এই ছায়াছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন কলকাতার জনপ্রিয় নায়ক সোহম চক্রবর্তী।


বিদ্যা সিনহা সাহা মীম
২০১৬ সালে ভালোবাসা দিবসে মুক্তি পায় মীম অভিনীত সুইটহার্ট। ছায়াছবিটি পরিচালনা করেন শাহীন-সুমন পরিচালক জুটির ওয়াজেদ আলী সুমন। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন বাপ্পি চৌধুরী এবং একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেন রিয়াজ।

ঈদুল ফিতরের তৃতীয় দিন আরটিভিতে প্রচারিত হয় টেলিছবি সেই মেয়েটি। মিজানুর রহমান আরিয়ান নির্মিত টেলিছবিতে তার বিপরীতে ছিলেন তাহসান রহমান খান। বছরের শেষে মুক্তি পায় অনন্য মামুন পরিচালিত আমি তোমার হতে চাই। এই ছবিতেও তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন বাপ্পি চৌধুরী।

বিদ্যা সিনহা সাহা মীম
২০১৭ সালে ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পায় তানিয়া আহমেদের পরিচালনায় ভালোবাসা এমনই হয়। রোমান্টিক-কমেডিধর্মী এই ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন ইরফান সাজ্জাদ। ফেব্রুয়ারিতে ভালোবাসা দিবসে বাংলাভিশনে প্রচারিত হয় নাট্য নির্মাতা মাবরুর রশিদ বান্নার তোমার পিছু পিছু। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন তাহসান রহমান খান। এছাড়া নির্মাণাধীন রয়েছে তারেক শিকদারের দাগ, মনতাজুর রহমান আকবরের দুলাভাই জিন্দাবাদ ও তেলেগু নায়ক অরিন্দমের বিপরীতে রকি।

মডেল ও শুভেচ্ছাদূত
মীম ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে এক বছরের চুক্তিতে ল্যাপটপ ব্রান্ড এসারের শুভেচ্ছাদূত হন। মে মাসে গ্রামীণফোনের একটি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন। আদনান আল রাজীব নির্দেশনায় এই বিজ্ঞাপনে আরও আছেন গায়ক ও মডেল তাহসান রহমান খান। আগস্ট মাসে ইউনিলিভারের সাবান লাক্সের শুভেচ্ছাদূত হন এবং পাঁচটি বিজ্ঞাপনের মডেল হন।

লেখিকা
২০১২ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় মীমের প্রথম গল্পের বই শ্রাবণের বৃষ্টিতে ভেজা প্রকাশিত হয়। তার পরের বছর অর্থাৎ ২০১৩ সালের বইমেলায় প্রকাশিত হয় তার উপন্যাস পূর্ণতা। উপন্যাসটি সম্পর্কে মীম বলেন, “একটি মেয়ের গল্প নিয়ে আমার উপন্যাস। মেয়েটির জীবনের কয়েকটি অধ্যায়, টানাপোড়েন আর সংগ্রামের কথা রয়েছে তাতে।” দুইটি বই-ই প্রকাশ করে শব্দশিল্প প্রকাশনী।


ঢালিউড এর সর্বশেষ খবর

ঢালিউড - এর সব খবর